ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৩ পূর্বাহ্ন
গজনী, হেরাট, কান্দাহার, পরপর আরও তিন শহর তালিবান দখলে! ক্ষমতা ভাগের প্রস্তাব আফগান সরকারের
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

গজনী, হেরাট, কান্দাহার, পরপর আরও তিন শহর তালিবান দখলে! ক্ষমতা ভাগের প্রস্তাব আফগান সরকারের

আফগানিস্তানের একের পর এক শহর দখল করে চলেছে তালিবান। ৩৪টি প্রাদেশিক রাজধানীর মধ্যে ১২টিই চলে এসেছে তাদের দখলে। এই তালিকায় সর্বশেষ সংযোজন গজনী, হেরাট এবং কান্দাহার। বৃহস্পতিবারই এই তিনটি শহর একসঙ্গে দখল করেছে তারা। পরিত্যক্ত সেনা ঘাঁটির ছবিও প্রকাশ করেছে তালিবান। এই মুহূর্তে আফগান রাজধানী কাবুলের সঙ্গে দেশের বড় অংশের সংযোগ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন।

এই পরিস্থিতিতে, সরকারি সূত্রের খবর, আফগান সরকার ক্ষমতা ভাগাভাগির প্রস্তাব দিয়েছে তালিবানের কাছে। কারণ রাজধানী কাবুল এখনও পর্যন্ত নিরাপদ থাকলেও, যেভাবে তালিবান গতি বাড়াচ্ছে, তাতে তাদের কাবুল পৌঁছে যেতে বেশি সময় লাগবে না। মাত্র ১৫০ কিলোমিটার দূরে আছে তারা কাবুল থেকে। ফলে বেশ চাপের মুখে পড়েছে সরকার।


অন্যদিকে তালিবানের তরফে জানানো হয়েছে, বড় বড় শহর দ্রুত সমর্পণ করছে তাদের কাছে। এতে যেন বোঝা যাচ্ছে আফগানরা তাদের স্বাগতই জানাচ্ছে। যদিও ‘রাজনৈতিক পথেই’ এগোনোর কথা জানিয়েছে তালিবান।


আফগানিস্তানে তালিবানি তাণ্ডব নতুন নয়। তবে এবারের মতো এমন ভয়াবহ মাত্রা তা কখনওই পায়নি। এর আগেও বহু বার আমেরিকার মধ্যস্থতায় আফগান সরকারের সঙ্গে শান্তিচুক্তি বৈঠক করেছে তালিবান। কিন্তু রফাসূত্র কখনওই বেরোয়নি। শান্তি আলোচনার অন্যতম মধ্যস্থতাকারী গুলাম ফারুক মাজরো বৃহস্পতিবার বলেন, ‘‘এ বার সরকারের তরফে যুদ্ধ বিরতির জন্য সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে তালিবান প্রতিনিধিদের।’’

মনে করা হচ্ছে, ভাগাভাগি করে শাসনের ক্ষমতার যে কথা তালিবানকে বলা হয়েছে বলে জানিয়েছে সরকার, সেটাই সেই ‘সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব’।

ইতিমধ্যেই তালিবান জেল থেকে মুক্তি দিচ্ছে শয়ে শয়ে বন্দিকে। জঙ্গি কার্যকলাপে যুক্ত থাকার অভিযোগে যারা জেল খাটছিল, তাদের বেশিরভাগই এখন মুক্ত। এদের মধ্যে অন্তত ৭০০ জন পুরুষ ও ৩০ জন মহিলা। এই বন্দিদের মধ্যে জেহাদিদের সংখ্যাই বেশি। তালিবান বাহিনীতে থাকা যুদ্ধাস্ত্র চালানোয় পারদর্শী অনেক জঙ্গিকেই গ্রেফতার করা হয়েছিল বিভিন্ন সময়। তারাও এখন মুক্ত। এই জেলবন্দিদের নিয়েই তালিবানরা নিজেদের বিশাল দল গড়ার লক্ষ্যে এগোচ্ছে বলেই মনে করা হচ্ছে। জঙ্গিদের দলে ঢুকিয়ে শক্তি বাড়িয়ে নিজেদের সাম্রাজ্য তৈরি করে চলেছে।

সব মিলিয়ে আফগানিস্তানের প্রায় ৭০ শতাংশই এখন তালিবানের দখলে। বাকিটা খুব তাড়াতাড়ি নিজেদের আয়ত্তে নিয়ে ফেলবে, এমনটাই আশঙ্কা করছে মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের সাম্প্রতিক রিপোর্ট বলছে, আর মাস দুয়েকের মধ্যে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পতন নিশ্চিত। সেই লক্ষ্যেই এগোচ্ছে তালিবান।

পেন্টাগনের এক কর্মকর্তা বলেছেন, তালিবান যেভাবে শক্তি সঞ্চয় করছে তাতে আর ৬০ দিনের মধ্যেই কাবুলকে গোটা দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলবে। মাস তিনেকের মধ্যে রাজধানীর আধিপত্য নিয়ে নেবে। আফগান সেনারা যদি তালিবান বাহিনীকে প্রতিহত করতে না পারে, তাহলে কাবুলের পতন রোখা সম্ভব হবে না। খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *