ঢাকা, শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
পুলওয়ামা হামলায় জড়িত মাসুদ আজহার ঘনিষ্ঠ শীর্ষ জঙ্গি সেখানেই গুলিতে খতম
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

২০১৯ এ জম্মু  ও কাশ্মীরের পুলওয়ামা সন্ত্রাসবাদী হামলায় যুক্ত শীর্ষ জঙ্গিকে পুলওয়ামাতেই গুলি করে মারল নিরাপত্তাবাহিনী। এটা বড় সাফল্য তাদের কেননা নিহত পাকিস্তানি জঙ্গি আবু সইফুল্লাহ, ওরফে আদনান নিষিদ্ধ সন্ত্রাসবাদী সংগঠন জয়েশ-ই-মহম্মদের সঙ্গে যুক্ত ছিল, তার চেয়েও বড় কথা, সে পাকিস্তানে আশ্রয় নেওয়া জয়েশের শীর্ষ নেতা রউফ আজহার, মৌলানা মাসুদ আজহার, আম্মারের খুব ঘনিষ্ঠ ছিল বলে জানিয়েছেন জনৈক শীর্ষ প্রশাসনিক অফিসার।

তিনি বলেছেন, ২০১৯ এর ১৪ ফেব্রুয়ারির পুলওয়ামা গাড়ি বোমা বিস্ফোরণ সহ একগুচ্ছ সন্ত্রাসবাদী নাশকতায় জড়িত ছিল সে। সইফুল্লাহই শুধু নয়, ইসমাইল, লম্বু, আরেক জঙ্গিও পুলওয়ামার ট্রালের হাঙ্গলমার্গে নিহত হয়েছে। সইফুল্লাহ ২০১৭ থেকে কাশ্মীর উপত্যকায় সক্রিয় ছিল।

জানা গিয়েছে, সে তালিবানের সঙ্গে প্রশিক্ষণ নিয়েছিল, গাড়িতে বহন করা আইইডির ব্যবহারে এক্সপার্ট  ছিল।  আফগানিস্তানে এধরনের বিস্ফোরক আকছার ব্যবহৃত হয়।  পুলওয়ামা হামলাতেও কাজে লাগানো হয়েছিল।

নিরাপত্তা বাহিনীর এক ডসিয়ারে বলা হয়েছে, জয়েশের মূল দপ্তর যেখানে, পাকিস্তানের সেই বাহাওয়ালপুরের বাসিন্দা সইফুল্লাহ জয়েশকে নতুন করে চাঙ্গা  করার চেষ্টা করছিল, বিশেষত পুলওয়ামার অবন্তীপোরা কাকপোরা ও পাম্পোর এলাকাকে সন্ত্রাসবাদী বাহিনীতে নতুন সদস্য রিক্রুট করা ও তাদের হামলা চালাতে অন্যত্র পাঠানোয় ব্যবহার করছিল।  

গত বছর মার্চে চাদুরা বদগামের জিনপোরায় এলাকা ঘিরে তল্লাসি, এনকাউন্টারের মধ্যে সুযোগ বুঝে সে চম্পট দেয়। এক জওয়ান তাতে জখম হয়েছিলেন। ২০১৮ থেকে ২০২০ র মধ্যে একাধিক থানায় ইউএপিএ, ভারতীয় দণ্ডবিধির নানা  ধারায় তার নামে মামলা হয়। আজ সকালে নিরাপত্তা বাহিনী এলাকা কর্ডন করে ঘিরে ফেলে যৌথ অভিযানে নামে। তার মধ্যেই দুপক্ষের মধ্যে প্রবল গুলিবিনিময় হয়। নিহত  সন্ত্রাসবাদীদের কাছ থেকে একটি এম-৪ রাইফেল, একে ৪৭ রাইফেল, একটি গ্লোক পিস্তল উদ্ধার হয়েছে।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে কাশ্মীরে অন্তত ৮৭ জন সন্ত্রাসবাদী নিরাপত্তা বাহিনীর  হাতে প্রাণ হারিয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজন শীর্ষ কমান্ডারও আছে। খবর দ্য ওয়ালের – এনবিএস /২০২১/একে
 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *