ঢাকা | রবিবার | ৫ এপ্রিল, ২০২০ | ২২ চৈত্র, ১৪২৬ | ১১ শাবান, ১৪৪১ | English Version | Our App BN | বাংলা কনভার্টার

  • Main Page প্রচ্ছদ
  • করোনাভাইরাস
  • বিদেশ
  • বাংলাদেশ
  • স্বদেশ
  • ভারত
  • অর্থনীতি
  • বিজ্ঞান
  • খেলা
  • বিনোদন
  • ভিডিও
  • ♦ আরও ♦
  • ♦ গুরুত্বপূর্ণ লিংক ♦
  • Review News


  • ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

    প্রচলিত টেকসই প্লাস্টিক উৎপাদনের নবায়নযোগ্য উৎস সমূহ        
    এনবিএস | Saturday, February 22nd, 2020 | প্রকাশের সময়: 4:32 pm

    প্রচলিত টেকসই প্লাস্টিক উৎপাদনের নবায়নযোগ্য উৎস সমূহ        প্রচলিত টেকসই প্লাস্টিক উৎপাদনের নবায়নযোগ্য উৎস সমূহ                


    প্লাস্টিকের উপর আমাদের নির্ভরশীলতা আমাদের চারপাশে তাকালেই দেখা যায়। গত তিন দশকের বেশি সময় ধরেই প্লাস্টিক আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিক ভাবে জুড়ে গিয়েছে। বর্তমানে অন্যতম আলোচনার বিষয হলো টেকসই প্লাস্টিক।প্লাস্টিক কেবল একটি বহুমুখী উপাদানই নয়  স্থায়িত্বের ক্ষেত্রেও এর সুবিধা রয়েছে।এই যুগে টেকসই প্লাস্টিকের ভবিষ্যতকে দুর্দান্ত বৃদ্ধি হিসাবে বর্ণনা করা যেতে পারে  বিশেষত বায়োব্যাসেড প্লাস্টিকের জন্য। প্রচলিত প্লাস্টিকের তুলনায় কার্বন পদচিহ্ন, কম বর্জ্র্য , এবং কম দূষণের মাধ্যমে টেকসই প্লাস্টিক তৈরি করা যায়। প্যাকেজিং বোতল এবং ব্যাগের জন্য এখন টেকসই প্লাস্টিক ব্যবহৃত হচ্ছে। টেকসইজাত প্লাস্টিকের পণ্য গুলো পুনর্ব্যবহারযোগ্য বা বায়োবেসড প্লাস্টিক থেকে তৈরি করা হয় এবং খুব অল্প পরিমাণে সামাজিক এবং পরিবেশগত প্রভাব ফেলে। টেকসই প্লাস্টিক পণ্য  উৎপাদন কি  নিন্মলিখিতভাবে  বিশ্লেষণ করা যায় :

    ১) বিশুদ্ধ পেট্রোলিয়াম ভিত্তিক প্লাস্টিকের চেয়ে কম কার্বন পদ চিহ্ন

    ২) বিশুদ্ধ পেট্রোলিয়াম ভিত্তিক প্লাস্টিকের তুলনায় বর্জ্য উত্পাদন কম বজ্র উৎপাদন


    নিয়ন্ত্রিত ভারী ধাতুগুলির সর্বনিম্ন স্তর।

    ৪) পরিষ্কার  উৎপাদন প্রক্রিয়া

    ৫) ন্যায্য শ্রমিকের মজুরি।

    ৬) নিরাপদ কর্মী পরিবেশ।

    ২০১০ সালে মোট ১৮১ মিলিয়ন টন সিনথেটিক প্লাস্টিক উৎপাদিত হয়েছিলো যার মাত্র ১% ছিলো টেকসই প্লাস্টিক । 2020 সালে বায়োব্যাসেড পলিমার  উৎপাদন ক্ষমতা তিনগুণ হবে বলে আশা করা হচ্ছে( 2011 সালে 3.5 মিলিয়ন টন থেকে 2020 সালে 12 মিলিয়ন টন)।  ।টেকসই পণ্যগুলির উদীয়মান অগ্রাধিকারকে পুঁজি করার জন্য, পণ্য ডিজাইনার এবং নির্মাতারা ঐlতিহ্যবাহী পেট্রোলিয়াম-ভিত্তিক প্লাস্টিকগুলির বিকল্প খুঁজছেন।  পুনর্নবীকরণযোগ্য, পুনঃনির্মাণ বা পুনর্ব্যবহারযোগ্য উপকরণ দিয়ে তৈরি নতুন প্লাস্টিকগুলি এখন অনেকগুলি প্রচলিত প্লাস্টিকের   ক্ষেত্রে সহজেই প্রতিস্থাপিত হতে পারে।  এই উপকরণগুলি হালকা পরিবেশগত পদচিহ্ন সহ উচ্চমানের, প্রতিযোগিতামূলক পণ্য উত্পাদন করতে পারে।আক্ষরিক অর্থে   100% টেকসই প্লাস্টিকের (বা অন্য কোনও উপাদান) এর মতো কোনও জিনিস নেই।  উত্পাদন এবং পরিবহনে সর্বদা কাঁচামাল ব্যবহৃত হবে।  তবে, আরও টেকসই প্লাস্টিকের উত্পাদনের ক্রমবর্ধমান উন্নতিগুলি আমাদের পরিবেশের উপর উল্লেখযোগ্য ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে এবং একটি টেকসই ভবিষ্যতের সম্ভাবনা বাড়িয়ে তুলতে পারে।টেকসই প্লাস্টিক ব্যবহার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে জৈব প্লাস্টিকের প্রচলন শুরু হয়েছে।জৈবপ্লাস্টিক হল পুনর্নবীকরণযোগ্য উতস থেকে আসা পচনশীল উপকরণ।এটি প্লাস্টিকের বর্জ্যের সমস্যাটি অনেকাংশে হ্রাস করে এবং পরিবেশ দূষণরোধে কার্যকরী ভূমিকা রাখতে পারে। 

    এগুলি 100% অবননযোগ্য, সমানভাবে প্রতিরোধী এবং বহুমুখী, ইতিমধ্যে কৃষি, টেক্সটাইল শিল্প, ওষুধ এবং সর্বোপরি, পাত্রে এবং প্যাকেজিং বাজারে ব্যবহৃত হয়েছে। জৈবপ্লাস্টিকে শুধুমাত্র পরিবেশবান্ধবই নয় এটি নবায়নযোগ্য উৎসথেকে উতপাদন করা যায়। 2020 সালে  বৈশ্বিক প্লাস্টিক উৎপাদনের 3% জৈব প্লাস্টিক থাকবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।জৈবপ্লাস্টিকের বিকাশের দ্বারা অ-খাদ্য ভিত্তিক কৃষি  উৎস থেকে বায়োব্যাসেড প্লাস্টিক,পচনশীল পণ্য ছাড়াও টেকসই পণ্যগুলির বিকাশ এবংথার্মোপ্লাস্টিক এবং থার্মোসেট পলিমারগুলির জন্য নতুন বায়োব্যাসযুক্ত রাসায়নিকগুলির বিস্তার ঘটেছে। বাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার অব সাসটেইনেবল কেমিক্যাল টেকনোলজিসের (সিএসসিটি) বিজ্ঞানীরা প্লাস্টিকের একটি পচনশীল রূপ   তৈরি করতে সক্ষম হন।  এটি চিনি এবং কার্বন ডাই অক্সাইড দিয়ে তৈরী করা হয় । এটি কম চাপ এবং সাধারণ  তাপমাত্রায় কার্বনডাই-অক্সাইড  এর সাথে থাইমিডিন নামক একটি চিনি একত্রিত করে তৈরি করা হয়। চাল স্টার্চ দিয়ে টেকসই, পচনশীল  পলিমার তৈরি করা যায়। এই পলিমারগুলি  খাদ্য প্যাকেটজাত করনে ব্যবহৃত হয়। চাল দিয়ে তৈরী  এই জৈব-প্লাস্টিকের উচ্চ মানের তাপ প্রতিরোধেক ক্ষমতা আছে।জৈব প্লাস্টিকের আরেকটি নবায়নযোগ্য উৎস হল কলার খোসা। রাসায়নিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কলার খোসা থেকে জৈব প্লাস্টিক তৈরি করা যায় যা সাধারণ প্লাস্টিকের উপর নির্ভরশীলতা অনেকটাই কমিয়ে দেয়। চিংড়ি মাছের শরীরের বাইরের আবরণ থেকেও জৈব প্লাস্টিক তৈরি করা যায়। চিংড়ি মাছের আবরণ উচ্ছিষ্ট হিসেবে ফেলে দেওয়া হত কিন্তু এই উচ্ছিষ্টই এখন উন্নত মানের টেকসই প্লাস্টিক উৎপাদনে ব্যবহৃত হচ্ছে। 

    সামুদ্রিক শৈবাল খুব প্রচুর পরিমাণে সমুদ্রে পাওয়া যায়,খাবার হিসেবে খুব বেশি প্রচলিত নয়, জন্মানোর জন্য জমির জায়গা নেয় না এমনকি সারের প্রয়োজন হয় না।  এটি জৈব প্লাস্টিক তৈরির জন্য নিখুঁত উপাদান। অস্ট্রেলিয়ান মুখোশধারী মৌমাছি (হ্যালুস জিন) আশ্রয় তৈরির উপাদান জৈব প্লাস্টিক তৈরি একটি দুর্দান্ত উৎস হতে পারে। অন্যান্য মৌমাছিদের মতো তারা মৌচাকে বাস করে না কিন্তু তাদের বাসা তৈরির উপাদান জল রোধক, তাপ প্রতিরোধী, রাসায়নিক প্রতিরোধী। । জৈব প্লাস্টিক উৎপাদনের আরেকটি নবায়নযোগ্য উৎস হল আলুর খোসা ব্যবহৃত হওয়ার দুই মাসের ভিতরে এই প্লাস্টিক টি পৌঁছে যাবে। এছাড়াও আখের ছোবড়া ব্যবহার করে জৈব প্লাস্টিক তৈরি করা যায় এটি অত্যন্ত পরিবেশবান্ধব এবং সাধারণ প্লাস্টিকের তুলনায় উন্নত মানের।টেকসই প্লাস্টিক উত্পাদনশীল সংস্থাগুলি টেকসই প্রত্যাশিত গ্রাহকদের প্রত্যাশা পূরণে সহায়তা করে এবং প্রতিযোগিতামূলক থাকতে সহায়তা করে।  এগুলি প্রায়শই বিভিন্ন বায়োমাস উৎস থেকে উদ্ভূত হয়, সর্বাধিক ব্যবহৃত হয় স্টার্চ নামক একটি প্রাকৃতিক পলিমার যা বিভিন্ন উপকরণে সংহত হতে পারে।  স্টার্চ-ভিত্তিক প্লাস্টিকগুলি বিভিন্ন উপায়ে ব্যবহার করা

    যেতে পারেযেহেতু এগুলো অনন্য সংমিশ্রিত উপকরণ তৈরি করতে বিভিন্ন পেট্রোলিয়াম-ভিত্তিক পলিমার বা বায়োপলিমারগুলির সাথে সংযুক্ত হতে পারে।  এই যৌগিক পদার্থগুলি তখন মান সম্মত প্রক্রিয়াজাতকরণ যন্ত্রপাতি ব্যবহার করে ছাঁচনির্মাণ করা যায়। সাধারণভাবে, স্টার্চ-ভিত্তিক প্লাস্টিকগুলি জৈবপ্লাস্টিকের তুলনায় বেশি দামের প্রতিযোগিতামূলক।  কারণ এইসব প্লাস্টিকের  কিছু আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে  যেমন  তাপ সহনশীলতা  এবং যান্ত্রিক শক্তি  যা অন্য জৈব প্লাস্টিকের নেই. বর্তমানে ব্রাজিলে আখ ব্যবহার করে প্লাস্টিক তৈরি করা হয়। পিএইচএ (পলি হাইড্রক্সি অ্যালকানোটস) এবং পিএলএ (পলিল্যাকটিক অ্যাসিড) উভয়ই শর্করা থেকে তৈরিকৃত যা উৎপন্ন হয় স্টার্চি কৃষি উৎস বা বায়োমাস থেকে।  বর্তমানে, ভুট্টা স্টার্চ বায়োপলিমার উৎপাদন করতে ব্যবহার করা যেতে হয়। ২০০৯ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রায় ১৯০ বিলিয়ন বুশেল ভুট্টা চাষ করা হয়েছিল। পিএলএ স্টার্চি বায়োমাস এবং অন্যান্য প্রাকৃতিক বর্জ্য দিয়েও তৈরি করা হয়। টেকসই প্লাস্টিক উৎপাদনে বিভিন্ন কৃষিজাত পণ্য ব্যবহার করা যায় যেমন নাইলন ১০, নাইলন ৬, পিইপি, পিইটি এবং অ্যাক্রিলিকস। বর্তমানে কোকাকোলা একটি বায়ো বেসড পিইটি( পলিইথিলিন টেরিপ্যাথেলেট) বোতল চালু করেছে যা ৩০% শতাংশ উদ্ভিদজাত পণ্য এবং ৭০% ভাগ পেট্রোলিয়াম এর সংমিশ্রণ। সাধারণত ৩০% মনো-ইথিলিন গ্লাইকোল (এমইজি) এবং ৭০% টেরেফথালিক অ্যাসিড থেকে পিইটি বোতল তৈরি হয় অ্যাসিড। ৩০% জৈব-পিইটি বোতলের উৎপাদন ক্ষমতা ৪৫২,০০০টন। জৈবপ্লাস্টিকে  উত্পাদনের জন্য সেলুলোজিক পদার্থগুলি একটি কার্যক্ষম কার্বন উত্স।এইসব নবায়নযোগ্য উৎসগুলো থেকে খুব সহজেই কম খরচে পরিবেশবান্ধব প্লাস্টিক তৈরী করা যায়। পুনর্ব্যবহারযোগ্য  কাঁচামাল থেকে তৈরি  টেকসই প্লাস্টিক দূষণ রোধ করবে  এবং উচ্চ মানের পণ্য তৈরি করবে। এই সকল নবায়নযোগ্য কাঁচামাল প্লাস্টিকের  নান্দনিকতা বৃদ্ধি করবে  এবং বেশি প্রাকৃতিক হবে। পরিবেশ রক্ষার্থে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখা ছাড়াও দেশের অর্থনীতিতেও অবদান রাখতে পারে।  এই উপকরণগুলো প্লাস্টিকের স্থায়িত্ব বাড়ানো কর্মক্ষমতা বৃদ্ধি সাহায্য করতে পারে এবং উৎপাদন খরচ কমাতে পারে।  প্লাস্টিকের পরিবেশগত ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে সবাই অবগত। এই সমস্যার সমাধান হতে পারে টেকসই প্লাস্টিক। টেকসই প্লাস্টিকের উৎপাদন সহজ এবং ব্যয়বহুল নয় বিভিন্ন নবায়নযোগ্য উৎস যেমন ভুট্টা, আলুর খোসা, আখের ছোবড়া চিংড়ি,চাল এসব থেকেই প্লাস্টিক উৎপন্ন করা যায় যা অত্যন্ত সহজলভ্য। সুতরাং প্রচলিত প্লাস্টিকের ব্যবহার থেকে বেরিয়ে এসে টেকসই প্লাস্টিকের ব্যবহারকে অগ্রাধিকার দেওয়া এখন সবার কর্তব্য।

     

    উম্মুল ফাতিহা বিনতে শফিক

    শিক্ষার্থী : এনভায়রনমেন্টাল সাইন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ

    জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়

    ত্রিশাল, ময়মনসিংহ

    ইমেইল:Islamfatiha101@gmail.com


     

    Space For Advertisement

    (Spot # 14)

    Advertising Rate Chart

    আপনার মন্তব্য লিখুন...
    Delicious Save this on Delicious

    nbs24new3 © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
    নিউজ ব্রডকাস্টিং সার্ভিস - এনবিএস
    ২০১৫ - ২০২০

    সিইও : আব্দুল্লাহ আল মাসুম
    সম্পাদক ও প্রকাশক : সুলতানা রাবিয়া
    চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান : মোঃ রাকিবুর রহমান
    -------------------------------------------
    শাল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
    ফোন : +৮৮ ০২ , +৮৮ ০১৭১৮ ৫৮০ ৬৮৯
    Email : news@nbs24.org, thenews.nbs@gmail.com

    ইউএসএ অফিস: ৪১-১১, ২৮তম এভিনিউ, স্যুট # ১৫ (৪র্থ তলা), এস্টোরিয়া, নিউইর্য়ক-১১১০৩, 
    ইউনাইটেড স্টেইটস অব আমেরিকা। ফোন : ৯১৭-৩৯৬-৫৭০৫।

    আসাক আলী, প্রধান সম্পাদক, ভারত।
    ভারত অফিস : সেন্ট্রাল রোড, টাউন প্রতাপগড়, আগরতলা, ত্রিপুরা, ভারত।

    Home l About NBS l Contact the NBS l DMCA l Terms of use l Advertising Rate l Sitemap l Live TV l All Radio

    দেশি-বিদেশি দৈনিক পত্রিকা, সংবাদ সংস্থা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে সংগৃহিত এবং অনুবাদকৃত সংবাদসমূহ পাঠকদের জন্য সাব-এডিটরগণ সম্পাদনা করে
    সূত্রে ওই প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে প্রকাশ করে থাকেন। এ জাতীয় সংবাদগুলোর জন্য এনবিএস কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করবেন না।
    আমাদের নিজস্ব লেখা বা ছবি 'সূত্র এনবিএস' উল্লেখ করে প্রকাশ করতে পারবেন। - Privacy Policy l Terms of Use