ঢাকা, রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৪ পূর্বাহ্ন
শুক্রবারই আফগানিস্তানে পাকাপাকি ভাবে তৈরি হচ্ছে তালিবান সরকার? কী বলছে শীর্ষ নেতৃত্ব
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

শুক্রবারই আফগানিস্তানে পাকাপাকি ভাবে তৈরি হচ্ছে তালিবান সরকার? কী বলছে শীর্ষ নেতৃত্ব

নির্দিষ্ট সময় মেনে পাকাপাকি ভাবে বিদায় নিয়েছে মার্কিন সেনা। আর তারপর থেকেই আফগানিস্তানে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া পুরোদমে শুরু করে দিয়েছে তালিবানেরা। এদিকে গত কয়েক দিন ধরেই আফগানিস্তানের নতুন সরকার তৈরি নিয়ে বিস্তর আলোচনা চলছিল তালিবান নেতৃত্বের মধ্যে। অবশেষে হেবাতুল্লাহ আখুন্দজাদাকে নিজেদের প্রধান নেতা হিসাবে বেছেছে তালিবানেরা। এমতাবস্থায় সরকার গঠন করতে তারা আর দেরি করতে চাইছে না বলেই খবর।

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী শুক্রবারের নমাজ পাঠের পর তালিবানরা একটি বিশেষ বৈঠকে বসতে চলেছে। সেই বৈঠকে সরকার গঠন নিয়ে আলোচনা হবে নেতৃত্বের মধ্যে। আর তারপরেই বিবৃতি জারি করে জানানো হবে সরকার গঠনের খবর। এদিকে প্রায় ২০ বছর পর ফের আফগানিস্তানে ক্ষমতায় ফিরেছে তালিবানেরা। পড়ে গিয়েছে নির্বাচিত সরকার।

এদিকে ১৫ অগস্ট কাবুলের পতনের পর কেটে গিয়েছে দু'সপ্তাহ। কিন্তু এতদিন নতুন সরকার নিয়ে তেমন কিছুই জানাননি তালিবান নেতৃত্ব। তালিবান প্রধান হোক বা আফগান রাষ্ট্রপতি কে হবেন তা নিয়েও বিশেষ কিছু এতদিন জানায়নি তালিবান নেতৃত্ব। কিন্তু শেষ হয়েছে নেতা বাছাইয়ের প্রক্রিয়া। এমতাবস্থায় সরকার গঠনের বিষয়টি তালিবানরা আর ফেলে রাখতে চায় না বলেই জানা যাচ্ছে।

এদিকে এর আগে দোহা থেকে তালিবান মুখপাত্রদের একাধিকবার দেশের অবস্থা নিয়ে বিবৃতি দিতে দেখা গেলেও তাদের মুখেও নির্দিষ্ট করে কোনও তারিখের কথা জানা যায়নি। তবে বৃহঃষ্পতিবার হেবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার মাথায় নতুন তালিবানি শিরোপা ওঠার পরেই বদলাতে থাকে চিত্র। এই প্রসঙ্গে তালিবান কালচারাল কমিশনের সদস্য আনামুল্লা সামানগানি জানান, নতুন সরকারের প্রধান মুখ হতে চলেছেন হেবাতুল্লাহ। তাঁর অধিনেই কাজ করবেন প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী।


এদিকে গোটা দেশ তালিবানদের দখলে চলে যাওয়ার পরেই দেশ ছেড়ে পালিয়েছেন নির্বাচিত রাষ্ট্রপতি আশরফ গনি। বর্তমানে সেদেশের স্বঘোষিত রাষ্ট্রপতি হিসাবে নিজেকে ঘোষমা করেছে আশরফ সরকারের উপরাষ্ট্রপতি আমিরুল্লাহ সালেহ। পঞ্জশিরে লুকিয়েই তালিবানদের সঙ্গে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এদিকে ইতিমধ্যেই কাবুল বিমানবন্দর ছেড়ে চলে গিয়েছে মার্কিন সেনাবাহিনীও। আর তাতেই যেন স্বস্তি ফিরেছে তালিব শিবিরে।

এদিকে এই সপ্তাহের মধ্যেই যে সরকার গঠনের প্রক্রিয়া শেষ হবে তা জানাচ্ছেন একাধিক শীর্ষ তালিবান নেতৃত্ব। তালিবানের রাজনৈতিক সংগঠনের প্রধান শের মহম্মদ আব্বাস জানান, দু-একদিনের মধ্যে আফগানিস্তানের সরকার গঠিত হবে। তালিবান ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি পদে প্রভাবশালী ব্যাক্তিদের নিয়োগ করেছে বলেও জানা যাচ্ছেত  । ওয়ান ইন্ডিয়ার /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *