ঢাকা, রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৪৯ অপরাহ্ন
অন্তর্বাসে স্ট্যাম্প, গন্ধ বিচার, চণ্ডীগড় লেক ক্লাবের আজব নিয়মের নোটিস ভাইরাল নেট দুনিয়ায়
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

অন্তর্বাসে স্ট্যাম্প, গন্ধ বিচার, চণ্ডীগড় লেক ক্লাবের আজব নিয়মের নোটিস ভাইরাল নেট দুনিয়ায়

আজব নিয়ম জারি করা হল চণ্ডীগড়ের লেক ক্লাবে। ক্লাবের সব সদস্যদের জন্য নোটিস জারি করে সদস্যরা যাতে এই কঠোর নিয়ম মেনে চলে সেটাই চায় ক্লাব কর্তৃপক্ষ। নোটিসের নিয়ম অনুযায়ী জিমের সদস্যদের স্ট্যাম্প অন্তর্বাস ও গন্ধ পরীক্ষা সহ আরও অনেক অদ্ভুত অদ্ভুত নিয়মের কথা বলা হয়েছে। এই মজাদার নোটিস ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। লেক ক্লাবের এই নোটিসের ছবি সাংবাদিক অর্শ্বদীপ সাধু টুইটারে শেয়ার করেন এবং তা মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে গেলেও পরে তিনি তা সরিয়ে দেন।

চণ্ডীগড়ের লেক ক্লাব কর্তৃক জারি হওয়া নোটিসে চারটি পয়েন্ট উল্লেখ করা হয়েছে, যেগুলি ক্লাবের সদস্যদের খুব কড়াভাবে পালন করতে হবে। যদি কোনও সদস্য এই নিয়ম মেনে না চলেন তবে তাঁর বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করবে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। জারি হওয়া নোটিস অনুযায়ী ক্লাবের সদস্যরা জিম বা রেস্তোরাঁ ব্যবহার করার আগে এই ‘‌বিচিত্র'‌ নিয়মের পালন করতে হবে। 

টুইটারে ওই সাংবাদিক নোটিসের ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘‌দ্য লেক ক্লাব চণ্ডীগড়ের নোটিস। এর প্রত্যেকটি লাইন পড়ুন। এই নোটিস অনুযায়ী ক্লাবের সদস্যদের তাঁদের অন্তর্বাসে অনুমোদনের স্ট্যাম্প করাতে হবে এবং অনুমোদিত আপত্তিকর শব্দ ব্যবহার করতে হবে। এছাড়া আপনি যদি শর্ট পরার পরিকল্পনা করেন তবে পা শেভ করে আসতে হবে অন্যথা ক্লাবে প্রবেশ করা যাবে না।'‌

নোটিসে এও বল হয়েছে জিম সদস্যরা শর্টস পরলে অবশ্যই যেন নিজেদের পা শেভ করে নেন নতুবা সদস্যদের ওই জায়গা থেকে বের করে দেওয়া হতে পারে। নোটিসে এও বলা আছে যে জিম সদস্যদের যথাযথ জিমের পোশাক পরে আসা বাধ্যতামূলক এবং বিশেষ মনোযোগ দিতে হবে তাঁদের অন্তর্বাসের ওপর। নোটিস অনুযায়ী, ‘‌শুধুমাত্র অনুমোদিত অন্তর্বাস'‌ পরা সদস্যরাই জিমে প্রবেশ করতে পারবেন।

এখানেই শেষ নয়, নোটিসে বলা হয়েছে যে ‘‌অনুমোদিত বাজে শব্দ'‌ ছাড়া অন্য কোনও বাজে শব্দের ব্যবহার স্পোর্টস কমপ্লেক্সে ব্যবহার করা যাবে না। এছাড়াও ক্লাব সদস্যদের পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতার প্রতি নজর দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে নোটিসে। তাঁরা যাতে রোজ মোজা কাচেন তার কথাও বলা হয়েছে নোটিসে এবং দুর্গন্ধযুক্ত নোংরা মোজা পরে আসতে দেখলে ক্লাব সদস্যদের কাছ থেকে জরিমানা নেওয়া হবে।

এই পোস্ট ভাইরাল হতেই নেটিজেনদের প্রতিক্রিয়া আসতে শুরু করে দেয়। অন্তর্বাস ও গন্ধ পরীক্ষা নিয়ে নেট নাগরিকদের একের পর এক মজার মন্তব্যের ঝড় ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। পরে অবশ্য ক্লাব পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে বিহৃতি জারি করার পর অর্শদ্বীপ সাধু তাঁর টুইটটি মুছে দেন। তিনি লেখেন, ‘‌ক্লাব পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে বিবৃতি জারি হওয়ার পর এই টুইট মুছে দিলাম। আমি আশা করছি তারা সঠিক। এটা শুধুমাত্র খুব মজাদার নোটিস ছিল।'‌ লেক ক্লাব জিমের ট্রেনার অনমোল দ্বীপ এ প্রসঙ্গে জানিয়েছেন যে তাঁরা এ ধরনের কোনও নোটিস জারি করেননি। এ ধরনের নোটিস অন্য কেউ তৈরি করেছে কারণ সোমবার ক্লাব বন্ধ ছিল। ক্লাবের পক্ষ থেকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *