ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
সলু ব্যাগ কী? কেন সলু ব্যাগ? | Techtunes
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


আশাকরি সবাই ভালো আছেন। বরাবরের মতো আজও নিয়ে এসেছি শিক্ষামূলক সুন্দর একটা টিউন। চলুন শুরু করা যাক।

Solu bag  নামটি কি কেউ শুনেছেন?

আমার মনে হয় অধিকাংশ লোকই শোনেন নাই। কারণ আমিও এর আগে জানতাম না। এটা বিজ্ঞানীদের অল্প কয়দিন আগের আবিষ্কার। আমি জানার পরেই, ভালো লাগার কারনেই আপনাদের সাথে শেয়ার করতে এসেছি। চলুন জেনে নিই সলু ব্যাগ কি।

সলু ব্যাগ

সলু ব্যাগ হচ্ছে ক্যালসিয়াম কার্বাইড এবং সাধারণ  রাবারে তৈরি এক বিশেষ ব্যাগ যা পলিব্যাগ এর মতোই হুবুহু ব্যবহার যোগ্য এবং একে গরম পানিতে নষ্ট করা যায়।

সলুব্যাগের উপকারিতা

  1. পলিব্যাগের মতো এটি অপচ্য নয়, এটি নষ্ট হয় অর্থাৎ গরম পানির ভিতর দিলে গলে যায়।
  2. মজার বিষয় হলো এই পানি এবং সলু ব্যাগের মিশ্রন যদি ভুলবশত কেউ খেয়ে ফেলে তাহলে তার কোন ক্ষতি হবে না বরং উপকার হবে কারণ এতে ক্যালসিয়াম থাকে।
  3. এটি দামেও পলিব্যাগের মতো সাশ্রয়ী হবে আশা করা যায়। যেহেতু বিদেশি ব্যাগ তাই দাম কম হবে পুরোপুরি ভরসা করা যায় না। তবুও পলিব্যাগ যে কতখানি ক্ষতিকর এ দিকে দেখে আমরা এটা ব্যবহার করতেই পারি।

এটি চিনা প্রযুক্তির সহয়তায় তৈরি একটি ব্যাগ।

পলিব্যাগের অপকারিতা

পলিথিনের একমাত্র উপকারিতা হচ্ছে পণ্য বহন এবং প্যাকেটজাত করা। কিন্তু পলিথিন এর অসংখ্য ক্ষতিকর দিক রয়েছে। পলিথিন একমাত্র বস্তু, যা দ্বারা ধ্বংস হয়ে যেতে পারে অসংখ্য দেশ। বাংলাদেশে ভয়াবহ ভাবে ব্যবহার হচ্ছে ক্ষতিকর এই পলিথিন ও প্লাস্টিক। দেশে ফেলা দেওয়া পলিথিন এর রিসাইক্লিংয়ের কোনো রকম ব্যবস্থা নেই। আমরা জানি যে শুধু এই পলিথিনের কারণেই ধ্বংস হতে পারে পুরো বাংলাদেশ।

  1. গবেষণার মাধ্যমে জানা গেছে, পলিথিন সবচেয়ে বেশি দুষন ঘটায় মাটির উপর। পলিথিন মাটিতে গেলে ক্ষয় হয় না এবং মাটির সাথে মিশে যায় না। পলিথিন যখন মাটির নিচে চাপা পরে তখন মাটির উপর থেকে পানি নিচে যেতে বাধাপ্রাপ্ত হয়।
  2. ইহা কৃষি জমির উর্বরতা বৃদ্ধিতে প্রতিবন্ধকতা তৈরি করে।
  3. পলিথিন মাটির নিচে চলে গেলে মাটিতে থাকা অণুজীবগুলোর স্বাভাবিক বৃদ্ধি ঘটে না। যার ফলে মাটির গুনগত মান এবং উর্বরতা হ্রাস পায়।
  4. ফলন কমে যায় শস্যের। পলিথিনের কারণে গাছও তার খাবার সঠিকভাবে পায় না। গাছ খাবার না পাওয়া মানে কম অক্সিজেনের উৎপাদন। ফলে বাতাসে কার্বন-ডাই অক্সাইডের পরিমাণ বেড়ে যায়।
  5. অক্সিজেনের স্বল্পতায় শ্বাসরোগ হয় অনেকেরই।
  6. রাজধানীর জলাবদ্ধতার কারণ অসচেতনতায় ফেলে দেওয়া সব পলথিন। নগরীর ড্রেনগুলো আবর্জনায় পূর্ণ থাকে ফলে পানি যাওয়ার রাস্তায় বাধা প্রাপ্ত হচ্ছে। যার ফলে নগরীর জলাবদ্ধতা প্রকট আকার ধারণ করছে।
  7. পলিথিনের কারণে অন্যসব আবর্জনাও জট পাকায় এবংআবদ্ধ হয়ে থাকে। পলিথিন তো পচেই না।
  8. মানুষ যখন পলিথিন এবং প্লাস্টিকের মতো নানা বর্জ্য রাস্তাতে ফেলে, ধরে নিতে হবে এগুলো কোন না কোন জলাশয়ে গিয়ে দুষন ঘটাচ্ছে এবং আবদ্ধতা সৃষ্টি করছে।
  9. পলিথিন এর কারণে শহরে পরিষ্কার পানি পাওয়া যায়না।
  10. বুড়িগঙ্গা পলিথিনসহ অপচনশীল বর্জ্যে ভয়াবহ দুষনের শিকার। এসব বর্জের কারনেই বুড়িগঙ্গার পানি আজ বিষাক্ত।
  11. নদীর তলদেশে জমাট বেধেছে ৯ ফুট পুরু পলিথিনের স্তর। এ জন্য পলিথিনের পাশাপাশি অন্যান্য বর্জও দায়ী। তবে পলিথিনের ভূমিকা অনেকটাই বেশি।

পলিথিন ও প্লাস্টিক যে আমাদের দেশে ভয়াবহ বর্জে পরিনত হয়েছে এ ব্যাপারে আমরা সকলেই জানি। তাই আমাদের পলিথিন এর বিকল্পের দিকে গুরুত্ব দিতে হবে। হতে পারে সলু ব্যাগ সেই বিকল্প। এছাড়াও আমরা কিছু ক্ষেত্রে পাটের ব্যাগ ব্যবহার করতে পারি। কারণ পাট দেশি পন্য এবং পচনশীল।

আজকের টিউন এ পর্যন্তই। আপনাদের এ বিষয়ে কোন মন্তব্য বা প্রশ্ন থাকলে টিউমেন্ট এ আমাকে জানাবেন। টিউনটি ভালো লাগলে জোসস দিতে ভুলবেন না। আল্লাহ আপনাদের সবাইকে ভালো রাখুক।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *