ঢাকা, মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:১২ অপরাহ্ন
প্রিমিয়ার লিগে নবাগতের বিরুদ্ধে হার দিয়ে অভিযান শুরু আর্সেনালের, বুন্দেসলিগায় বায়ার্নের ড্র
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

প্রিমিয়ার লিগে নবাগতের বিরুদ্ধে হার দিয়ে অভিযান শুরু আর্সেনালের, বুন্দেসলিগায় বায়ার্নের ড্র

প্রিমিয়ার লিগে হার দিয়ে অভিযান শুরু করল আর্সেনাল। টুর্নামেন্ট ও নিজেদের প্রথম ম্যাচে নবাগত ব্রেন্টফোর্ডের কাছেই ০-২ গোলের ব্যবধানে হারতে হয়েছে গানার্সদের। অন্যদিকে লা লিগার প্রথম ম্যাচ থেকে জয় হাসিল করল ভ্যালেন্সিয়া। গেটাফেকে ১-০ গোলে হারিয়ে দুর্দান্তভাবে অভিযান শুরু করল স্প্যানিশ দল। বুন্দেশলিগার প্রথম ম্যাচেই আটকে গেল বায়ার্ন মিউনিখ।

৭৪ বছরে প্রথমবার প্রিমিয়ার লিগ খেলার সুযোগ পাওয়া ব্রেন্টফোর্ডের বিরুদ্ধে তাদেরই ঘরের মাঠে খেলতে নেমেছিল আর্সেনাল। শুরু থেকেই আক্রমণে ঝাঁপাতে থাকে গানার্সরা। বলের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের কাছে রেখে বারবার প্রতিপক্ষের গোলমুখে পজিটিভ মুভ তৈরি করতে থাকে আর্সেনাল। অন্যদিকে প্রতি আক্রমণে উঠে বেশ কয়েকবার গোলের খুব কাছাকাছি পৌঁছে যায় ব্রেন্টফোর্ড।

ম্যাচের প্রথম গোল আসে প্রথমার্ধের ২২ মিনিটে। আর্সেনালকে ধাক্কা দিয়ে সফলতা আসে ব্রেন্টফোর্ডের সের্গি কানোসের বুুট থেকে। ০-১ গোলে পিছিয়ে থেকেই প্রথমার্ধ শেষ করে আর্সেনাল। দ্বিতীয়ার্ধে গোল শোধ দিতে মরিয়া হয়ে ওঠে গানার্সরা। প্রতিপক্ষের গোলমুখে একের পর এক আক্রমণ তুলে আনার পাশাপাশি শটও বেশি নিতে থাকে পিছিয়ে থাকা দল। যদিও কাজের কাজটি করতে পারেনি আর্তেতার দল। বেশ কয়েকটি সহজ গোলের সুযোগ নষ্ট করে আর্সেনাল। উল্টে প্রতি আক্রমণে উঠে ডিফেন্সের ত্রুটিকে কাজে লাগিয়ে গানার্সদের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় গোলটি করে ব্রেন্টফোর্ড। ৭৩ মিনিটের মাথায় সফলতা পান ক্রিশ্চিয়ান নরগার্ড। ০-২ গোলেই ম্যাচ হারতে হয় আর্সেনালকে। অন্যদিকে প্রথম প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে বড় দলের বিরুদ্ধে জয়ে উচ্ছ্বসিত ব্রেন্টফোর্ডের ফুটবলার থেকে সমর্থকরা।

একই দিনে শুরু হল লা লিগার নতুন মরসুম। প্রথম ম্যাচে গেটাফের মুখোমুখি হয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পাশাপাশি দুই দলের ফুটবলারদের মধ্যে চোরাগোপ্তা ট্যাকেল ও ঘাত-প্রতিঘাতে ম্যাচ প্রথম থেকেই উত্তপ্ত থাকে। ম্যাচের ৩ মিনিটের মাথায় লাল কার্ড দেখে মাঠের বাইরে চলে যান ভ্যালেন্সিয়ার হুগো গুইলামোন। তবু ১০ জনের ওই দলই ঝড়ের গতিতে আক্রমণে উঠতে থাকে। প্রতি আক্রমণে উঠে বেশ কয়েকবার প্রতিপক্ষ শিবিরকে সমস্যায় ফেলে দেয় গেটাফে।

ম্যাচের ১১ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি পেয়ে যায় ভ্যালেন্সিয়া। স্পট কিক থেকে গোল করেন কার্লোস সোলের। এক গোলে পিছিয়ে পড়া গেটাফে ম্যাচে ফেরার মরিয়া প্রচেষ্টা চালায়। তবু দশ জনের ভ্যালেন্সিয়াকে কব্জা করা যায়নি। উল্টে ম্যাচের ৭৬ মিনিটের মাথায় লাল কার্ড দেখে গেটাফের কাজ আরও কঠিন করে দেন এরিক কাবাকো। ১-০ গোলে ম্যাচ জিতে মূল্যবান ৩ পয়েন্ট ঘরে তোলা ভ্যালেন্সিয়া।

ওদিকে ড্র দিয়ে বুন্দেসলিগার অভিযান শুরু করল বায়ার্ন মিউনিখ। মনচেনগ্লাডবাচের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলস জার্মান জায়ান্টরা। ১-১ ফলাফলে অমীমাংসিতভাবে শেষ হয়েছে প্রতিযোগিতা। বায়ার্নের হয়ে গোল করেছেন রবের্ত লেভানদোভস্কি। করোনা ভাইরাসের আবহে সব বিধি মেনেই তিন ম্যাচে মাঠে দর্শক প্রবেশের অনুমতি দিয়েছিল উদ্যোক্তরা।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *