ঢাকা, মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৩ পূর্বাহ্ন
কেন্দ্র রাজনীতিতে পারছে না, এজেন্সি লেলিয়ে দিচ্ছে: মমতার বক্তৃতার হাইলাইটস
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

কেন্দ্র রাজনীতিতে পারছে না, এজেন্সি লেলিয়ে দিচ্ছে: মমতার বক্তৃতার হাইলাইটস

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবসের মঞ্চে বক্তৃতা করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata banerjee)। তাঁর বক্তৃতার লাইভ হাইলাইটস—

আরও পড়ুনঃ অভিষেকের পাল্টা চ্যালেঞ্জ, ইডি সিবিআই দিয়ে ধমকে চমকে লাভ নেই, ‘অমিত শাহ রোককে দিখাও’


আমাদের প্রজন্মের পরে আর সেভাবে ছাত্র আন্দোলনে কেউ আসছেন না। আমরা চাই ছাত্র-যৌবন রাজনীতিতে আসুন। রাজনীতির একটা সংস্কার হোক।
আজকেও আমরা লড়াই করছি। সরকারে আছি। লড়াই না করে তো শুধু ভোগ করতে পারতাম। কিন্তু আমরা মনে করি, রাজনীতি ভোগের জায়গা নয়। সেবার জায়গা।
কেন্দ্র আমাদের সঙ্গে রাজনীতিতে পারছে না, এজেন্সি লেলিয়ে দিচ্ছে।
যতদিন বাবা ছিলেন কষ্ট বুঝিনি। বাবা মারা যাওয়ার পর বুঝলাম কী হারালাম। অনেক কষ্ট করেছি। টিউশানি করে পড়ার খরচ তুলেছি।
আজকে বই দেওয়া হচ্ছে ছাত্রছাত্রীদের। কোনও অভাব বুঝতে দেওয়া হচ্ছে না। সবুজসাথীর সাইকেল পাচ্ছেন। এবারও ৯ লক্ষ ছেলে-মেয়েকে তা দেওয়া হবে। ভোটের আগে বলেছিলাম স্টুডেন্টস ক্রেডিট কার্ড দেব। ১০ লক্ষ টাকার ক্রেডিট কার্ড দেওয়া হচ্ছে।
শিক্ষক নিয়োগ চলছে। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক নিয়োগ হচ্ছে। আর ত্রিপুরায় শিক্ষকদের চাকরি চলে গেছে। সরকারি কর্মচারী ওখানে ঠিক মতো মাইনে পান? কোথাও পান না। অসম, ত্রিপুরা, উত্তরপ্রদেশ কোথাও না।
বাংলায় বেকরত্ব ৪০ শতাংশ কমে গেছে। বানতলা লেদার কমপ্লেক্সে পাঁচ লক্ষ কর্মসংস্থান তৈরি হচ্ছে। সিলিকন ভ্যালির জন্য ১০০ একর জমি দিয়েছিলাম, ফুরিয়ে গেছে। আবার ১০০ একর দিচ্ছি।
তথ্যপ্রযুক্তির সুফল সারা রাজ্যে ছড়িয়ে দিতে আরও চারটি আইটি পার্ক শুরু হচ্ছে।
গতিধারা প্রকল্পে ৪৪ হাজার ছেলে-মেয়েকে গাড়ি কেনার টাকা দেওয়া হয়েছে।
৯০ লক্ষ এমএসএমই ইউনিট তৈরি হয়েছে বাংলায়।
আজকে আর মেয়েরা বাবা-মায়ের ঘাড়ের বোঝা নয়। আজকে কন্যাশ্রীরা গর্ব। মেয়েরা নিজের পায়ে দাঁড়াচ্ছে।
আমাদের সংস্কৃতিতে গুরুত্ব দিতে হবে। বিজেপি ছাত্রছাত্রী-শিক্ষকদের কণ্ঠ রোধ করছে, সামাজিক মাধ্যমের কণ্ঠ রোধ করছে। ১৮ বছর কোনও বাধা মানে না। দাম্ভিকতা মানে না। আমি চাই বাংলার ছাত্রছাত্রীরা সারা দেশের শিক্ষাঙ্গনে সম্প্রসারিত হোক, সমন্বয় করুক।
বিজেপি দানবীয় সরকার চালাচ্ছে। এখন দেশের মাটি বেচতে চাইছে। দেশের মাটি বিক্রি করা যায়?
সব বিক্রি করে দেবেন? কবে জনগণকে বলবে চোখ, কান, নাক, জিভ সব বিক্রি করে দাও।
কয়লা চুরিতে শুধু তৃণমূলকে ধরলে হবে। কয়লা তোমার সিআইএসএফ-এর দায়িত্বে। আসানসোলে কেন্দ্রের মন্ত্রীরা এসে লুটেপুটে খেয়েছে। আমার কাছে সব তথ্য আছে, কারা এসে কোল মাফিয়াদের হোটেলে ছিল।
আমি প্রতিহিংসাপরায়ণ নই। তোমাদের অনেক নেতা অনেক কেসে জড়িয়ে পড়েছে। তোমাদের অনেক নেতা মহিলা কেসে জড়িয়ে পড়েছে। তাও কিছু বলিনি।
ক্ষমতা থাকলে অভিষেককে পলিটিক্যালি লড়ো।
তুমি আমায় ইডি দেখালে আমিও ইডির কাছে বস্তা বস্তা কাগজ পাঠাব।
আমি এত প্রতিহিংসাপরায়ণ রাজনীতি কখনও দেখিনি। যাদের বিরুদ্ধে তোমরা রাজনৈতিক ভাবে লড়তে পারো না তাদের বিরুদ্ধে সিবিআই-ইডিকে পাঠাও।
কটা মানবাধিকার কমিশনের টিম উত্তরপ্রদেশে পাঠিয়েছিলে? কটা টিম হাথরাসে পাঠিয়েছিলে? বাংলার জন্য শুধু মানবাধিকার কমিশন? ত্রিপুরার জন্য নয়?
মানবাধিকার কমিশনের নামে যে লোকটা রিপোর্ট দিয়েছে সে বিজেপির লোক।
কী ভাবছেন আপনারা? আলু আর আলুর চিপস এক? শিখিয়ে পড়িয়ে তদন্ত করাচ্ছেন? করুন তদন্ত। আমার কোনও আপত্তি নেই। বাধাও নেই।
পার্টি চালাতে গেলে চাঁদা লাগে। কিন্তু আমরা চাই না চাঁদা নিতে। নির্বাচনী সংস্কার করে কমিশন সব চালাক। আমরা শুধু ভাষণ দেব, ভোট করবে নির্বাচন কমিশন।
কী করে ইলেকটোরাল বন্ডে তোমাদের ঘরে হাজার হাজার কোটি টাকা এল? পিএম কেয়ার্স নিয়ে ইডি হোক। এর বেলায় প্রশ্ন ওঠে না। শুধু তৃণমূলকে প্রশ্ন, লালুপ্রসাদ যাদবকে প্রশ্ন।
আজকে পেট্রোল ডিজেলের দাম কোথায় দাঁড়িয়েছে? কোথায় গেল সেই টাকা? মানুষের সব টাকা গ্যাস কিনতে চলে যাচ্ছে। সাংসদ তহবিলের টাকা দিচ্ছে না। মাইনে কমিয়ে দিচ্ছে। ​খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/এক

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *