ঢাকা, শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৫৫ অপরাহ্ন
রাতভর বোমাবাজি, বাড়ি ভাঙচুর, সিবিআই তদন্তের মাঝেই দুষ্কৃতী তাণ্ডব খেজুরিতে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


রাতভর বোমাবাজি, বাড়ি ভাঙচুর, সিবিআই তদন্তের মাঝেই দুষ্কৃতী তাণ্ডব খেজুরিতে

পূর্ব মেদিনীপুরের একাধিক জায়গায় ভোট পরবর্তী হিংসার (Post Poll Violence) তদন্ত চালচ্ছে সিবিআই। গতকালই নন্দীগ্রাম ও খেজুরিতে গিয়ে কয়েকটি পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছে তদন্তকারীরা। এর মাঝেই হিংসার ঘটনা ঘটল খেজুরিতে। অভিযোগ, বিজেপি কর্মীদের বাড়িতে হামলা চালিয়েছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। বাড়ি ভাঙচুর চলেছে, এলাকায় বোমাবাজি হয়েছে রাতভর। ঘটনাস্থলে মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশবাহিনী।

সূত্রের খবর, খেজুরি ১ নম্বর ব্লকের হেঁড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের ৩৩ নম্বর মোহাটি বেনিপুর বুথ এলাকায় বুধবার সারা রাত বোমাবাজি হয়েছে। প্রায় জনা দশেক বিজেপি কর্মীর বাড়িতে হামলা চালিয়েছে দুষ্কৃতীরা। স্থানীয়দের দাবি, বাড়িতে ঢুকে ভাঙচুর, বিজেপি কর্মী ও তাঁদের পরিবারের লোকজনদের মারধর করা হয়েছে। কয়েকটি বাড়িতে লুঠপাটের ঘটনাও ঘটেছে বলে অভিযোগ। ঘটনাস্থলে পৌঁছে তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ। আরও তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পুলিশের দাবি, ধৃতেরা সকলেই দুষ্কৃতী। এদের কোনও রাজনৈতিক পরিচয় নেই।


স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশে রাজ্যের জেলায় জেলায় ঘুরে ভোট পরবর্তী হিংসার ঘটনার তদন্ত করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। এর মধ্যেই অশান্তি ছড়াবার জন্য তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাণ্ডব শুরু করেছে।


মাছ ধরার ঘটনাকে কেন্দ্র করেই অশান্তি ছড়িয়েছে বলে দাবি করেছেন স্থানীয়রা। ঘটনায় সরব হয়েছেন কাঁথি বিজেপির সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী। তিনি জানান, ভোটের ফলাফল বের হতেই বিজেপি কর্মীদের ওপর ক্রমাগত তৃণমূল হামলা চালিয়ে যাচ্ছে। বাড়ি ছাড়া করছে বিজেপি কর্মীদের। আহত করা হচ্ছে তাঁদের।

তবে সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, বিজেপি  অযথা এই ঘটনাকে রাজনৈতিক রঙ লাগাবার চেষ্টা করছে। খেজুরির তৃণমূল নেতা পার্থপ্রতিম দাস জানিয়েছেন, এটা কোনও রাজনৈতিক হিংসার ঘটনা নয়। অঞ্চলের দুই গ্রামের বাসিন্দাদের মধ্যে মাছ ধরাকে কেন্দ্র করে বিবাদ শুরু হয়। এরপরেই সংঘর্ষ বাঁধে। খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *