ঢাকা, শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৭ পূর্বাহ্ন
মাত্র ৪৯৯ টাকায় Ola Electric scooter-এর আগাম বুকিং করেছেন? প্রতিবেদনটি পড়ুন
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

মাত্র ৪৯৯ টাকায় Ola Electric scooter-এর আগাম বুকিং করেছেন? প্রতিবেদনটি পড়ুন

প্রকাশ্যে আসার পর থেকে ঝড় তোলে Ola Electric scooter! মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে লক্ষাধিক বুকিং হয়ে যায় এই বাইকে। মাত্র ২৪ ঘন্টাতে এমন সাড়া পাওয়া যাবে তা সংস্থাও বোঝেনি। কিন্তু বুকিং তো করা হয়েছে কিন্তু কবে মিলবে ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার। আর তা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে শুরু হয়েছে জোর চর্চা।

এমনকি স্কুটারের ফিচার কি কি থাকবে সেই বিষয়েও বাইকপ্রেমীদের মধ্যে চলছে আলোচনা। আর এই পরিস্থিতিতে সংস্থার তরফে বড়সড় ঘোষণা করা হল। যাতে কিছুটা হলেও স্বস্তিতে যারা এই মুহূর্তে এই স্কুটার বুক করেছেন।

কবে হাতে এই স্কুটার পাওয়া যাবে তা নিয়ে একটা আলোচনা জল্পনা চলছিল। এই অবস্থায় বড়সড় স্বস্তির খবর শোনালেন সংস্থার কর্তা। ভাবেস আগরওয়াল সংস্থার কর্তা জানিয়েছেন, আগামী ১৫ অগস্ট Ola Electric scooter ভারতের বাজারে আত্মপ্রকাশ করতে চলেছে। তবে ১৫ অগস্টের এই স্কুটার ভারতের বাজারে আত্মপ্রকাশ করলেও এখনও পর্যন্ত এই স্কুটারের দাম কত পড়বে সে বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তবে খুব শীঘ্রই এর দাম ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন সংস্থার কর্তা।

সোশ্যাল মিডিয়াতে Ola Electric scooter কে নিয়ে আলোচনা-চর্চা এই মুহূর্তে তুঙ্গে। ইলেকট্রিক এই স্কুটারে লুক অসাধারণ করা হলেও এখনও কি কি specification দেওয়া রয়েছে এই স্কুটারে সে বিষয়ে অফিসিয়ালি কিছু জানানো হয়নি। যা বলা হচ্ছে তা সবটাই অনুমানের ভিত্তিতে। তবে স্কুটারে সমস্ত কিছু ডিজিটালি ব্যবস্থা থাকবে তা কার্যত পরিষ্কার। সংস্থার তরফে ভাবেস আগরওয়াল তাঁর এক টুইটে জানিয়েছেন, খুব শীঘ্রই স্কুটারে সমস্ত specification এবং আরও বিস্তারিত তথ্য সামনে নিয়ে আসা হবে। সংস্থার দাবি, এই স্কুটারে যে সমস্ত specification দেওয়া হয়েছে তা যে কোনও ইলেকট্রিক ভেইক্যালকে প্রতিযোগিতার বাজারে পিছনে ফেলে দেবে।

সংস্থা ১৫ জুলাই এই স্কুটার আগাম বুকিংয়ের জন্যে তাঁদের ওয়েবসাইটটি খুলে দেয়। আর এরপরেই কার্যত সোশ্যাল মিডিয়াতে ঝড় ওঠে। মাত্র ২৪ ঘন্টার মধ্যে এক লক্ষ আগাম বুকিং হয়ে যায় এই স্কুটারের। একসঙ্গে এত মানুষ ওয়েবসাইটের মাধ্যমে e-scooter বুকিং করতে ঢোকে যে অনেক সময় ওয়েবসাইট ক্র্যাশ করে যায়। ফলে অনেকেই স্কুটারের আগাম বুকিং করতে পারেননি। যদিও এই বিষয়ে ক্ষমা চেয়ে নেন আজ ভাবেস আগরওয়াল। তিনি স্বীকার করে নেন যে, একসঙ্গে যে এত মানুষ তাদ্রর সাইটে ঢুকতে পারে সে বিষয়ে আমরা আন্দাজ করতে পারেনি। তবে খুব শীঘ্রই বিষয়টি তাঁরা ফিক্স করার চেষ্টা করছেন বলে দাবি ভাবেস আগরওয়ালের।

direct-to-consumer (D2C) এই সেলস মডেলে কাজ করবে ওলা। জানা গিয়েছে, যারা আগাম বুকিং করেছেন তাঁদের সবার বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হবে e-scooters. এমনকি বাড়ির দরজাতেই সমস্ত সার্ভিস দেবে ওলা। মাত্র ৪৯৯ টাকার বিনিময়ে Ola Electric scooter-এর আগাম বুকিং করতে পারবেন গ্রাহকরা। ১০টি আকর্ষিণীয় রঙে পাওয়া যাচ্ছে এই স্কুটারগুলি। তবে পছন্দ না হলে আগাম বুকিং বাতিলও করে দিতে পারেন কোনও গ্রাহক। সঙ্গে সঙে তাঁকে ৪৯৯ টাকা ফিরিয়ে দেওয়া হবে।

এখনও আগাম বুকিং চলছে। আর আগাম বুকিং করতে চাইলে প্রথমে রেজিস্টার লিঙ্কে যেতে হবে। ফোন নম্বর দিয়ে log in করতে হবে। এরপর একটি OTP আসবে। এরপর নেট ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ৪৯৯ টাকা দেওয়া যাবে। এছাড়াও ক্রেডিট কার্ড কিংবা ডেবিট কার্ড, UPI কিংবা OlaMoney-এর মতো e-wallets এর সাহায্যেও মাত্র ৪৯৯ টাকা দেওয়া যাবে।

ইতিমধ্যে ১ লক্ষ মানুষ এই স্কুটার বুকিং করেছে। আর তাই যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এই বাইক তৈরির কাজ চলছে এই মুহূর্তে। জানা গিয়েছে, তামিলনাড়ুর Ola Electric প্লান্টে এই স্কুটার তৈরির কাজ চলছে। এই প্রোডাকশন প্ল্যান্টে প্রত্যেক বছর ১ কোটি ইলেকট্রিক স্কুটার তৈরি করা যেতে পারে। অর্থাৎ প্রত্যেকমাসে এই প্লান্টে ২০ লক্ষ করে এই স্কুটার তৈরি করা যেতে পারে। এই কারখানাতে এমন কিছু অত্যাধুনিক মেশিনের ব্যবহার করা হচ্ছে যে তাতে প্রত্যেক ২ সেকেন্ডে একটা ইলেকট্রিক স্কুটার রোল আউট করা যেতে পারে। শুধু তাই নয়, এই কারখানাতে প্রত্যেকদিন ২৫ হাজার ব্যাটারি তৈরি করা যেতে পারে। খবর ওয়ান ইন্ডিয়ার

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *