ঢাকা, শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪৭ পূর্বাহ্ন
পলিসিস্টিক ওভারি থেকে হতে পারে বন্ধ্যত্বও, সতর্ক হোন আজ থেকেই
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

পলিসিস্টিক ওভারি থেকে হতে পারে বন্ধ্যত্বও, সতর্ক হোন আজ থেকেই

আজকালকার দিনে প্রায় বেশিরভাগ মহিলাদেরই অন্যতম সমস্যা পলিসিস্টিক ওভারি সিন্ড্রোম বা পিসিওএস। ডিম্বাশয়ে একাধিক ছোট ছোট সিস্ট থাকাকেই বলে পিসিওএস বা পলিসিস্টিক ওভারি সিন্ড্রোম। আগে একে পিসিওডি বা পলিসিস্টিক ওভারি ডিজিজ বলা হতো। তবে এখন এ ডিজিজের এমনই বাড়বাড়ন্ত, যে একে আর ডিজিজ বা ‘অসুখ’ বলছেন না ডাক্তাররা, বলছেন সিনড্রোম বা উপসর্গ।

এটি মূলত হরমোনের বিশৃঙ্খলা জনিত সমস্যা। এখন মহিলাদের হরমোনের বিশৃঙ্খলা ঘটিত সমস্যাগুলির মধ্যে ডিম্বাশয়ের এই সমস্যাই সবচেয়ে বেশি হয়। বন্ধ্যত্বের কারণ হিসেবেও এই পিসিওএস অন্যতম৷ তাই একে অবহেলা করা একেবারেই অনুচিত। যত দ্রুত এর চিকিৎসা, ততই দ্রুত এর জটিলতা থেকে মুক্তি।

সমস্যাটা ঠিক কী? ওভ্যুলেশনের অনুপস্থিতিতে এই অবস্থা হয়। নিঃসৃত ডিম্বাণুগুলি ফলিকল নামের তরল ভর্তি থলিগুলির মধ্যে বাড়তে থাকে। এই না ফাটা ফলিকলগুলি ডিম্বাশয়ের চারদিকে সংস্থাপিত হয়ে ডিম্বাশয়কে একটি পলিসিস্টিক আকৃতি দেয়।

কেন হয়? এই রোগ হওয়ার প্রধান কারণ: ১) স্থূলতা ২) ওভ্যুলেশন না হওয়া ৩) প্রচুর পরিমাণে অ্যান্ড্রোজেনিক হরমোনের প্রভাব

দেখা গেছে, ইনসুলিন রেজিস্ট্যান্স, ডায়াবেটিস এবং স্থূলতার সঙ্গে পিসিওএস-এর বেশ গভীর সম্পর্ক রয়েছে।

উপসর্গ কী কী? উপসর্গ ও সমস্যার তীব্রতা সকলের আলাদা আলাদা হতে পারে। তবে কয়েকটি উপসর্গ প্রায় সবক্ষেত্রেই দেখা যায়। যেমন:  * ঋতুচক্র অনিয়মিত হওয়া * ওজন বেড়ে যাওয়া * ত্বক তৈলাক্ত হয়ে যাওয়া * মুখে ব্রণর আধিক্য * শরীরের বিভিন্ন স্থানে পুরুষের মতো লোমের অতিরিক্ত বৃদ্ধি * মাথার চুল পাতলা হয়ে যাওয়া

তবে অনেক সময় উপসর্গ দেখে এই রোগ সম্পর্কে সুনিশ্চিত হওয়া যায় না। তাই রোগ নির্ধারণেও দেরি হয়ে হয়ে যায়। আলট্রাসোনোগ্রাফিতে পিসিওএস ধরা পড়ে। তাই এমন সমস্যা হলে ফেলে না রেখে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে দ্রুত চিকিৎসা শুরু করে ফেলাই ভাল।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *