ঢাকা, শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন
আফগান বাহিনীকে ভারতের উপহার দেওয়া এমআই-২৪ হেলিকপ্টার তালিবান দখলে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

আফগান বাহিনীকে ভারতের উপহার দেওয়া এমআই-২৪ হেলিকপ্টার তালিবান দখলে

: আফগানিস্তানের একের পর এক প্রদেশ দখল করে নিচ্ছে তালিবান। যেভাবে তারা এগচ্ছে, তাতে ৯০ দিনের মধ্যে কাবুলের পতন ঘটবে বলে আশঙ্কা করছে মার্কিন প্রশাসন। আফগান সরকারি বাহিনী হিমশিম খাচ্ছে  তাদের মোকাবিলায়। তার মধ্যেই তালিবানের দাবি, ভারতের আফগান সরকারকে গিফ্ট দেওয়া একটি এমআই ২৪ অ্যাটাক হেলিকপ্টার তাদের হাতে এসেছে। আফগানিস্তানের কুন্দুজ প্রদেশ থেকে আসা ছবি, ভিডিওতে হেলিকপ্টারটির পাশে তালিবান যোদ্ধাদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। যদিও সেই হেলিকপ্টারের রোটর ব্লেডগুলি উধাও। সূত্রের খবর, সম্ভবতঃ আফগান বাহিনী আগেই সেই পাখাগুলি খুলে নেয় যাতে তালিবান সেটি হাতে পেলেও ব্য়বহার করতে না পারে।


২০১৯ সালে আফগান বায়ুসেনাকে ওই এমআই ২৪ হেলিকপ্টার ও তিনটি চিতা লাইট ইউটিলিটি হেলিকপ্টার উপহার দিয়েছিল ভারত। ২০১৫ সালে চারটি অ্যাটাক হেলিকপ্টার উপহার দেওয়া হয়েছিল। তার বদলি হিসাবে ২০১৯ এ সেগুলি পাঠায় ভারত।

তালিবানের দাবি, আফগানিস্তানের ৬৫ শতাংশের বেশি ভূখণ্ড এখন তাদের দখলে। প্রতিদিনই কোনও না কোনও প্রদেশের রাজধানী কব্জা করছে তারা। তার মধ্যেই ভারতের দেওয়া এমআই ২৪ হেলিকপ্টার তালিবানের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার খবর এল। আজই খবর এসেছে, দক্ষিণ আফগানিস্তানের একটি প্রদেশের  রাজধানীর পুলিশি সদর দপ্তর দখল করে বসেছে তালিবান। দিনকয়েক আগে তালিবান আরও তিনটি প্রাদেশিক রাজধানী, একটি স্থানীয় সেনা সদর দপ্তর দখল করে। মার্কিন, ন্যাটো বাহিনী সেনা প্রত্যাহারের পর থেকে দেশের দুই-তৃতীয়াংশ কব্জা করে নেয় তারা।

আফগান প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি চলতি মাসের মধ্যেই মার্কিন, ন্যাটো বাহিনী চলে যাওয়ার আগে দেশের বিশেষ বাহিনী, যুদ্ধবাজ নেতাদের মিলিশিয়া, মার্কিন বায়ুসেনার ওপর ভরসা করে পাল্টা হামলার চেষ্টা করছেন।

কাবুল থেকে এখনও বেশ দূরে আছে তালিবান, তবে যে  দ্রুততার সঙ্গে তারা এগচ্ছে, তাতে দেশের বাকি অংশ আর কতদিন আফগান সরকার দখলে রাখতে পারবে, সেই প্রশ্ন বড়় হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যে দেশের নানা প্রদেশ থেকে ঘরবাড়ি ফেলে কাবুলে ঢুকে পড়ছে, থাকছে খোলা মাঠে বা পার্কে, খোলা আকাশের নীচে। ​খবর দ্য ওয়ালের  / এনবিএস/ ২০২১/ এক

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *