ঢাকা, রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০১ পূর্বাহ্ন
করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন করলো আন্তর্জাতিক প্রবাসী মানবাধিকার ফাউন্ডেশন
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

করোনা প্রতিরোধে মাস্ক বিতরন করলো আন্তর্জাতিক প্রবাসী মানবাধিকার ফাউন্ডেশন

করোনা প্রতিরোধে সারাদেশে মাসব্যাপী আন্তর্জাতিক প্রবাসী মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে গনমাস্ক বিতরণ কর্মসূচী উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব কাশেম মাসুদ।

বুধবার (২৫ আগস্ট) ঢাকা জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সংগঠনের চেয়ারম্যান এইচ এম মনিরুজ্জামানের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন জাসদ উপেদেষ্টা এনামুজ্জামান চৌধুরী, জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্যান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, নাগরিক ভাবনার আহ্বায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, মানবাধিকার নবাব সালেহ আহমেদ, সংগঠনের প্রচার সম্পাদক মো. মিরাজ, অর্থ সম্পাদক মোমেনা খন্দকার, দপ্তর সম্পাদক জেসমিন সুলতানা, সদস্য সকিনা আক্তার প্রমুখ।

প্রধান অতিথি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব কাশেম মাসুদ বলেন, গবেষণায় দেখা গেছে, সমন্বিত উপায়ে মাস্ক ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে তুলতে পারলে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার হার ২৯ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ে। এটা অন্যান্য এলাকার তুলনায় ৬ শতাংশ বেশি। মূলত নিয়মিত নজরদারি ও পর্যবেক্ষণের কারণে মানুষের মধ্যে যে সচেতনতা তৈরি হয়, তা থেকেই মাস্ক ব্যবহারের অভ্যাস গড়ে ওঠে।

তিনি বলেন, করোনা প্রতিরোধে তিনটি ক্ষেত্রে মনোযোগ দেওয়া জরুরি। ওষুধবহির্ভূত উদ্যোগ—যার মধ্যে মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে সমন্বিত উদ্যোগে জোর দিতে হবে। বাকি দুটি বিষয় হলো স্বাস্থ্য খাতে নজরদারি বাড়ানো ও গণটিকাদান। টিকা সবচেয়ে কার্যকর সমাধান। কিন্তু সবাইকে টিকার আওতায় আনা সময়সাপেক্ষ বিষয়। তাই এই সময় মাস্ক পরাসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বিষয়ে জোর দেওয়া দরকার।

উপস্থিত নেতৃবৃন্দ বলেন, সারা বিশ্বের সাথে বাংলাদেশের বর্তমানে করোনা সংক্রমণ কঠিন ব্যাধিতে পরিনত হয়েছে। এই ব্যাধি থেকে বাচতে জনগনকে আরো বেশী সচেতন হতে হবে, মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। দু:খজনক হলেও সত্য যে, মাস্ক পড়ায় এখনো মানুষের অনীহা রয়েই গেছে। তাই আমাদের এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। আমরা চাই সকলেই মাস্ক পড়তে যেন আগ্রহী থাকে। সকলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুক।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *