ঢাকা, রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৭ পূর্বাহ্ন
আমিও শহিদের ছেলে, জালিয়ানওয়ালাবাগ বিতর্কে মন্তব্য রাহুলের
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

আমিও শহিদের ছেলে, জালিয়ানওয়ালাবাগ বিতর্কে মন্তব্য রাহুলের

 জালিয়ানওয়ালাবাগের শহিদ স্মৃতিস্তম্ভ পুনর্নির্মাণ নিয়ে ইতিমধ্যে বিতর্ক শুরু হয়েছে দেশে। এবার সেই বিতর্কে যোগ দিলেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। মঙ্গলবার তিনি ইংরেজি ও হিন্দিতে দু’টি টুইট করেন। তাতে রাহুল ‘যারা কখনও স্বাধীনতা সংগ্রাম করেনি’ তাদের তীব্র সমালোচনা করেছেন। সেইসঙ্গে বলেছেন, তিনিও শহিদের ছেলে। যে কোনও মূল্যে শহিদদের অমর্যাদা রুখবেন।

১৯১৯ সালের ১৩ এপ্রিল জালিয়ানওয়ালাবাগে গণহত্যা চালায় ব্রিটিশ সেনা। স্বাধীনতার পরে সেখানে একটি শহিদ স্তম্ভ নির্মাণ করা হয়েছিল। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেই স্মারক জীর্ণ হয়ে পড়ে। তাই সরকার স্মৃতিস্তম্ভটি সারানোর উদ্যোগ নিয়েছিল। নবরূপে নির্মিত জালিয়ানওয়ালাবাগের স্মৃতিস্তম্ভ গত ২৮ অগাস্ট জাতির উদ্দেশে উৎসর্গ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু ইতিহাসবিদরা সেই স্মৃতিস্তম্ভ দেখে বলছেন, ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছে। সেখানে যে এতবড় দুঃখের ঘটনা ঘটে গিয়েছিল তা স্মৃতিস্তম্ভ দেখে মনেই হচ্ছে না। মনে হচ্ছে এটি নিছক বেড়ানোর জায়গা।


রাহুল লিখেছেন, “জালিয়ানওয়ালাবাগের শহিদদের প্রতি এমন অমর্যাদা তারাই করতে পারে যারা শহিদ হওয়ার অর্থই জানে না। আমি নিজে শহিদের সন্তান। যে কোনও মূল্যে শহিদের অমর্যাদা রুখব।”


রাহুলের সঙ্গে গলা মিলিয়েছেন সিপিএম নেতা সীতারাম ইয়েচুরি। তিনি বলেছেন, যারা বরাবর স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে দূরে ছিল, তারাই এইভাবে শহিদদের অমর্যাদা করতে পারে। কংগ্রেস সাংসদ গৌরব গগৈ বলেছেন, “আমাকে কেউ রক্ষণশীল বলতে পারেন। কিন্তু আমি মনে করি কোনও রাষ্ট্রীয় স্মারক সৌধে ডিস্কো লাইট লাগানো উচিত নয়। খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *