ঢাকা, মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৩ পূর্বাহ্ন
FLoC কি? কিভাবে ব্রাউজার থেকে FLoC ব্লক করবেন | Techtunes
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করছি সবাই ভাল আছেন। আজকে আবার হাজির হলাম নতুন টিউন নিয়ে।

যতদিন যাচ্ছে ইন্টারনেট আমাদের প্রতিদিনের জীবনে তত বেশি প্রভাব ফেলছে। আমরা যেকোনো জিনিসের জন্য ইন্টারনেটে সার্চ করছি। আর সার্চ রেজাল্ট গুলো আপনার অজান্তেই ব্যবহার করছে বিভিন্ন পক্ষ। ইন্টারনেটে আপনার পছন্দ, অপছন্দ, সার্চ রেজাল্ট ইত্যাদি ডেটা ব্যবহার করে সবচেয়ে বেশি যে কাজটি করা হয় সেটা হচ্ছে এড টার্গেটিং। আপনি কিছু লিখে সার্চ করলে একটু পরেই দেখবেন, আপনার সামনে সেটার বিজ্ঞাপণ দেখাচ্ছে, এটা হয় কারণ তারা বিজ্ঞাপনটি দেখাচ্ছে আপনার তথ্য সংগ্রহ করে।

গুগলের নতুন ট্র্যাকিং মেথড

আপনি যদি Chrome ইউজার হয়ে থাকেন তাহলে জেনে অবাক হবেন, আপনি গুগলের নতুন ট্র্যাকিং এর আওতাভুক্ত। গুগল সম্প্রতি FLoC (Federated Learning of Cohorts) নামে একটি ট্র্যাকিং মেথড নিয়ে এসেছে। যার মাধ্যমে তারা ইউজারদের, ইন্টারেস্ট, ডেমোগ্রাফিক তথ্য, ব্রাউজিং হিস্ট্রি ইত্যাদি বিষয়ের উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট গ্রুপে ভাগ করবে। নতুন এই ব্যবস্থায় গুগল থার্ডপার্টি Cookies এর সাহায্য ছাড়াই ইউজারদের আগ্রহ অনুযায়ী বিজ্ঞাপণ দেখাতে পারবে। অবাক করার মত বিষয় হল গুগল এই ফিচারটি ইউজারদের ইচ্ছার উপর ছেড়ে না দিয়ে, সকল ইউজারদের ক্ষেত্রে এপ্লাই করে দিয়েছে। আপনি যদি এই মুহূর্তে গুগল ক্রোম ব্যবহার করে আপনার গুগল একাউন্টে লগইন করা থাকেন তাহলে আপনিও এই FLoC এর বাইরে নন।

FLoC কি?

পূর্বে ব্রাউজার গুলো থার্ডপার্টি Cookies, ব্যবহার করে ইউজারদের ডেটা ট্র‍্যাক করতো এবং সে ডেটা বিজ্ঞাপণে ব্যবহার করতো। গুগল বর্তমানে সেই মেথড পরিবর্তন করে FLoC নিয়ে এসেছে। গুগল এই মেথডকে ইউজারদের ডেটা নিরাপত্তার জন্য ভাল বললেও, প্রাইভেসি এক্সপার্টরা বলছে ভিন্ন কথা। ইতিমধ্যে বড় বড় বেশ কয়েকজন প্রাইভেসি বিশেষজ্ঞ এটির তীব্র সমালোচনা করেছেন। গুগল তাদের ক্রোম ব্রাউজারে ২০২৩ সালের আগে থার্ডপার্টি Cookies ব্যবহার না করলেও, ২০২১ সালেই কিন্তু FLoC চালু করে দিয়েছে। বলতে গেলে ঘুরে ফিরে সেই এক কথা, এখনো মানুষের আগ্রহ, রুচিকে টার্গেট করে তাকে এড দেখানো হবে।

কিভাবে FLoC এড়ানো যায়

ইউজাররা এখন প্রাইভেসি নিয়ে আগের চেয়ে অনেক বেশি সচেতন, তাই তারা স্বাভাবিক ভাবেই চায় না তাদের কোন তথ্য ইন্টারনেটে যাক এবং কোন প্রতিষ্ঠান সেগুলো ব্যবহার করুক। যদিও গুগল তাদের নতুন FLoC টার্গেটিং ডিজেবল করার কোন ব্যবস্থা রাখে নি, তারপরেও আপনি তিনটি পদ্ধতি ব্যবহার করে এটিকে ব্লক করতে পারেন।

ক্রোম ব্যবহার না করাঃ প্রথম পরামর্শ হতে পারে আপনি ক্রোম ব্যবহার না করুন। এই মুহূর্তে এই টার্গেটিং শুধু মাত্র ক্রোমের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হচ্ছে। আপনি ক্রোম ছাড়াও আরও অনেক ব্রাউজার ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারেন, অবশ্য সেগুলো কাউকে নতুন করে দেখিয়ে দিতে হবে না।

এক্সটেনশন ব্যবহার করাঃ বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমরা ক্রোম ব্যবহার করি এবং চাইলেও এটি পরিহার করা যায় না, কারণ সেখানে অনেক ডেটা থাকে। তো আপনি ক্রোম ব্যবহার করেও FLoC ব্লক করতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে DuckDuckGo Privacy Essentials এক্সটেনশন। DuckDuckGo Privacy Essentials এক্সটেনশনটি ইন্সটল করা থাকলে এটি স্বয়ংক্রিয় ভাবে আপনার ব্যক্তিগত ডেটাকে নিরাপদ করবে৷ FLoC ব্লকিং ফিচারটি DuckDuckGo এক্সটেনশনের 2021.4.8 ভার্সন গুলোতে দেয়া হয়েছে।

ক্রোম বা গুগলের সেটিং পরিবর্তন করাঃ আপনি ক্রোম ব্রাউজারের কিছু সেটিং এবং আপনার গুগল একাউন্টের কিছু সেটিং পরিবর্তন করে এই টার্গেটিংকে মোটামুটি নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন।

  • ক্রোমে গুগল একাউন্ট লগইন করা থেকে বিরত থাকুন। কখনো History ডাটা Sync করবেন না, এমনকি ক্রোমে Sync একাউন্টও তৈরি করার দরকার নেই।
  • গুগল একাউন্ট এর Google Activity Controls থেকে, “Web & App Activity” অথবা “Include Chrome history and activity from sites, apps, and devices that use Google services;” ডিজেবল করে দিন।
  • Google Ad Settings থেকে “Ad Personalization” অথবা “Also use your activity & information from Google services to personalize ads on websites and apps that partner with Google to show ads.” ডিজেবল করে দিন।

ওয়েবসাইট মালিক হিসেবে আপনার করনীয় কি হবেঃ আপনি যদি কোন ওয়েবসাইটের মালিক হোন এবং চান যে এই ট্র্যাকিং থেকে আপনার ভিজিটররা নিরাপদে থাক তাহলে নিচের পদ্ধতিটি ফলো করুন।

আপনার ওয়েবসাইট থেকে FLoC করতে নিচের Header টি ব্যবহার করুন,

Permissions-Policy: interest-cohort=()

এই সেটিং গুলো করলেও পরামর্শ থাকবে আপনি DuckDuckGo এক্সটেনশনটি ব্যবহার করুন। এক্সটেনশনটি ব্যবহারে আপনি FLoC ব্লক এর সাথে আরও পাবেন, private search, tracker blocking, Smarter Encryption, এবং Global Privacy Control এর মত ফিচার।

DuckDuckGo Privacy Essentials কি?

DuckDuckGo Privacy Essentials হচ্ছে একটি ফ্রি ব্রাউজার এক্সটেনশন যা আপনার ব্রাউজিংকে আরও নিরাপদ করবে। এক্সটেনশনটি আপনার প্রবেশ করা ওয়েবসাইটের এনালাইসিস করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে। আপনার ব্যক্তিগত ডেটা গুলোর সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করবে এই এক্সটেনশনটি। যেকোনো ওয়েবসাইটে প্রবেশ করলে এটি আপনাকে জানাবে নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটটি কতটা নিরাপদ। এড ট্র‍্যাকারদের ব্লক করার পাশাপাশি এটি অনিরাপদ কানেকশন গুলোকে Encrypted করবে।

DuckDuckGo Privacy Essentials

ক্রোম এক্সটেনশন লিংক @ DuckDuckGo Privacy Essentials

অন্য ব্রাউজার এক্সটেনশন লিংক @ DuckDuckGo Privacy Essentials

DuckDuckGo Privacy Essentials কিভাবে ব্যবহার করবেন?

চলুন দেখে নেয়া যাক কিভাবে DuckDuckGo Privacy Essentials এক্সটেনশটি ব্যবহার করবেন,

প্রথমে এক্সটেনশনটি ডাউনলোড করে ইন্সটল করে নিন

আপনাকে আর কিছু করতে হবে না, যা করার এখন এক্সটেনশনটিই করবে।

DuckDuckGo Privacy Essentials এর সুবিধা

চলুন DuckDuckGo Privacy Essentials এর কিছু সুবিধা দেখে নেয়া যাক,

  • আপনার ব্যক্তিগত ডেটা গুলো আপনার অজান্তেই প্রোটেক্ট করবে
  • প্রাইভেসি গ্রেড এর মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন নির্দিষ্ট ওয়েবসাইট কতটা নিরাপদ
  • আপনার ডেটা লিক হওয়া এড়াতে কানেকশন গুলোকে Encrypted করবে
  • এর শক্তিশালী ব্লকিং ব্যবস্থা সকল ধরনের ট্র‍্যাকারকে তথ্য সংগ্রহে বাধা দেবে।

FLoC এবং প্রাইভেসি ঝুঁকি

FLoC অনুযায়ী আপনি যখন ব্রাউজার ব্যবহার করে ইন্টারনেটে ব্রাউজিং করবেন তখন আপনাকে নির্দিষ্ট গ্রুপে ফেলা হবে। আপনাকে কোন গ্রুপের অন্তর্ভুক্ত করা হবে সেটা নির্ধারিত হবে আপনার ব্রাউজিং ডেটা অনুযায়ী। ওয়েবসাইট গুলো আপনি প্রবেশের সাথে সাথে FLoC ID তে এক্সেস পেয়ে যাবে এবং এড টার্গেটে ব্যবহৃত হবে। আপনি একটি গ্রুপের আওতায় থাকলেও, আপনি আলাদা বা ব্যক্তিগত ভাবেও ট্র্যাকিং এর শিকার হতে পারেন।

গুগল তার ইউজারদের ডিটেল প্রোফাইল মেইনটেইন করে, এবং দীর্ঘদিন ধরে একজন ইউজারকে পর্যবেক্ষণের পর এটি সম্ভব হয়। এখন তারা FLoC এর মাধ্যমে সেই ইউজারদের চাহিদা, রুচি, আগ্রহ প্রকাশ করবে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে। যদিও FLoC ID এর মধ্যে কোন ইউজারদের বর্ণনা মূলক তথ্য থাকবে না, তারপরেও সেগুলো থেকে নির্দিষ্ট তথ্য বের করতে বিভিন্ন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের খুব বেশি সময় লাগবে না।

গুগল নিজেই বলেছে যে এই নতুন পদ্ধতিটি থার্ড পার্টি Cookies ট্র্যাকিংয়ের মতো ৯৫ % কার্যকর, এবং তারা বয়স, লিঙ্গ, নৃগোষ্ঠী, আয় এবং অন্যান্য বিষয়ের ভিত্তিতে ইউজারকে টার্গেট করা অব্যাহত রেখেছে।

আরও ভয়াবহ তথ্য হচ্ছে এই FLoC ID গুলো থার্ডপার্টি ট্র্যাকিং ওয়েবসাইটেও এক্সেস যোগ্য হতে পারে। সুতরাং আপনার উচিত হবে ব্রাউজারে সেই সমস্ত ওয়েবসাইট লোড করা থেকে বিরত থাকা। আর এই ধরনের ট্র্যাকিং বন্ধ করতে একমাত্র আপনাকে DuckDuckGo এক্সটেনশনটিই সাহায্য করতে পারে।

শেষ কথাঃ

এর আগেও একাধিক বার প্রাইভেসি ইস্যুতে গুগল আলোচনায় থাকার পরেও, তাদের এই ধরনের একটি পদক্ষেপ আসলেই দুঃখজনক। তাছাড়া ইউজারদের পারমিশন ছাড়াই এটি গণহারে প্রয়োগ করা ঠিক হয় নি।

তো আজকে এই পর্যন্তই, পরবর্তী টিউন পর্যন্ত ভাল থাকুন আল্লাহ হাফেজ।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *