ঢাকা | শনিবার | ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ | ৯ ফাল্গুন, ১৪২৬ | ২৬ জমাদিউস-সানি, ১৪৪১ | English Version | Our App BN | বাংলা কনভার্টার

  • Main Page প্রচ্ছদ
  • বিদেশ
  • বাংলাদেশ
  • স্বদেশ
  • ভারত
  • অর্থনীতি
  • বিজ্ঞান
  • খেলা
  • বিনোদন
  • ভিডিও
  • ♦ আরও ♦
  • ♦ গুরুত্বপূর্ণ লিংক ♦
  • Review News


  • ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

    দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হলো ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমা
    এনবিএস | Sunday, January 19th, 2020 | প্রকাশের সময়: 3:49 pm

    দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হলো ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমাদ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হলো ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমা

    সুজন সারোয়ার,টঙ্গী ঃ দিল্লি মারকাজের মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারিদের দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতের মধ্যেদিয়ে শেষ হলো ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমা। মোনাজাতে ইহকালে শান্তি, পরকালে মাগফেরাত এবং বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। গতকাল রোববার সকাল ১১টা ৪৯ মিনিটে আখেরি মোনাজত শুরু হয়ে শেষ হয় ১২ টা ৭ মিনিটে। ১৮ মিনিট ব্যাপী মোনাজাত পরিচালনা করেন দিল্লির প্রবীন আলেম ও তাবলিগের শীর্ষ মুরব্বি মাওলানা জমশেদ। মোনাজাতে লাখ লাখ মুসল্লির আমিন আমিন ধ্বনিতে পুরো টঙ্গী প্রকম্পিত হয়ে ওঠে।

    এর আগে রোববার বাদ ফজর থেকে হেদায়েতি বয়ান শুরু হয়। সকাল থেকে ইজতেমায় বয়ান করেন ভারতের মাওলানা ইকবাল হাফিজ। আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ভোর থেকেই ধর্মপ্রাণ মুসল্লিরা টঙ্গীর তুরাগ নদের তীরের বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে জড়ো হতে থাকেন। চার দিন বিরতির পর গত ১৭ জানুয়ারি বাদ ফজর নামাজের পর আম বয়ানের মাধ্যমে মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারিদের বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু হয়। গত ১২ জানুয়ারি বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে মাওলানা যোবায়ের অনুসারিদের শেষ হয় প্রথম পর্বে ইজতেমা।  

    আগামীতে মাওলানা সাদকে নিয়ে ইজতেমা করতে চান অনুসারীরা ঃ  আগামী বছর থেকে মাওলানা সাদ কান্দলভীকে নিয়ে টঙ্গীর ময়দানে ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমা করতে চান তার অনুসারীরা। এর আগেই উভয়পক্ষের বিরোধ মিটে যাবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

    এদিকে শনিবার রাতে স্থানীয় সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এবং গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে ইজতেমা ময়দানের শীর্ষ মুরব্বিদের বৈঠক হয়। এতে চট্টগ্রামের লালখান জমিয়াতুল উলুম আল-ইসলামিয়া মাদরাসার প্রিন্সিপাল ও হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা নায়েবে আমির মুফতি ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরী এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, মাওলানা সাদ কান্ধলভীর কিছু বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। তিনি সে সব বক্তব্যের ব্যাপারে একটি সমাধানে পৌঁছানের পর আগামীতে টঙ্গী ইজতেমায় তার যোগদানের পথ সুগম হবে বলে মনে করছেন তাবলিগের সাথীরা।

    ইজতেমার মুরব্বিরা বলেন, আমাদের মতানৈকের কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা। ধীরে ধীরে বিশ্ব ইজতেমায় বিদেশি মুসল্লিদের আসা কমে যাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে এটি আর বিশ্ব ইজতেমা থাকবে না। তখন এটি বাংলাদেশের ইজতেমায় পরিণত হবে। আগে যেখানে শতাধিক দেশ থেকে ২৫ থেকে ৩০ হাজার বিদেশি মুসল্লি ইজতেমায় আসতো এখন দুই পর্বে মাত্র পাঁচ হাজারের মতো মুসল্লি আসছেন। তাই ঐক্যবদ্ধ ইজতেমা খুব জরুরি হয়ে পড়েছে। 
    যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ও গাজীপুর সিটি মেয়র এ্যাড. মো. জাহাঙ্গীর আলম প্রথম পর্বের ন্যায় ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বেও তাবলিগ জামাতের মুরব্বিদের সঙ্গে ময়দানে সময় দিয়েছেন। রাত-দিন তারা ময়দানে মুরব্বিদের সঙ্গেই অবস্থান করেছেন। 

    সাদ অনুসারীদের দুই পর্বের ইজতেমার তারিখ ঘোষণা ঃ বিশ্ব ইজতেমার মাওলানা জুবায়ের অনুসারীদের দুই পর্বের ইজতেমার তারিখ ঘোষণার পর মাওলানা সাদ অনুসারীরা আগামী ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমার পৃথক সময়ে দুই পর্বের তারিখ ঘোষণা করেছেন। রোববার দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতের আগে ইজতেমার বয়ান মঞ্চ থেকে এ তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে।

    মাওলানা সাদ অনুসারীদের ইজতেমা আয়োজক কমিটির শুরার বৈঠকের সিদ্ধান্ত মোতাবেক এ তারিখ ঘোষণা করা হয় বলে জানান ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়কারী মো. সায়েম।

    ঘোষাণা অনুযায়ী আগামী ২৫, ২৬ ও ২৭ ডিসেম্বর ২০২০ প্রথম পর্ব এবং ১, ২ ও ৩ জানুয়ারি ২০২১ দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ১৩ থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত ইজতেমা ময়দানে সা’দ অনসুসারীদের পাঁচ দিনের জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

    ১২ জানুয়ারি ইজতেমার প্রথম পর্বের আখেরি মোনাজাত শেষে মাওলানা যোবায়ের অনুসারীদের ইজতেমার দুই দফার তারিখ ঘোষণা করা হয়। সেই ঘোষণা অনুসারে তাদের ইজতেমার প্রথম ধাপ হবে ৮, ৯ ও ১০ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় ধাপ অনুষ্ঠিত হবে ১৫, ১৬ ও ১৭ জানুয়ারি।

    ইজতেমা সূত্রে জানা যায়, ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে ৩৫টি রাষ্ট্রের প্রায় আড়াই হাজার মুসল্লি যোগ দিয়েছেন। প্রথম পর্বে ৬৪টি জেলার মুসল্লিরা অংশ নেন। দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমাতেও দিল্লির মাওলানা সা’দ অনুসারী ৬৪ জেলার মুসল্লিরা অংশ নিয়েছেন। 

    বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিলো জাতীয় ক্রিকেট টিম ঃ বিপিএল-এর (বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ) খেলা শেষ হওয়ার পরপরই বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের কয়েকজন সদস্য শনিবার রাতে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে অংশগ্রহণ করেন। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের খেলোয়াড় মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, সোহরাওয়ার্দী শুভ, জুনায়েদ সিদ্দিকী, রাকিবুল হাসান ও শাহরিয়ার নাফিস।

    বিশ্ব ইজতেমার মিডিয়া সমন্বয়কারী মো. সায়েম জানান,  বাংলাদেশের জাতীয় ক্রিকেট টিমের এসব সদস্য বিদেশিদের জন্য নির্ধারিত খিত্তায় অবস্থান করেন। সেখানে তারা ভারতের নিজামুদ্দিন মারকাজের শীর্ষ মুরব্বি ও আলেম-ওলামাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন এবং দোয়া কামনা করেন। গতকাল আখেরি মোনাজাতেও তারা অংশ নেন।

    এছাড়াও মাশরাফি বিন মর্তুজা এমপি ও তামিম ইকবালসহ বিপিএলে খেলতে আসা বেশ কয়েকজন মুসলিম খেলোয়াড়ও আখেরি মোনাজাতে অংশগ্রহণ করেন বলে জানিয়েছেন কাকরাইলের মুরব্বি মুফতি উসামা ইসলাম।
    ইজতেমা ময়তানে মাদ্রাসা ছাত্রকে নাজেহাল ঃ টঙ্গীর তুরাগ তীরে মাওলানা সাদ কান্ধলভিদের আয়োজনে ৫৫ বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে এক মাদ্রাসা ছাত্রকে নাজেহাল করার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওতে দেখা যায় কাওমি মাদ্রাসার একজন ছাত্র বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে প্রবশ করলে বেশ কয়েক মুসল্লি তাকে লক্ষ্য করে ধেয়ে আসে।

    ইজতেমায় অংশগ্রহণকারী মুসল্লিদের দ্বারা ছাত্রদেরকে হেনস্থা করার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। অপর একটি ভিডিওতে দেখা যায় ইজতেমা দেখতে যাওয়া একজন মাদ্রাসা ছাত্রকে কয়েকজন মিলে চরম হেনস্থা করছেন। এ সময় কয়েকজন মুসল্লিকে বলতে শোনা যায় যে, ছাত্রটি জঙ্গি, সন্ত্রাসী। কেউ কেউ ওই ছাত্রকে পুলিশে সোপর্দ করার কথাও বলতে থাকে। তবে মারমুখী মুসল্লিদের থেকে তাকে রক্ষা করতে কয়েকজন মুরব্বী মুসল্লি এগিয়ে আসে এবং তাকে নিরাপত্তা স্থানে নিয়ে যায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এ ভিডিও নিয়ে প্রতিবাদও করে অনেকে।

    উল্লেখ্য ঃ গত বছরও মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারীদের ইজতেমা দেখতে যাওয়া মাদ্রাসা ছাত্রদেরকে চরম হেনস্থা করা হয়েছিল বলেও সে সময় অনেকে অভিযোগ করেছিলেন। এবারও সে ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটানো হলো। 

    অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ ঃ জয়দেবপুর-চৌরাস্তা, টঙ্গী ষ্টেশন রোড, টঙ্গী বাজার, আব্দুল্লাপুর, উত্তরা হাউস বিল্ডিং থেকে গুলিস্থান বা যাত্রাবাড়ী পর্যন্ত বাসগুলো ১২০-১৫০ টাকা চুক্তিতে যাত্রীদের ডাকছে। কিছু কিছু পিকআপ গাড়ি কুড়িল বা মহাখালী পর্যন্ত ৫০-৭০ টাকায় যাত্রী পরিবহন করছে। অন্যদিকে সিরিয়াল করে দাঁড়িয়ে আছে সিএনজি চালিত অটোরিকশা, যারা অল্প দূরত্বে ৪-৬ জন করে যাত্রীদের পৌঁছে দিচ্ছেন জনপ্রতি ১০০-১৫০ টাকা ভাড়া আদায়ের মাধ্যমে। বাকি মুসল্লিরা পায়ে হেঁটেই কুড়িল বিশ্বরোড বা মহাখালী পর্যন্ত যেতে বাধ্য হচ্ছেন। ফলে ইজতেমায় অংশ গ্রহণ শেষে ফিরতি পথে বিড়ম্বনায় শিকার হচ্ছে মুসল্লিরা।

    ইজতেমা ময়দানে অব্যবস্থাপনায় মুসল্লিদের দূর্ভোগ ঃ এবছরের ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিদের ঠিকভাবে পানি ও প্রাকৃতিক প্রয়োজন সম্পন্ন করার ব্যবস্থা সঠিকভাবে দিতে পারেনি ইজতমো আয়োজক কমিটি, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলো ফলে মুসল্লিদের দূর্ভোগের অন্ত ছিলো না। প্রথম পর্বের ইজতেমার প্রথম দিন শুক্রবারই এ সমস্যা দেখা দেয়ায় অনেক মুসল্লিরা ময়দান ছেড়ে চলে যেতেও দেখা গেছে। এজন্য স্থানীয় লোকজন গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের প্রকৌশলী (পানি) আনিছুর রহমানের কর্তব্যে অবহেলাকে দায়ী করেছে। সেক্ষেত্রে আগামীতে সুষ্ঠু সুন্দর ব্যবস্থাপনা দিতে র্ব্যথ হবে আয়োজকরা।

    আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে রাস্তায় হাজারো নারী ঃ আখেরী মোনাজাতে অংশ নিতে বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজার হাজার মহিলা ধর্মপ্রাণ মুসল্লি ইজতেমা ময়দানের আশেপাশে, বিভিন্ন মিলকারখানা, বাসা-বাড়ি, স্কুল কলেজ ও বিভিন্ন দালানের ছাঁদে বসে আখেরী মোনাজাতে অংশ নিতে দেখা গেছে। ইজতেমায় নারীদের অংশ নেয়ার কোনো বিধান না থাকলেও ৫৫তম বিশ্ব ইজতেমার প্রথম ও দ্বিতীয় পর্বের আখেরি মোনাজাতে অংশ নিয়েছেন।  আখেরি মোনাজাতের ফজিলত লাভের আশায় তারা মোনাজাতে শরিক হতেই ময়দানের আশপাশের এলাকায় পর্দার সঙ্গে অবস্থান নিয়েছেন বলে জানালেন বেশ কয়েকজন নারী। 

    অপ্রতুল দ্বিতীয় পর্বের মোনাজাতে মাইকের ব্যবস্থা ঃ আখেরী মোনাজাতের সময় বেতার ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়া কর্তৃপক্ষ মোনাজাত প্রচার করলেও টঙ্গী ও আশপাশের এলাকায় পর্যাপ্ত মাইকের ব্যবস্থা না থাকায় মুসল্লিদের সময় অনুসারে মোনাজাতে অংশ নিতে বিরম্ভবনায় পড়তে দেখা গেছে। এছাড়াও  এবছর রেডিও-টিভিতে ইজতেমা ময়দানের আশপাশ থেকে মোনাজাত হাজার হাজার মুসল্লিকে মোনাজাতে অংশ নিতে দেখা গেছে। 

    ময়দানের আশপাশে ময়লার স্তুপ ঃ  ইজতেমা ময়দানের উত্তর পাশে টঙ্গী-আশুলিয়া রোডের ফুটপাতে, পশ্চিম ও দক্ষিণ দিকে তুরাগ নদের তীরসংলগ্ন এলাকা, টঙ্গী ষ্টেশন রোড এলাকাসহ ঢাকা ময়মনসিংহ রোড ও ইজতেমা ময়দানে প্রথমাংশে অনুষ্ঠিত ইজতেমায় অংশ নেয়া মুসল্লি¬দের ফেলে যাওয়া উচ্ছিষ্ট ও নানা ধরণের আর্বজনার স্তুপ পড়ে আছে। সেগুলো থেকে দূগন্ধ ছড়াচ্ছে। তবে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশ কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে সেগুলো অপসারনের কাজ করতে দেখা গেছে। 

    ভিক্ষুকের আনাগোনা :- বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার আগেই ময়দানের চারপাশের ফুটপাত গুলোতে ভিক্ষুকের আনাগোনা বেড়ে গেছে। নোংরা ও ময়লা কাপড় পরে সাহায্যের জন্য মুসল্লিদের পথ আগলে ধরায় অনেক মুসল্লিরা¬ বিব্রতবোধ করেন। এদিকে বিদেশী মুসল্লি¬দের নিবাস এলাকাসহ টঙ্গী এলাকার বাসা বাড়িতে ভিক্ষুকদের আনাগোনা বেড়ে গেছে দ্বিগুন। ফলে দেশী-বিদেশী মুসল্লিসহ স্থানীয় বাসিন্দারা বিরম্ভবনার শিকার হতে হয়েছে।
     
    অবৈধ দোকানপাট মুসল্লিদের যাতায়াতে কষ্ট :Ñ ইজতেমা শুরু থেকে গতকাল পর্যন্ত পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকা সত্বেও ময়দানের চারপাশে ভাসমান দোকানদাররা হরেক রকমের দোকানের পসরা সাঁজিয়ে বসায় ইজতেমায় আগত মুসল্লি¬দের যাতায়াতে বেশ কষ্ট পোহাতে হচ্ছে। মুসল্লি¬দের মালামাল কেনার জন্য বিভিন্নভাবে ডাক-চিৎকার করে আহ্বান করছেন ফুটপাত ব্যবসায়ীরা। পুলিশ বার বার তাদের বাধা প্রদান করলেও থামছে না না হকাররা।

    ইজতেমা ময়দানে মোবাইল নেটওয়ার্ক সমস্যা :- রোববার সকাল থেকে ইজতেমা ময়দান ও টঙ্গী আশপাশ এলাকা থেকে দেশের বিভিন্নস্থানে নেটওয়ার্ক যোগাযোগ ছিলো খুবই দূর্বল। মাঝে মধ্যে লাইন পেলেও মূহুর্তেই কেটে যাচ্ছিল। মোবাইল ফোন কোম্পানীগুলো নেটওর্য়াক সুবিধা দিতে ইজতেমা উপলক্ষে ইজতেমার আশপাশ এলাকায় অতিরিক্ত মোবাইল টাওয়ার সংযোগ করলেও এ সমস্যার সমাধান দিতে পারেনি।

    পরিত্যক্ত জুতা ও পত্রিকার কাগজ :- দ্বিতীয় পর্বের আখেরী মোনাজাত শেষে হুড়োহুড়ি করে ইজতেমা ময়দান থেকে বের হতে গিয়ে অগনিত জুতা ও সেন্ডেল ফেলেই খালি পায়ে মাঠ ত্যাগ করেন ধর্মপ্রাণ অনেক মুসল্লিরা¬। এছাড়াও মোনাজাত শেষে ইজতেমা মাঠ ও আশপাশের সড়কগুলোকে বিপুল পরিমাণ পত্রিকার কাগজ, জুতা ও সেন্ডেল পড়ে থাকতে দেখা যায়। টোকাইরা পরিত্যক্ত জুতা ও সেন্ডেল বস্তায় ভরে নিয়ে যেতে দেখা গেছে।

    পকেটমার-ছিনতাইকারী গ্রেফতার :- গত ১০ জানুয়ারী রাত থেকে ১৯ জানুয়ারী দুপুর পর্যন্ত ইজতেমাস্থলের আশে-পাশের এলাকায় অভিযান চালিয়ে টঙ্গী, উত্তরা, তুরাগ থানা পুলিশ, ডিবি পুলিশ, র‌্যাব ও বিভিন্ন গোয়েন্দা পুলিশ পকেটমার-ছিনতাইকারীসহ বিভিন্ন অপরাধে কয়েক শতাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে বলে জানা গেছে ।
    ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে আরও দুই মুসল্লির মৃত্যু ঃ টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে শনিবার রাতে আরও ২ মুসল্লির মৃত্যুু হয়েছে। এ নিয়ে এবারের দ্বিতীয় পর্বের ইজতেমায় ৯ মুসল্লি মৃত্যু হয়েছে।

    গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের কন্ট্রোল রুমের মিডিয়া দায়িত্বপ্রাপ্ত মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার মো. মনজুর রহমান জানান, শনিবার রাতে বার্ধক্যজনিত রোগে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ থানা এলাকার মৃত মুজিবরের ছেলে মো. শাহ আলম (৫৫) মারা গেছেন। বাদ ফজর তার জানাজা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়াও একইদিন নোয়াখালী জেলার হাতিয়া থানার আজিম নগরের মফিজুল ইসলামের ছেলে মো. মনির উদ্দিন (৪০) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।
    উল্লেখ্য ঃ ১৯৬৭ সাল থেকে তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমা নিয়মিত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ১৯৯৬ সালে একই বছর দু’বার বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছিল। স্থান সংকুলান না হওয়ায় এবং মুসল্লিদের চাপ ও দুর্ভোগ কমাতে ২০১১ সাল থেকে দুই পর্বে বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্টিত।
     


     

    Space For Advertisement

    (Spot # 14)

    Advertising Rate Chart

    আপনার মন্তব্য লিখুন...
    Delicious Save this on Delicious

    nbs24new3 © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
    নিউজ ব্রডকাস্টিং সার্ভিস - এনবিএস
    ২০১৫ - ২০২০

    উপদেষ্টা সম্পাদক : এডভোকেট হারুন-অর-রশিদ
    প্রধান সম্পাদক : মোঃ তারিকুল হক, সম্পাদক ও প্রকাশক : সুলতানা রাবিয়া,
    সহযোগী সম্পাদক : মোঃ মিজানুর রহমান, নগর সম্পাদক : আব্দুল কাইয়ুম মাহমুদ
    সহ-সম্পাদক : মৌসুমি আক্তার ও শাহরিয়ার হোসেন
    প্রধান প্রতিবেদক : এম আকবর হোসেন, বিশেষ প্রতিবেদক : এম খাদেমুল ইসলাম
    স্টাফ রিপোর্টার : মোঃ কামরুল হাসান, মোঃ রাকিবুর রহমান ও সুজন সারওয়ার
    -------------------------------------------
    ৩৯, আব্দুল হাদি লেন, বংশাল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
    ফোন : +৮৮ ০২ , +৮৮ ০১৭১৮ ৫৮০ ৬৮৯
    Email : news@nbs24.org, thenews.nbs@gmail.com

    ইউএসএ অফিস: ৪১-১১, ২৮তম এভিনিউ, স্যুট # ১৫ (৪র্থ তলা), এস্টোরিয়া, নিউইর্য়ক-১১১০৩, 
    ইউনাইটেড স্টেইটস অব আমেরিকা। ফোন : ৯১৭-৩৯৬-৫৭০৫।

    আসাক আলী, প্রধান সম্পাদক, ভারত।
    ভারত অফিস : সেন্ট্রাল রোড, টাউন প্রতাপগড়, আগরতলা, ত্রিপুরা, ভারত।

    Home l About NBS l Contact the NBS l DMCA l Terms of use l Advertising Rate l Sitemap l Live TV l All Radio

    দেশি-বিদেশি দৈনিক পত্রিকা, সংবাদ সংস্থা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে সংগৃহিত এবং অনুবাদকৃত সংবাদসমূহ পাঠকদের জন্য সাব-এডিটরগণ সম্পাদনা করে
    সূত্রে ওই প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে প্রকাশ করে থাকেন। এ জাতীয় সংবাদগুলোর জন্য এনবিএস কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করবেন না।
    আমাদের নিজস্ব লেখা বা ছবি 'সূত্র এনবিএস' উল্লেখ করে প্রকাশ করতে পারবেন। - Privacy Policy l Terms of Use