ঢাকা, শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:০৪ পূর্বাহ্ন
শেখ হাসিনার সরকার করোনাকালীন সময়ে জনগণের কল্যাণে দিনরাত কাজ করছে: পরিকল্পনামন্ত্রী
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

শেখ হাসিনার সরকার করোনাকালীন সময়ে জনগণের কল্যাণে দিনরাত কাজ করছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান বলেছেন, এইযে করোনা মহামারীর একটা প্রকৌপ দেশে চলছে আমাদের সরকারের জাতির পিতার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার দিনরাত কাজ করছে। সরকারের আর্থিক সক্ষমতা যা আছে সবকিছু স্বাস্থ্যসেবার ক্ষেত্রে ড্রাইভার্ড করা হচ্ছে। আমাদের সরকার প্রধানের প্রথম কাজ হচ্ছে এই মহামারী করোনাকালীন সময়ে দেশের মানুষের জীবন রক্ষা করা। 

তিনি বলেন, এই কাজটি শেখ হাসিনার পক্ষে একা সম্ভব নয় আমরা সবাই একজাতি বাঙ্গালী হিসেবে দেশের বিত্তবানরাও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষজনের কল্যাণে এগিয়ে আসতে হবে। বাংলদেশ ছাত্রলীগ একটি ঐতিহ্যবাহি সংগঠন। এই সংগঠন দেশের যেকোন দূর্যোগে দেশের মানুষের পাশে দাড়িঁয়ে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে। এই করোনাকালীন সময়ে কোভিডে আক্রান্তদের সেবায় আজ সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীরা যেভাবে জেলা সদর হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবায় ২০টি অক্রিজেন সিলিন্ডার প্রদান করছেন এটা একটি বিশাল কাজ। তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এবং তার পক্ষ থেকে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ ও সরকারের সহযোগিতার কথা জানান। 

তিনি আরো বলেন আমি সুনামগঞ্জের সন্তান আমার বাড়ি এই জেলায়, কাজেই জেলা শহরে আমার আরো বেশী বেশী আসা প্রয়োজন। তিনি কারো বিরুদ্ধে তার কোন অভিযোগ নেই উল্লেখ করে বলেন,আমার এখন যাবার সময় এসে গেছে,আমার কোন নিজস্ব ঘরবাড়িও নেই ,আমার এই দেশের মাটি ও মানুষের সঙ্গে সম্পৃত্ত,আমার কবরও এই জেলার শান্তিগঞ্জে হবে সেই ব্যবস্থাটা করে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি। তবে আমার সন্তানেরা হয়তো কোনদিন এই দেশে আসবে না কেননা যেহেতু তারা প্রবাসে স্থায়ী বাসিন্দা হয়ে গেছেন। 

আমার লাইন শেষ আমার এখানে কোন স্বার্থ নেই দাবী করে তিনি আরো বলেন, সমস্ত সুনামগঞ্জেই আমার বাড়িঘর,ঢাকায় আমি বলে থাকি সবসময় যে সুনামগঞ্জের জেলা শহরে আমার বাড়ি। কিন্তু কিছু মানুষ অহেতুক উন্নয়ন কাজসহ মিথ্যা সমালোচনা করে সমস্যার সৃষ্টি করেন। ১৩ আগষ্ট আামর নির্বাচনী এলাকার কোন কোন গ্রামের লোকজন নৌকা সাজিঁয়ে দৌড়ানোর উদ্দেশ্যে আমার বাড়ির ঘাটে এসেছেন,গ্রামের লোকজন আসতেই পারেন আমার নির্বাচনী এলাকার ভোটার তারা তো আর শোকের মাস সম্পর্কে এত ধারনা নেই আমাকে বলায় আমি তাদের নৌকায় উঠেছি। কিন্তু কিছু লোক ফেইসবুকে কমেন্ট করছেন শোকের মাস আগষ্টে নৌকা দৌড় হচ্ছে,আমি কি কোন তামাশা করেছি, করিনি, আমাকে নিয়ে আলোচনা সমালোচনা করা হয়। 

তিনি ঐ সমস্ত অপপ্রচারকারীদের নিকট প্রশ্ন রাখেন,গ্রামের লোকজন এসেছেন নৌকা দৌড়ানোর উদ্দেশ্যে আমি কি গানবাজনা কিংবা কোন তামাশা করেছি,করিনি। শোকের এই মাসে স্বাধীনতা বিরোধী একটি অপশক্তি ও কিছু বিপদগামি সেনা সদস্যরা ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগষ্ট স্বাধীন বাংলার স্থপতি হাজারো বছরের শ্রেষ্ট বাঙ্গালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান,তার প্রিয়তম সহধর্মিনী শেখ ফজিলাতুন নেছা মুজিবসহ তাদের সন্তান ও স্বজনদের হত্যা করেছিল। তারা ভেবেছিল শেখ মুজিবকে হত্যা করে এদেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে চিরদিনের জন্য বন্ধ করে দিবে। কিন্তু স্বাধীনতার দীর্ঘ একুশ বছর পরে হলেও দেশের আপামর জনগনের রায় নিয়ে বিপুল ভোটে তার সুযোগ্য উত্তরসূরী গনতন্ত্রের মানসকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্রিয় ক্ষমতায় অধিষ্টিত হয়ে তিনযুগের বেশী সময় ধরে রাষ্ট্র পরিচালনা করে জাতির পিতার সকল খুনীদের বিচারের রায় কার্যকর করে জাতিকে কলংঙ্কমুক্ত করেছেন।  শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ আজ বিশ্বে শত প্রতিকূলতা আর ষড়যন্ত্র অতিক্রম করে একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করেছেন। বিশ্ব নেতারা শেখ হাসিনার শাসনামলকে অনুসরণ ও অনুকরণ করছেন বলে মন্ত্রী আব্দুল মান্নান দাবী করেন। 

তিনি সরকারী চাকুরী জীবনে বৃহত্তর ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক থাকাকালীন সময়ে সেই অঞ্চলের উন্নয়নের কথা উল্লেখ করে আরো বলেন, আমরা প্রতিহিংস্রার রাজনীতি করতে চাই না,যে কয়দিন বাচঁবো সকল ভেদাভেদ এর উধের্ব থেকে এই সুনামগঞ্জ জেলার প্রতিটি উপজেলা ইউনিয়ন ও গ্রামে সবার সম্মিলিত প্রয়াসে উন্নয়ন কর্মকান্ড ছড়িয়ে দিতে প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ,জনপ্রতিনিধিসহ সবাইকে সহযোগিতা করার আহবান জানান মন্ত্রী এম এ মান্নান।

তিনি আজ শনিবার সকালে  কোভিড-১৯ এ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সুনামগঞ্জ জেলা শাখা কর্তৃক শহরের নতুন শিল্পকলা একাডেমির হলরুমে বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব স্মরণে সদর হাসপাতালে কোভিডে আক্রান্তদের বিনামূল্য ২০টি অক্রিজেন সিলিন্ডার  হস্তান্তরের উদ্বোধন পরবর্তী সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলনে পরিকল্পনামন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান। সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি দিপংঙ্কর কান্তি দে’র সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক আশিকুর রহমান রিপনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন,জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন,পুলিশ সুপার মো. মিজানুর রহমান,সিভিল সার্জন ডা. মো.শামস উদ্দিন,সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইমরান শাহারীয়ার,সদর সার্কেল মো. জয়নাল আবেদীন,পরিকল্পনামন্ত্রী ব্যক্তিগত রাজনৈতিক সচিব মো. আবুল হাসনাত,সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শহীদুর রহমান,সুনামগঞ্জ জজকোর্টের এপিপি(সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর) ও দক্ষিণ সুনামগঞ্জের পশ্চিম বীরগাও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতিকের মনোনয়ন প্রত্যাশী এ্যাডভোকেট দেবাংশু শেখর দাস,জেলা ছাত্রলীগের সহ সভাপতি লিকন আহমেদ,কাউসার আহমদ,যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হারুনুর রশিদ হারুন ও জগৎজ্যোতি রায় প্রমুখ।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *