ঢাকা, মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪০ অপরাহ্ন
ধর্ষণে গর্ভবতী, টয়লেটে ভূমিষ্ঠ প্রিম্যাচিওর সন্তান, ভয়ে ফ্লাশ করে দিল নাবালিকা!
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

ধর্ষণে গর্ভবতী, টয়লেটে ভূমিষ্ঠ প্রিম্যাচিওর সন্তান, ভয়ে ফ্লাশ করে দিল নাবালিকা!

 মেডিকেল চেকআপ করাতে গিয়ে আচমকা হাসপাতালের শৌচাগারে (toilet) সন্তান প্রসব করে ফেলল, এমনকী ঘাবড়ে গিয়ে লজ্জার ভয়ে সেখানেই বাচ্চাটিকে ফ্লাশ করে দিল ধর্ষণের (rape)  ফলে গর্ভবতী (impregnated) হয়ে পড়া নাবালিকা! কেরলের কোচির ঘটনা। বুধবার মেয়েটি মায়ের সঙ্গে শহরের এক বেসরকারি হাসপাতালে চেকআপ করাতে যায়। ডাক্তারের জন্য অপেক্ষা করতে করতে আচমকা তার পেটে খুব যন্ত্রণা শুরু হয়। রেস্টরুমে ঢুকে টয়লেটে যায় সে। সেখানেই কমোডের ওপর প্রিম্যাচিওর সন্তান (premature baby) ভূমিষ্ঠ হয় তার। কিন্তু নাবালিকা (minor girl) ঘটনাটি  মা বা কাউকে জানানোর পরিবর্তে টয়লেটের ফ্লাশ টেনে দেয়। বেরিয়ে এসে স্ক্যানিং রুমে চলে যায় পরীক্ষা নিরীক্ষার জন্য। কিন্তু টয়লেটে একটি বাচ্চার ভ্রুণ (foetus) ভাসতে দেখে আরেক রোগী পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ হাসপাতালে ছুটে এসে নাবালক মেয়ের মানবভ্রুণটি ফ্লাশ করে দেওয়ার কথা জানতে পারে।

জিজ্ঞাসাবাদের সময় মেয়েটি জানায়, ২০ বছরের একটি ছেলে ধর্ষণ করায় সে গর্ভবতী হয়ে পড়েছে। টয়লেটে অপরিণত সন্তান জন্মের পর ফ্লাশ টেনে তাকে পরিত্যাগ করেছে, তাও স্বীকার করে মেয়েটি।

তার মায়ের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে ওয়েনাড়ের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে পুলিশ। মেয়েটির গর্ভাবস্থা ১৩ থেকে ২৬ সপ্তাহের স্তরে ছিল। মেয়েটির তার সম্পর্ক বা সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়ার কথা গোপন করে যায়।

২০১৮ সালেও কেরলেই কলের মিস্ত্রীরা টয়লেটের সিঙ্কে কাজ করতে গিয়ে একটি দুদিনের বাচ্চার দেহ উদ্ধার করেছিলেন। নাট্টুকালে ময়লা পরিষ্কার করার সময় আচমকা  টয়লেটে একটি বাচ্চার মাথা বেরিয়ে আসতে দেখে চমকে ওঠেন তাঁরা। বাচ্চাটির মায়ের খোঁজে তদন্তে নামে পুলিশ। খবর দ্য ওয়ালের /২০২১/এনবিএস/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *