ঢাকা | রবিবার | ১৩ জুন, ২০২১ | ৩০ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ | ২ জিলকদ, ১৪৪২ | English Version | Our App BN | বাংলা কনভার্টার
  • Main Page প্রচ্ছদ
  • করোনাভাইরাস
  • বিদেশ
  • বাংলাদেশ
  • স্বদেশ
  • ভারত
  • অর্থনীতি
  • বিজ্ঞান
  • খেলা
  • বিনোদন
  • ভিডিও ♦
  • ♦ আরও ♦
  • ♦ গুরুত্বপূর্ণ লিংক ♦


  • ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

    ত্রিশালে গার্মেন্টেসের প্রায় ১০ লাখ টাকা চুরির রহস্য উদঘাটন
    এনবিএস | Tuesday, May 25th, 2021 | প্রকাশের সময়: 4:10 am

    ত্রিশালে গার্মেন্টেসের প্রায় ১০ লাখ টাকা চুরির রহস্য উদঘাটনত্রিশালে গার্মেন্টেসের প্রায় ১০ লাখ টাকা চুরির রহস্য উদঘাটন

    অনলাইন ডেস্ক – ময়মনসিংহ জেলার ত্রিশাল থানাধীন বাগান এলাকার টেক্সটাইল সিটি (কনজ্যুমার গার্মেন্টস লিঃ) এর ৫নং বিল্ডিংয়ের ২য় তলায় কান্ট্রি ডিরেক্টরের অফিস কক্ষ হতে প্রায় ১০ লাখ টাকা চুরির রহস্য উদঘাটন করল পিবিআই, ময়মনসিংহ।

    মামলার ঘটনার সাথে প্রত্যক্ষভাবে জড়িত সন্ধিগ্ধ আসামী ১। মোফাজ্জল হোসেন @ জুয়েল মিয়া (৩৭), পিতা-মৃত মোসলেম উদ্দিন, গ্রাম-তললী নামাপাড়া, ইউপি-নিগুয়ারী, থানা-পাগলা, জেলা-ময়মনসিংহকে ২৩ মে ২০২১ তারিখ ভোর ০৫.০০ ঘটিকায় পাগলা থানাধীন তললী এলাকা হতে এবং আসামী ২। মোঃ হানিফ (২৯), পিতা-মোঃ ইব্রাহিম খলিল, গ্রাম-বাগান, থানা-ত্রিশাল, জেলা-ময়মনসিংহ; ৩। মোঃ সেলিম হোসেন (৩৩), পিতা-হোসেন আলী মন্ডল, গ্রাম-সিংদহ, থানা-মাদারগঞ্জ, জেলা-জামালপুর। বর্তমান টেক্সটাইল সিটি’র পাশে তোফাজ্জল হোসেনের বাসার ভাড়াটিয়া, গ্রাম-বাগান, থানা-ত্রিশাল, জেলা-ময়মনসিংহ’দ্বয়কে ২৩ মে ২০২১ তারিখ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ত্রিশাল থানাধীন বাগান এলাকা হতে গ্রেফতার করা হয়েছে।

    গত ০১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখ দিবাগত রাতে টেক্সটাইল সিটি (কনজ্যুমার গার্মেন্টস লিঃ) হতে অজ্ঞাতনামা চোর কর্তৃক ৯,৬০,৪০০/- টাকা চুরি হওয়ার প্রেক্ষিতে উক্ত গার্মেন্টেসের সিকিউরিটি ইনচার্জ বাদী হয়ে ত্রিশাল থানায় অজ্ঞাতনামা চোরদের বিরুদ্ধে মামলা নং-০৬, তাং-০২/১২/২০১৯ খ্রিঃ, ধারা-৪৫৭/৩৮০ পেনাল কোড দায়ের করেন।

    মামলাটি ত্রিশাল থানা পুলিশ ০৭ মাস তদন্ত করে। থানা পুলিশের তদন্তাধীন অবস্থায় পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের মাধ্যমে মামলার তদন্তভার পিবিআই ময়মনসিংহ জেলার উপর অর্পণ করা হয়।

    পিবিআইয়ের ডিআইজি বনজ কুমার মজুমদারের সঠিক তত্ত্বাবধান ও দিক নির্দেশনায় পিবিআই ময়মনসিংহ ইউনিট ইনচার্জ পুলিশ সুপার গৌতম কুমার বিশ্বাসের সার্বিক সহযোগিতায় তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই (নিঃ) পংকজ কুমার আচার্য মামলাটি তদন্ত করেন।

    আসামীরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, এটি প্রায় দেড় বছর আগের ঘটনা। সন্ধিগ্ধ আসামী জুয়েল টেক্সটাইল সিটি (কনজ্যুমার গার্মেন্টস লিঃ) গার্মেন্টেসে সহকরী সিকিউরিটি ইনচার্জ হিসেবে কর্মরত ছিল। পরে তাকে সেখান থেকে কনজ্যুমার নিটিং গার্মেন্টেস, ভালুকায় বদলী করা হলে তার মনে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। কারণ সে ও তার স্ত্রী একই সাথে টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেস, ত্রিশালে চাকরি করত এবং টেক্সটাইলের কাছেই বাগান এলাকায় ভাড়া থাকত।  ক্ষোভের বশবর্তী হয়ে সে স্থানীয় সেলিম, হানিফ, আজিজ এর সাথে মিলিত হয়ে টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেসে চুরির পরিকল্পনা করে। সন্ধিগ্ধ আসামী সেলিম টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেসে সিকিউরিটি গার্ড হিসেবে চাকুরি করত। সন্ধিগ্ধ আসামী হানিফ ও আজিজ উক্ত টেক্সটাইলের কাছে বাগান এলাকায় বসবাস করত। হানিফ বালুর ট্রাকের হেলপার আর আজিজ ডিশের লাইনম্যান হিসেবে কাজ করত। পূর্ব পরিকল্পনানুযায়ী গত ০১ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে দিবাগত রাত আনুমানিক সাড়ে ৩টার দিকে সন্ধিগ্ধ আসামী হানিফ ও জুয়েল মিয়া কালো বোরকা পড়ে টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেস এর দক্ষিণ পাশের প্রাচীর টপকে ভিতরে ঢুকে। সন্ধিগ্ধ আসামী হানিফের কাছে ২৫ ইঞ্চি লম্বা শাবল ছিল।

    এদিকে সিকিউরিটি সেলিম ওইদিন ঘটনার পূর্বেই ২য় তলায় কান্ট্রি ডিরেক্টরের অফিস কক্ষে ঢোকার ফায়ার এক্সিট দরজার চাবি এনে জুয়েলকে দেয়। টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেস এর দক্ষিণ পাশে প্রাচীরের বাহিরে আসামী সেলিম ও আজিজ পাহারায় থাকে। সন্ধিগ্ধ আসামী হানিফ ও জুয়েল কৌশলে টেক্সটাইল সিটি (কনজ্যুমার গার্মেন্টস লিঃ) এর ৫নং বিল্ডিংয়ের ২য় তলায় কান্ট্রি ডিরেক্টরের অফিস কক্ষের কাছে পৌছে পূর্বেই সংগৃহিত চাবি দিয়ে ফায়ার এক্সিট দরজার তালা খুলে ভিতরে ঢুকে এবং হানিফের কাছে থাকা শাবল দিয়ে লকার ভেঙ্গে ভিতরে থাকা বেতন ভাতাদির টাকার বাক্সটি নিয়ে চলে আসে। পরবর্তীতে তারা চারজন বাক্সে থাকা প্রায় দশ লক্ষ টাকা নিজেদের মধ্যে ভাগ করে নেয়।

    এ বিষয়ে ময়মনসিংহ জেলার পিবিআইয়ের এসপি গৌতম কুমার বিশ্বাস বলেন, এটি একটি চাঞ্চল্যকর গার্মেন্টেসে চুরির ঘটনা। পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে মামলাটির তদন্তভার পিবিআই ময়মনসিংহ জেলাকে প্রদান করা হলে পিবিআই কর্তৃক অত্র মামলার প্রকৃত আসামীদের সনাক্তের লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়। 

    কার্যক্রমের অংশ হিসাবে জব্দকৃত সিসিটিভি ফুটেজ বারংবার পরীক্ষা করা হয়। সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করে বোরকা পড়া একজন পুরুষের মেয়েলী ভঙ্গিতে হাটার দৃশ্য পরিলক্ষিত হয়। উক্ত বিষয়ে টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টস এ কর্মরত কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদ ও অনুসন্ধানের এক পর্যায়ে সন্ধিগ্ধ আসামী জুয়েলকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে টেক্সটাইল সিটি গার্মেন্টেসে চুরির কথা স্বীকার করে এবং পরবর্তীতে তার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে চুরির ঘটনার সাথে জড়িত সন্ধিগ্ধ আসামী হানিফ ও সেলিমকে গ্রেফতার করা হয়। 

    গ্রেফতারকৃত ৩ আসামীকে ২৪ মে ২০২১ তারিখে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হলে তারা প্রত্যেকেই নিজেকে জড়িয়ে এবং ঘটনার সাথে জড়িত অপর আসামীদের নাম উল্লেখ করে বিজ্ঞ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে।

    এমএ/এনবিএস


    আপনার মন্তব্য লিখুন...

    nbs24new3 © সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত
    নিউজ ব্রডকাস্টিং সার্ভিস - এনবিএস
    ২০১৫ - ২০২০

    সিইও : আব্দুল্লাহ আল মাসুম
    সম্পাদক ও প্রকাশক : সুলতানা রাবিয়া
    চট্টগ্রাম ব্যুরো প্রধান : মোঃ রাকিবুর রহমান
    -------------------------------------------
    বংশাল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।
    ফোন : +৮৮ ০১৭১৮ ৫৮০ ৬৮৯
    Email : [email protected], [email protected]

    ইউএসএ অফিস: ৪১-১১, ২৮তম এভিনিউ, স্যুট # ১৫ (৪র্থ তলা), এস্টোরিয়া, নিউইর্য়ক-১১১০৩, 
    ইউনাইটেড স্টেইটস অব আমেরিকা। ফোন : ৯১৭-৩৯৬-৫৭০৫।

    প্রসেনজিৎ দাস, প্রধান সম্পাদক, ভারত।
    যোগাযোগ: সেন্ট্রাল রোড, টাউন প্রতাপগড়, আগরতলা, ত্রিপুরা, ভারত। ফোন +৯১৯৪০২১০৯১৪০।

    Home l About NBS l Contact the NBS l DMCA l Terms of use l Advertising Rate l Sitemap l Live TV l All Radio

    দেশি-বিদেশি দৈনিক পত্রিকা, সংবাদ সংস্থা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে সংগৃহিত এবং অনুবাদকৃত সংবাদসমূহ পাঠকদের জন্য সাব-এডিটরগণ সম্পাদনা করে
    সূত্রে ওই প্রতিষ্ঠানের নাম দিয়ে প্রকাশ করে থাকেন। এ জাতীয় সংবাদগুলোর জন্য এনবিএস কর্তৃপক্ষ কোনো প্রকার দায়-দায়িত্ব গ্রহণ করবেন না।
    আমাদের নিজস্ব লেখা বা ছবি 'সূত্র এনবিএস' উল্লেখ করে প্রকাশ করতে পারবেন। - Privacy Policy l Terms of Use