ঢাকা, শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
পুরুষ শরীরেও বড় শত্রু মেদ, বন্ধ্যাও হতে পারেন তাঁরা
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

পুরুষ শরীরেও বড় শত্রু মেদ, বন্ধ্যাও হতে পারেন তাঁরা

অতিরিক্ত ওজন যে ক্ষতিকর, এ কথা কে না জানেন! মেদবহুল মানুষের এমনিতেই রোগভোগের প্রবণতা সাধারণের থেকে বেশি। ডায়াবেটিস, হার্টের রোগের মতো ব্যাধির সঙ্গে হাত ধরাধরি করে চলতে হয় মেদাধিক্যে ভোগা মানুষগুলোকে। ঠিক সময়ে ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে দেখা দেয় নানান শারীরিক জটিলতা। এমনকি এই অতিরিক্ত ওজন কারণ হতে পারে বন্ধ্যত্বের! চিকিৎসকদের মতে, যে সমস্ত পুরুষদের মেদ বেশি, সেই সব পুরুষদের বন্ধ্যত্বের ঝুঁকি স্বাভাবিকের থেকে অনেকটা বেশি।

ফার্টিলিটি ক্ষমতা প্রায় অর্ধেক – একজন সুস্থ স্বাভাবিক পুরুষের বডি মাস ইনডেক্স বা বিএমআই হয় ২০ থেকে ২৫-এর মধ্যে। কিন্তু একজন স্থূলকায় পুরুষের বিএমআই বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ৩০ ছাড়িয়ে যায়। পরীক্ষা করে দেখা গেছে যে সব পুরুষের বিএমআর ৩০-এর উর্ধ্বে, স্বাভাবিকের তুলনায় তাঁদের ফার্টিলিটি ক্ষমতা বা উর্বরতা প্রায় অর্ধেক।

অসুস্থ ও অনুর্বর স্পার্ম – মেদবহুল পুরুষের স্পার্মে টুকরো টুকরো ডিএনএ থাকার সম্ভাবনা খুব বেশি। ফলে এই ধরনের স্পার্ম থেকে যে ভ্রূণ তৈরি হয়, সেগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অস্বাভাবিক। এক্ষেত্রে গর্ভপাতের ঝুঁকিও রয়েছে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশ কয়েক গুণ বেশি।

সুস্থ স্পার্মের সংখ্যা কম – অতিরিক্ত ওজনের পুরুষের বাড়তি মেদ জননাঙ্গের কাছে জমা হয়ে টেস্টিস বা অন্ডকোষের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দিতে পারে, ফলে স্বাস্থ্যকর স্পার্মের সংখ্যা হ্রাস পায়। এমনকি অতিরিক্ত উষ্ণতায় স্পার্মগুলো তাদের গতিশীলতাও বাড়িয়ে ফেলতে পারে।

বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই দেখা যায়, স্থূলকায় পুরুষেরা পিতৃত্বের স্বাদ থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এসব ক্ষেত্রে অনেক সময়ই অভিযোগের আঙুলটা স্ত্রীর দিকেই ওঠে। তাই স্ত্রীর সমস্যগুলোই আগে খুঁটিয়ে দেখা হয়। কিন্তু পুরুষদের সমস্যার কারণেও সন্তানধারণে সমস্যা হতে পারে, সেটার সংখ্যা খুব কমও নয়। মেদবহুল পুরুষদের এ বিষয়ে ওয়াকিবহাল হওয়া প্রয়োজন।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *