ঢাকা, রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:৫৩ অপরাহ্ন
রাজ্যে বন্যায় মৃতদের নিকটাত্মীয়কে ২ লাখ মোদীর, ঘোষণা পিএমও-র
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

রাজ্যে বন্যায় মৃতদের নিকটাত্মীয়কে ২ লাখ মোদীর, ঘোষণা পিএমও-র

রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলা বন্যার কবলে। দুই মেদিনীপুর, হুগলির বিস্তীর্ণ এলাকা জলের তলায়। গত কয়েকদিনের বর্ষণ, প্রাকৃতিক দুর্যোগে ঘরছাড়া বহু মানুষ। বাড়িঘর, রাস্তাঘাট জলের তলায়। পরিস্থিতি নিজে চোখে খতিয়ে দেখতে আজ কয়েকটি বন্যাকবলিত এলাকায় যান মুখ্যমন্ত্রী। সেখানকার অসহায় মানুষজনের পাশে দাঁড়িয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা  নিতে বলেন প্রশাসনিক কর্তাদের। এদিন রাজ্যের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ফোনে কথা বলে খোঁজখবর নেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মুখ্যমন্ত্রী তাঁকে জানান, রাজ্যকে না জানিয়েই ডিভিসি প্রচুর জল ছাড়ার ফলেই কয়েকটি জেলা জলে ভেসেছে। অতীতের মতো এবারও তিনি বলেন, এটা ম্যান মেড বন্যা। পাশাপাশি তাঁকে চিঠি লিখেও ডিভিসি বাঁধের রক্ষণবেক্ষণ, জল ধারণ ক্ষমতা বাড়াতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করেনি বলে অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আর তার মধ্যেই  প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সূত্রে খবর, সাম্প্রতিক বন্যায় রাজ্যে মৃতদের নিকটাত্মীয়দের ২ লাখ টাকা করে এককালীন সহায়তা দেওয়া হবে প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় ত্রাণ তহবিল থেকে। বন্যা  পরিস্থিতিতে যাঁরা জখম হয়েছেন, তাঁরা পাবেন মাথাপিছু ৫০ হাজার টাকা।

এদিকে রাজ্য প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, গত  কয়েকদিনের প্রাকৃতিক দুর্যোগে এপর্যন্ত মারা গিয়েছেন ২৩ জন। দেওয়াল ভেঙে ৬ জন, জলে ডুবে মারা গিয়েছেন ৭ জন। বাজ পড়ে, তড়িদাহত হয়ে মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে ৬ ও ২ জনের।  কালিম্পং এলাকায় ধসে চাপা পড়ে মারা গিয়েছেন ২ জন। ১,১৩,১৮১ জন মানুষকে দূর্গত এলাকা থেকে সরানো হয়েছে।  ৩৬১ টি ত্রাণ শিবিরে আশ্রয় নিয়েছেন ৪৩,১৯২ জন।

কৃষি দফতর ও বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর সূত্রে খবর, আনুমানিক ৪ লক্ষ হেক্টর কৃষিজমি জলের তলায় চলে গিয়েছে। ৬০ শতাংশ জমিতে বীজতলা রোপন করা হয়েছিল। যদি দু-একদিনের মধ্যে জল না নামে, তাহলে এই জমির প্রভূত ক্ষতি হবে বলে আশঙ্কায় রয়েছে কৃষি দফতর। খবর ওয়ালের  / এনবিএস /২০২১ / একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *