ঢাকা, বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩২ অপরাহ্ন
ভারত খুবই গুরুত্বপূর্ণ, সম্পর্ক চালিয়ে যেতে চাই, শীর্ষ তালিবান নেতার ঘোষণা
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

ভারত খুবই গুরুত্বপূর্ণ, সম্পর্ক চালিয়ে যেতে চাই, শীর্ষ তালিবান নেতার ঘোষণা

 আফগানিস্তানে (Afghanistan) ফিরে আসা তালিবানকে (Taliban) স্বীকৃতি দেওয়ার প্রশ্নে নয়াদিল্লি (New Delhi) এখনও স্পষ্ট অবস্থান ঘোষণা না করলেও কাতারে জঙ্গি গোষ্ঠীটি বার্তা দিল, ভারত (India) এই উপমহাদেশে খুবই গুরুত্বপূর্ণ, তারা অতীতের মতো ভারতের সঙ্গে আফগানিস্তানের সাংস্কৃতিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক (ties) চালিয়ে যেতে চায়। দোহায় তালিবানের দপ্তরের ডেপুটি প্রধান শের মহম্মদ আব্বাস স্টানেজকাই ৪৬ মিনিটের এক ভিডিও বার্তায় এই অবস্থান স্পষ্ট করেছেন। পাস্তো ভাষায় দেওয়া বিবৃতি তালিবানের সোস্যাল মিডিয়ায় ও আফগানিস্তানের মিল্লি টেলিভিশনে সম্প্রচারিত হয়েছে। তিনি বলেছেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের রাজনৈতিক, আর্থিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ককে প্রাপ্য গুরুত্ব দিই, তা চালিয়ে যেতে চাই। এ ব্যাপারে ভারতের সঙ্গে কাজ করতে মুখিয়ে আছি আমরা।

দু সপ্তাহ আগে কাবুল দখলের পর এটাই তালিবানের তরফে ভারতের দিকে হাত বাড়ানোর প্রথম উদ্যোগ হিসাবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা। তবে নয়াদিল্লি এখনও বাস্তবে তালিবান কী করে, ভারতের সঙ্গে কাজ করা আফগানদের সঙ্গে কেমন আচরণ করে, সেদিকে নজর রাখছে।  ​

তালিবানের (Taliban leadership) পিছনে পাকিস্তান (Pakistan) আছে এবং ইসলামাবাদ ও রাওয়ালপিন্ডি বরাবরই আফগানিস্তানের সঙ্গে ভারতের বোঝাপড়াকে নেতিবাচক দৃষ্টিতে দেখে এসেছে, সেদিক থেকে শীর্ষ তালিবান নেতার বার্তাকে গুরুত্ব  দেওয়া হচ্ছে।

রবিবারই খবর বেরয়, রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদ আফগান গোষ্ঠীগুলিকে অন্য দেশের  মাটি  থেকে কাজ করা সন্ত্রাসবাদীদের সমর্থন না করার আবেদন জানিয়ে যে বিবৃতি দেয়, তাতে তালিবানের প্রসঙ্গ বাদ দেওয়া হয়েছে। ঘটনাচক্রে চলতি আগস্টে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি পদে রয়েছে ভারত।

ঘটনাচক্রে আফগান সেনা ক্যাডেটদের ট্রেনিংয়ের অঙ্গ হিসাবে আটের দশকে দেহরাদুনের ইন্ডিয়ান মিলিটারি অ্যাকাডেমিতে ছিলেন স্টানেকজাই। ১৯৯৬ সালে তালিবানের প্রথম কাবুল দখলের পর তদারকি সরকারের ডেপুটি বিদেশমন্ত্রী হয়েও তিনি ভারতকে একই বার্তা পাঠিয়েছিলেন।

এবার তিনি যে সময় কথাগুলি বললেন, তখন ভারত কাবুল দূতাবাস থেকে গোটা কূটনৈতিক টিমকে দেশে ফিরিয়ে এনেছে।

তিনি এও বলেছেন, পাকিস্তানের ভিতর দিয়ে ভারতের সঙ্গে ব্যবসা-বাণিজ্য করা আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ভারতের সঙ্গে আকাশপথে ব্যবসায়িক লেনদেনর রাস্তাও খোলা থাকবে। এটাও ভারতের দৃষ্টিকোণ থেকে গুরুত্বপূর্ণ কেননা পাকিস্তান সবসময় স্থলপথে ভারত, আফগানিস্তানের বাণিজ্য, লেনদেন, যোগাযোগে বাধা দিয়েছে। ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বলতে গিয়ে ভারতের তৈরি চাবাহার বন্দরেরও উল্লেখ করেন তিনি।

সাউথ ব্লক তালিবান নেতাদের কথাবার্তার ওপর কড়া নজর রাখছে। কোনও স্পষ্ট মনোভাব জানায়নি। তবে সরকারি অফিসাররা উল্লেখ করেন। কাবুল থেকে ভারতীয় কূটনীতিক ও আফগানদের বিমানে উড়িয়ে আনার ক্ষেত্রে সেফ প্যাসেজ দিয়েছে তালিবান । খবর দ্য ওয়ালের /২০২১/এনবিএস/এক

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *