ঢাকা, বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:০৬ অপরাহ্ন
ভাত নষ্ট করার শাস্তি! ক্যানিংয়ে একরত্তি শিশুর গায়ে গরম খুন্তি চেপে ধরলেন মা
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

ভাত নষ্ট করার শাস্তি! ক্যানিংয়ে একরত্তি শিশুর গায়ে গরম খুন্তি চেপে ধরলেন মা

পরিবারে অশান্তি। আর তার কোপ পড়ল একরত্তি শিশুর  (child) উপর। নিজের সন্তানের উপর পৈশাচিক অত্যাচার করলেন মা (mother)। বছর তিনেকের শিশুর গায়ে গরম খুন্তি চেপে ধরলেন। একবার নয়, একাধিক বার।

ঘটনাটি ঘটেছে ক্যানিংয়ের (canning) চাঁদখালি এলাকায়। স্থানীয় সূত্রের খবর, ভাত ফেলে নষ্ট করা নিয়ে প্রথমে পরিবারে অশান্তি শুরু হয়। শিশুটির মা অর্পিতার সঙ্গে তাঁর শ্বশুর হরিহর আচার্য্যের তুমুল ঝগড়া হয়। তারপর ঘরের দরজা বন্ধ করে একরত্তি ছেলের গায়ে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দেন তার মা। যন্ত্রণায় কাতরাতে থাকে শিশুটি। তার চিৎকারে বাড়ির সকলে ছুটে আসে। কিন্তু ঘরের দরজা বন্ধ থাকায় শিশুটিকে উদ্ধার করা যায় না ।


অবশেষে শিশুটির বাবা দেবাশীষ আচার্য্য স্থানীয় এক মহিলা সমিতির মহিলাদেরকে ঘটনার কথা জানান। তাঁরা এসে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। তাকে নিয়ে যাওয়া হয় ক্যানিং মহকুমা হাসপাতালে।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে ক্যানিং থানার পুলিশ। তারা এসে শিশুটির বাবা মা দুজনকেই আটক করেছে। শিশুটির উপর কেন এমন পৈশাচিক অত্যাচার করা হল সে বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ।

অন্যদিকে অর্পিতার শ্বশুর হরিহর আচার্য্য ও শাশুড়ি অনিন্দিতা আচার্য্যের অভিযোগ প্রতিনিয়ত অশান্তির সৃষ্টি করে নিজের ছেলেকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিত অর্পিতা। শ্বশুরবাড়ির লোকজনকে ফাঁসিয়ে দেওয়ার উদ্দেশেই এমন কাজ সে করেছে বলে অভিযোগ। এমনকি নিজেও কয়েকবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছেন অর্পিতা, জানিয়েছেন শ্বশুরবাড়ির লোকজন। অন্যদিকে নিজের শিশু সন্তানের উপর পৈশাচিক অত্যাচারের সত্যতা স্বীকার করে অর্পিতা আচার্য্য জানিয়েছেন “আমার স্বামী, ভাসুর ও শ্বশুর আমার এবং আমার সন্তানের উপর প্রতিনিয়ত অত্যাচার করে। রাগে আমি আমার ছেলের গায়ে গরম খুন্তির ছ্যাঁকা দিয়েছি।”

নিজের সন্তানের প্রতি গর্ভধারিণী মায়ের এমন পৈশাচিক অত্যাচারের কথা প্রকাশ্যে আসতেই প্রতিবেশীরা অভিযুক্ত মায়ের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।। খবর  দ্য ওয়ালের / এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *