ঢাকা, মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:১০ পূর্বাহ্ন
পাবনায় করোনার টিকা না দিয়েই সিরিঞ্জ পুশের ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

পাবনায় করোনার টিকা না দিয়েই সিরিঞ্জ পুশের ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

পাবনায় মেডিকেলের শেষ বর্ষের ছাত্রী সাবাহ মারিয়ম অন্তিকাকে করোনার টিকা না দিয়েই সিরিঞ্জ পুশের ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে দুইজন স্টাফ নার্সকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় ২৫০ শয্যার পাবনা জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ডা. কে এম আবু জাফর বার্তা সংস্থা পিপ‘কে বলেন, “ঘটনা তদন্তে তিন সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে পাবনার আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রফিকুল হাসানকে। অন্য দুই সদস্য হলেন, পাবনা জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. জাহিদুর রহমান ও জেলা পাবলিক হেলথ নার্স। 

সহকারী পরিচালক ডা. কে এম আবু জাফর আরও বলেন, “বুধবার বিকেলে ঘটনাটি জানার পরপরই টিকা কেন্দ্রে নিয়োজিত দুই স্টাফ নার্স মেরিনা গোমেজ ও মিতা খাতুনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।”আগামী তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য তদন্ত কমিটিকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে তদন্ত কমিটির প্রধান আটঘরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রফিকুল হাসান সমকাল‘কে বলেন, “লোক মুখে শুনেছি আমাকে তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে। তবে অফিশিয়ালি এখনো (বৃহস্পতিবার দুপুর ২টা পর্যন্ত) কোনো লিখিত নির্দেশনা পাইনি।”

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী বার্তা সংস্থা পিপ‘কে বলেন, “এরই মধ্যে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি কাজ করছে। তদন্ত প্রতিবেদন পাওয়ার পরপরই পরবর্তি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। দায়িত্ব ও কর্তব্যহীন কর্মকান্ড কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের সবার জন্য প্রাণঘাতী করোনা থেকে বাঁচানোর লক্ষ্যে যে মহতি উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন, সেটা দায়িত্ব ও নিষ্ঠার সঙ্গে বাস্তবায়ন করা জরুরী বলে দাবি করেন সিভিল সার্জন। 

প্রসঙ্গত, ২৫০ শয্যার পাবনা জেনারেল হাসপাতালের টিকাকেন্দ্রে বুধবার করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিতে যান ঢাকা কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের এমবিবিএস শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী সাবাহ মারিয়ম অন্তিকা। টিকা ছাড়াই সিরিঞ্জ পুশ করা হয় তাকে।

স্কয়ার টয়লেট্রিজের মানব সম্পদ বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক আব্দুল হান্নান বুধবার অভিযোগ করেন, তার মেয়ে ঢাকা কমিউনিটি হাসপাতাল মেডিকেল কলেজের শেষ বর্ষের ছাত্রী সাবা মারিয়াম অন্তিকা বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট পাবনা জেনারেল হাসপাতালে মেডিকেল স্টুডেন্ট  কোঠায় করোনার টিকা নিতে যান। দীর্ঘ সময় লাইনে দাড়িয়ে থাকার পর দায়িত্বপ্রাপ্ত এক নার্স তাকে খালি সিরিঞ্জ দিয়ে শরীরে সুই ফুটান। এতে তার শরীরে রক্ত বের হয়। তার মেয়ে মেডিকেল ছাত্রী ভ্যাকসিন না দিয়ে খালি সিরিঞ্জ ঢুকানোর প্রতিবাদ করলে কর্তব্যরত নার্স ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং পরে তাকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। বিষয়টি নিয়ে শহরে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়। 

পাবনার জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেন বলেন, এ ধরণের গাফিলতি কোর মতেই সহ্য করাে হবো। বিষয়ে খুব শিগগির দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *