ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৬ পূর্বাহ্ন
 এয়ার ইন্ডিয়াকে বিমান রেডি রাখতে বলল কেন্দ্র, আফগানদের রক্ষায় তালিবানকে আবেদন ৬৫ দেশের
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

 এয়ার ইন্ডিয়াকে বিমান রেডি রাখতে বলল কেন্দ্র, আফগানদের রক্ষায় তালিবানকে আবেদন ৬৫ দেশের

 তালিবান মুখে বলছে বটে, কাবুলের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করবে।  কিন্তু অনিশ্চয়তার জল গড়িয়ে  কোথায় দাঁড়ায়, এমনটা ভেবে এয়ার ইন্ডিয়াকে জরুরি পরিস্থিতি মাথায় রেখে তৈরি থাকতে বলেছে কেন্দ্র যাতে দরকার হলে বিমান পাঠিয়ে ভারতীয় নাগরিকদের দ্রুত সেখান থেকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়। এয়ার ইন্ডিয়া কাবুল থেকে নয়াদিল্লি জরুরি পরিষেবার জন্য সেট ক্রু তৈরি রেখেছে। পাশাপাশি ভারতীয় বায়ুসেনাও সি-১৭ গ্লোবমাস্টার সামরিক পরিবহণ এয়ারক্র্যাফ্ট  স্ট্যান্ড বাই হিসাবে রেখেছে জরুরি উদ্ধার অভিযানের জন্য। আফগানিস্তানের ঘটনাবলীর ওপর নজর রেখে চলা লোকজন কাবুল থেকে ভারতীয় নাগরিক ও দূতাবাস কর্মীদের তুলে নিয়ে আসা সহ যে কোনও পরিস্থিতির মোকাবিলায় ভারত তৈরি বলে জানাচ্ছেন। সূত্রের খবর, ভারত সরকার কোনও পরিস্থিতিতেই কাবুলের ভারতীয় নাগরিক ও দূতাবাস কর্মীদের জীবন ঝুঁকির মুখে পড়তে দেবে না, তাই যাবতীয় প্ল্যান রেডি করা আছে। সেখানকার দ্রুত বদলাতে থাকা পরিস্থিতির ওপর প্রতি মুহূর্তে নজর রয়েছে সরকারের। কাবুল তালিবানের হাতে চলে যাওয়ায় আমেরিকা, ব্রিটেন সমেত একাদিক দেশ আতঙ্ক, ত্রাসের পরিবেশে কাবুল থেকে দূতাবাস কর্মীদের সরানো শুরু করে দিয়েছে। তবে হাজারে হাজারে লোক বিমানবন্দরে ভিড় করায় কনস্যুলেট কর্মীদের বের করে আনায় সমস্যাও হচ্ছে।

এদিকে আমেরিকা সহ ৬৫টি দেশ তালিবানকে অনুরোধ করেছে, তারা যাতে ইচ্ছুক আফগানদের দেশ ছাড়তে দেয়। মার্কিন বিদেশসচিব অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ট্যুইট করেন, যেসব আফগান ও আন্তর্জাতিক লোকজন দেশ ছাড়তে চান, তাঁদের বেরতে দেওয়া হোক, আমেরিকা আন্তর্জাতিক মহলের সঙ্গে একসুরে দাবি করছে। মার্কিন বিদেশ দপ্তর ৬৫টি দেশের যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করে হুঁশিয়ারি দিয়েছে, যারা আফগানিস্তান জুড়ে ক্ষমতায় আছে, কর্তৃত্ব চালাচ্ছে, তাদের মানব জীবন রক্ষার দায়দায়িত্ব নিতে হবে। কাবুল বিমানবন্দর থেকে কয়েক হাজার মার্কিন ও মিত্রবাহিনীর লোকজনকে সামরিক ও অসামরিক বিমানে চাপিয়ে নিরাপদে বের করে আনা যায়, সেজন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে আমেরিকা।


আফগান নেতারা একটি সমন্বয় স্থাপনকারী কাউন্সিল গঠন করেছেন   যারা তালিবানের সঙ্গে ক্ষমতা হস্তান্তর নিয়ে কথাবার্তা চালাবেন। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, হাই কাউন্সিল ফর ন্যাশনাল রিকনসিলিয়েশনের নেতৃত্বে থাকছেন আবদুল্লা আবদুল্লা, তিনি নিজে ও হিজব-ই-ইসলামি নেতা গুলবুদ্দিন হেকমতিয়ার।


অন্যদিকে তালিবান তাদের সম্পর্কে ভয়, সন্দেহ কাটাতে দাবি করেছে, তারা শরিয়তি বিধানের মধ্যে মহিলা ও সংখ্যালঘুদের অধিকার ও মতপ্রকাশের অধিকারকে সম্মান করে। তবে তারা খোলামেলা, সবাইকে নিয়ে চলবে, এমন ইসলামি সরকার স্থাপন করতে চায় আফগানিস্তানে। খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *