ঢাকা, সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৮ পূর্বাহ্ন
অঞ্জনা’ খ্যাত সংগীতশিল্পী মনির খানের ৪৯তম জন্মদিন
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

‘অঞ্জনা’ খ্যাত সংগীতশিল্পী মনির খানের ৪৯তম জন্মদিন

অনলাইন ডেস্ক- ১৯৭২ সালের ১ আগস্ট ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার মদনপুর গ্রামের সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন তিনি। পরিবারে এক বোন ও চার ভাইয়ের মধ্যে মনির খান দ্বিতীয় এবং ভাইদের মধ্যে বড়। বাবা মো. মাহবুব আলী খান একজন স্কুল শিক্ষক এবং মা মোছা. মনোয়ারা খাতুন একজন গৃহিণী। 

শিক্ষাজীবন শুরু হয় গ্রামের প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। এরপর হাকিমপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও পরে যশোরের চৌগাছা উপজেলার নারায়ণপুর বহরাম উদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করেন। ১৯৮৭ সালে এসএসসি এবং ১৯৯০ সালে কোটচাঁদপুর ডিগ্রি কলেজে এইচএসসি সম্পন্ন করেন। ১৯৯২ সালে একই কলেজ থেকে ডিগ্রি পাস করেন মনির খান।

বাল্যকাল কেটেছে নিজ গ্রামে। বন্ধুদের সঙ্গে গ্রামের মেঠোপথে ছুটে চলা, খেলাধুলা, পুকুরে সাঁতারকাটা ও মাছ ধরাসহ আনন্দঘন পরিবেশে বেড়ে ওঠা তার। বাল্যকাল থেকেই গানের প্রতি ভীষণ আগ্রহ ছিল মনির খানের। স্থানীয় গুরুজনদের কাছ থেকে গান শিখলেও মূলত সংগীতের হাতেখড়ি হয় রেজা খসরুর কাছ থেকে। এরপর স্বপন চক্রবর্তী, ইউনুস আলী মোল্লা, খন্দকার এনায়েত হোসেনসহ অন্যান্য গুরুজনের কাছ থেকে গানের তালিম নেন তিনি।

১৯৯৬ সালে ‘তোমার কোন দোষ নেই’ শিরোনামের একক অ্যালবাম নিয়ে সংগীতাঙ্গনে নিজের অবস্থান তৈরি করেন মনির খান। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। দীর্ঘ সময় নিয়ে সংগীতের পেছনে পরিশ্রম ও জাদুকর কণ্ঠের মাধ্যমে বাঙালি জাতির হৃদয়ে ঠাঁই করে নেন মনির খান। এরপর শ্রোতাদের ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়ে ধারাবাহিকভাবে গান করেছেন। শ্রোতাদের হৃদয়ের আবেগ-অনুভূতি আর হৃদয়ের কথা এ শিল্পীর গানের কথায় ফুটে উঠে। যে কারণে দীর্ঘ ২৫ বছরেও শ্রোতা হৃদয়ে অবস্থান তার। সেই সঙ্গে ‘অঞ্জনা’ শিরোনামে গানের জন্যও দেশ-বিদেশে বাঙালিদের কাছে জনপ্রিয়তা রয়েছে তার।

মনির খানের এ পর্যন্ত ৪৩টি একক অ্যালবাম এবং তিনশতাধিক দ্বৈত ও মিশ্র অ্যালবাম প্রকাশ হয়েছে। পাশাপাশি চারশটিরও বেশি চলচ্চিত্রে কণ্ঠ দিয়েছেন। রয়েছে কয়েকশতাধিক একক মিউজিক ভিডিও। এছাড়া ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত ১০০ গানের একটি প্রজেক্টের ঘোষণা দিয়েছিলেন। ঘোষণা অনুযায়ী প্রজেক্টের কাজ অনেকটাই শেষ দিকে।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *