ঢাকা, রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০১ অপরাহ্ন
ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে দুই বাংলাদেশী হত্যার প্রতিবাদ
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর গুলিতে দুই বাংলাদেশী হত্যার প্রতিবাদ

সীমান্তআগ্রাসন এবং সার্বভৌমত্ব লংঘনের বিরুদ্ধে সকল দেশপ্রেমিক জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান জানিয়েছেন নাগরিক পরিষদের আহরায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন।

লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে দুই বাংলাদেশি যুবক হত্যার প্রতিবাদ জানিয়েছেন নাগরিক পরিষদের আহরায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন।

এ ন্যাক্কারজনক সীমান্ত আগ্রাসনের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে নাগরিক পরিষদের আহরায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন বলেন,“ সার্বভৌমত্বের লংঘন এবং গুলির ঘটনার প্রকৃত পরিসংখ্যান খুবই উদ্বেগজনক। ২০০০-২০২২ সাল পর্যন্ত ২২ বছরে পৌনে দুই হাজারের অধিক বাংলাদেশী নাগরিককে সীমান্তে হত্যা করেছে ওরা। সে ধারাবাহিকতায় বুড়িমারী সীমান্তে দুই বাংলাদেশি যুবক হত্যা । যা খুবই দুঃখজনক।”

তিনি বলেন, “ লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার বুড়িমারী সীমান্তে নিহত দুই বাংলাদেশি যুবক ইউনুস আলী (২৬) সাগর (২৭) নিরস্ত্র সাধারণ নাগরিক। তারা কোন নিরাপত্তার জন্য হুমকি ছিল না। সীমান্ত হত্যা নিয়ে বাংলাদেশের সরকার এবং বিবেকবানদের নির্বাক থাকা সন্দেহজনক ও হতাশাব্যঞ্জক। বারবার সীমান্ত হত্যা, সার্বভৌমত্বের লংঘন আমার স্বাধীনতা, সার্বভৌমত্বকে অবহেলা ও অস্বিকারের সামিল। জাতি রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে ভারত শ্রদ্ধা ও সম্মান করে না। যা মুক্তিযুদ্ধের অর্জনকে ভুলুন্ঠিত করছে।”

বিবৃতিতে নাগরিক পরিষদের আহরায়ক মোহাম্মদ শামসুদ্দীন আরো বলেন, নিরাপত্তা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষায় জাতীয় ঐক্য সৃষ্টিতে ব্যর্থ হলে স্বাধীনতা রক্ষা করা কঠিন হয়ে যাবে। তিনি বলেন সীমান্ত হত্যা বন্ধ হবে না যদি ফেলানী হত্যার বিচার না হয়।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *