ঢাকা, রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন
মোডার্নার টিকায় দু’জনের মৃত্যু? প্রথম গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার অভিযোগ এই দেশে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

মোডার্নার টিকায় দু’জনের মৃত্যু? প্রথম গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার অভিযোগ এই দেশে

মোডার্নার ভ্যাকসিনে (Moderna Vaccine) এই প্রথম গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার অভিযোগ উঠল। জাপানে ভ্যাকসিনের ডোজ নেওয়ার পরে দু’জনের মৃত্যুর খবর মিলেছে। জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, টিকার ডোজ নেওয়ার পরেই দু’জনের শরীরে সিভিয়ার সাই অ্যাফেক্টস বা গুরুতর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়, তাতেই মৃত্যু হয়েছে।

জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানাচ্ছে, ৩০ বছরের এক যুবক ভ্যাকসিনের সেকেন্ড ডোজ নেওয়ার পরেই অসুস্থ হয়ে পড়ে। তারপর মৃত্যু হয় তাঁর। আরও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে টিকার ডোজ নেওয়ার পরেই। জাপানে ৮৬৩টি টিকাকরণ কেন্দ্র থেকে মোডার্নার ডোজ দেওয়া হচ্ছিল। সবগুলোই বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দেশে মোডার্নার টিকা এই মুহূর্তে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কী থেকে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হল, মৃতদের শরীরে আগে থেকে কোনও রোগ ছিল কিনা, তা খতিয়ে দেখার পরেই টিকাকরণ কেন্দ্রগুলি খোলা হবে বলে জানা গেছে। টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে মোডার্না বলেছে, ভ্যাকসিনের সুরক্ষা ও এফিকেসি নিয়ে কোনও সন্দেহই নেই। কেন এমন হল তা পরীক্ষা করে দেখা হবে।


ফাইজারের মতো মোডার্নার টিকা আরএনএ ভ্যাকসিন। বার্তাবহ বা মেসেঞ্জার আরএনএ থেকে টিকা বানানো হয়েছে। টিকা ৯৪ শতাংশ কার্যকরী হয়েছে বলেই দাবি করেছে মোডার্না। তৃতীয় পর্বের চূড়ান্ত ট্রায়ালের ফল সামনে এনে সংস্থার তরফে জানানো হয়েছিল, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ৩০ হাজারের বেশি জনকে টিকার ইঞ্জেকশন দেওয়া হয়েছিল। স্বেচ্ছাসেবকদের শরীরে টিকার ডোজ অ্যান্টিবডি তৈরি করেছে। ৫০ বছরের বেশি বয়সীদের শরীরেও টিকার ডোজে পর্যাপ্ত অ্যান্টিবডি তৈরি হচ্ছে। কিছু ক্ষেত্রে এমনও দেখা গেছে, কমবয়সীদের থেকেও কয়েকজন প্রবীণ স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে ভাইরাস প্রতিরোধী অ্যান্টিবডির সংখ্যা অনেক বেশি। যার অর্থ হল, শক্তিশালী রোগ প্রতিরোধ গড়ে উঠেছে বয়স্কদের মধ্যেও। ভ্যাকসিন ট্রায়ালের যেটা অন্যতম বড় ইতিবাচক দিক।

মোডার্নার টিকা ভারতেও নিয়ে আসার চেষ্টা হচ্ছে। মার্কিন ফার্মা জায়ান্টের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেছে টাটার হেলথকেয়ার গ্রুপ। সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে, টাটা গোষ্ঠীর সঙ্গে চুক্তি হলে কম দামে দেশের বাজারে মোডার্নার টিকার বন্টন হতে পারে। মোডার্নার টিকার ট্রায়ালের জন্য ‘কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ’ (সিএসআইআর)-এর সঙ্গে জোট বাঁধছে টাটার হেথকেয়ার গ্রুপ। দুই সংস্থার যৌথ উদ্যোগে টিকার ক্লিনিকাল ট্রায়াল হতে পারে দেশে। তবে টাটা গ্রুপ ও মোডার্নার তরফে এখনও এই বিষয়ে খোলাখুলি কিছু জানানো হয়নি। ​খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/এক

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *