ঢাকা, সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০১:১৩ পূর্বাহ্ন
GPS দিয়ে আপনার বন্ধু ও পরিবারকে ট্র্যাক করার ৭ টি সেরা ফ্রি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ | Techtunes
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


আপনি কি আপনার বন্ধু বা পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের কে ট্র্যাক করার জন্য কোন একটি অ্যাপ্লিকেশন খুঁজছেন? আপনি যদি আপনার প্রিয়জনের উপর অথবা অন্য কারো উপর নজর রাখার জন্য অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশন খুঁজে থাকেন, তবে আজকের এই টিউনটি আপনার জন্য। আপনার প্রিয়জনের ওপর নজর রাখার জন্য আজকের এই অবস্থান শনাক্তকারী অ্যাপগুলোকে আপনার অবশ্যই দেখার প্রয়োজন।

আপনি কি আপনার বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের কোন সদস্যের লোকেশন জানার জন্য বা ট্র্যাক করার জন্য কোন একটি অ্যাপ্লিকেশন চান? যদিও কাউকে ট্র্যাক করার বিষয়টি শুনতে অনেক ভীতিকর শোনায়, কিন্তু তবুও আজকাল বেশিরভাগ মানুষ তাদের নিজেদের অবস্থানকে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকেন। আপনার বর্তমান লোকেশন সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করতে আপনার যদি কোন ক্ষতি না হয়ে থাকে, তবে নিশ্চয় এসব অ্যাপ গুলোও আপনার ক্ষতি করবে না। যাইহোক, এই বিষয় আমরা আরো একটু পরে আলোচনা করছি।

আপনি যদি সেরা Location-finding অ্যাপ, GPS tracking অ্যাপ এবং আপনার বন্ধুদের খুঁজে বের করার উপায় বের করতে চান, তবে অবশ্যই আজকের এই টিউন টি মনোযোগ দিয়ে পড়তে থাকুন।

তবে টিউনটি শুরু করার আগে আমি আপনাকে একটি কথা বলে রাখি। আপনি টিউনটির শিরোনাম দেখে ট্র্যাকিং করা সম্পর্কে হয়তোবা অন্য কিছু ধারণা করতে পারেন। এখানে আপনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর মতো কারো অনুমতি না নিয়ে তাকে কিন্তু ট্র্যাক করতে পারবেন না। নিচে দেখানো অ্যাপ গুলোর মাধ্যমে, শুধুমাত্র যে ব্যক্তি আপনাকে ট্র্যাক করার অনুমতি দেবে, আপনি শুধুমাত্র তাকেই ট্র্যাক করতে পারবেন, অথবা আপনি যাকে অনুমতি দিবেন সে আপনাকে ট্র্যাক করতে পারবে। চলুন তবে এবার সেসব অ্যাপগুলো দেখে নেওয়া যাক।

১. Glympse

Glympse - Share GPS location

সময়ের সাথে সাথে Glympse অ্যাপটি প্লে স্টোরের অত্যন্ত জনপ্রিয় একটি লোকেশন অনুসন্ধানকারী অ্যাপে পরিণত হয়েছে। যে অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই এবং অনেক দ্রুত আপনার জিপিএস অবস্থান আপনার বন্ধুর কাছে অথবা পরিবার এবং সহকর্মীর সাথে শেয়ার করতে সক্ষম হবেন।

এই অ্যাপটির সবচাইতে সেরা বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, এই অ্যাপটির মাধ্যমে কাউকে আপনি লোকেশন শেয়ার করলে, এক্ষেত্রে অপর-প্রান্তের ব্যক্তিকে অ্যাপটিতে সাইন আপ করার কোন প্রয়োজন নেই। এক্ষেত্রে অপর-প্রান্তের ব্যক্তিকে শুধুমাত্র ইন্টারনেটের সঙ্গে সংযুক্ত থাকলেই চলবে। অর্থাৎ অপর-প্রান্তের ব্যক্তিকে তার মোবাইলে Glympse অ্যাপ ইন্সটল করার কোন প্রয়োজন নাই। যে ফিচারটি আপনাকে হোয়াটসঅ্যাপ এবং গুগল ম্যাপস এর লোকেশন শেয়ারিং থেকে Glympse কে আলাদা করে তোলে এবং যা সত্যিই অনেক বেশি অসাধারণ।

এছাড়া Glympse অ্যাপের কিছু নিরাপত্তা বৈশিষ্ট্য ও রয়েছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে আপনি যদি কাউকে লোকেশন শেয়ার করেন, তবে সেটি একটি নির্দিষ্ট সময় পর স্বয়ংক্রিয়ভাবে বন্ধ হয়ে যাবে। এক্ষেত্রে আপনার কোনো ঝুঁকি থাকবে না, কোন ব্যক্তি আপনাকে অনেকক্ষণ ধরে আপনার লোকেশন কে দেখার। আপনি যদি আপনার কোন বন্ধুকে আপনার লাইভ লোকেশন শেয়ার করতে চান, তবে Glympse অ্যাপটি ব্যবহার করতে পারেন।

এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি কোনো একজন বন্ধুকে আপনার লাইভ লোকেশন শেয়ার করলে, সেই বন্ধু আপনার বর্তমান অবস্থান জানতে পারবে এবং আপনি যে সময় পর্যন্ত সেটি সেট করে দিবেন, অপর-প্রান্তের সেই ব্যক্তি সেই সময় পর্যন্ত আপনার লাইভ লোকেশন দেখতে পাবে। এই অ্যাপটি সবচাইতে কাজের হয় তখনই, যখন আপনি কোথাও ভ্রমণ করতে যান। এক্ষেত্রে আপনি আপনার কোন একজন বন্ধুকে অথবা আপনার পরিবারের কোনো সদস্য কে আপনার লাইভ লোকেশন শেয়ার করে রাখতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি যখন যে জায়গায় থাকবেন, তখন আপনার পরিবার থেকে আপনার সঙ্গে যোগাযোগ না করেও আপনার লাইভ লোকেশন তারা বের করতে পারবে। যে ব্যাপারটি সত্যিই অনেক অসাধারণ।

Glympse

Official Download @ Glympse

২. Family Locator

Family Locator

Family Locator একটি আজকের তালিকার সেরা অ্যাপ। এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি আপনার বাচ্চাদেরকে সবসময় নজরদারি করতে পারবেন। এক্ষেত্রে যার ছোট সন্তান রয়েছে, তারা সবসময় তাদের সন্তানদের ওপর নজরদারি বা অবস্থান জানার জন্য এটিকে ব্যবহার করতে পারেন। আপনার পরিবারের অন্য যে কেউ এই অ্যাপটি ব্যবহার করে আপনি তাদের রিয়েল টাইম লোকেশন দেখতে পারেন। এছাড়া এই অ্যাপের মাধ্যমে অন্যান্য ব্যবহারকারীদের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য Built-in messaging সুবিধাও রয়েছে এবং যেটির মাধ্যমে কাউকে কোন বিশেষ বার্তা পাঠান সম্ভব।

এই অ্যাপটি সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ এ কারণেই যে, এটি আপনার শিশুর নিরাপত্তার ক্ষেত্রে কাজ করে। কেননা Family Locator অ্যাপটিতে পিতা-মাতার জন্য SOS বা Save Our Souls বাটন রয়েছে। এক্ষেত্রে যখন এই বোতামটি চাপা হবে, তখন এটি অতি দ্রুত আপনার সন্তানের অবস্থান ম্যাপে চিহ্নিত করবে। এই সুবিধাটি কাজে লাগতে পারে পারিবারিক ভ্রমণে বড় কোন পাবলিক প্লেসে গিয়ে, যেখানে আপনার বাচ্চারা তাদের নিজেদের ইচ্ছামত ঘুরে বেড়ায়। এক্ষেত্রে আপনি এই ফিচারটির মাধ্যমে খুব সহজেই আপনার সন্তানের লাইভ লোকেশন খুঁজে নিতে পারবেন।

এই অ্যাপটির আরো একটি ইন্টারেস্টিং বা আকর্ষণীয় ফিচার হচ্ছে, এই অ্যাপটির মাধ্যমে পিতা-মাতা তার সন্তানের অ্যাক্টিভিটি গুলোর সতর্কবার্তা পাবার জন্য নোটিফিকেশন সেট করে রাখতে পারে। যাতে করে তার সন্তান একটি নির্দিষ্ট গন্তব্যে পৌঁছানোর পর একটি সতর্কবার্তা বা নোটিফিকেশন পাবেন। এক্ষেত্রে তার সন্তান স্কুলে গিয়ে উপস্থিত হলে, অথবা বাড়িতে উপস্থিত হলে, সেই লোকেশনে আসার পর পিতা-মাতার মোবাইলে একটি নোটিফিকেশন যাবে। এছাড়া এই অ্যাপটির মাধ্যমে নিরাপদ নিরাপদ স্থান সিলেক্ট করে রাখা যেতে পারে, এক্ষেত্রে যখন সেই সন্তান সেই সীমানা অতিক্রম করবে, তখন তার পিতা-মাতা একটি সতর্কবার্তা পাবেন।

Glympse দিয়ে যেমন শুধুমাত্র লাইভ লোকেশন এর লিংক শেয়ার করলে সে ব্যক্তি অপর-প্রান্ত থেকে দেখতে পায় এবং এক্ষেত্রে অপর-প্রান্তের ব্যক্তিকে Glympse অ্যাপ ইন্সটল করতে হয়না। কিন্তু এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনার সন্তানকে ট্র্যাক করতে হলে অবশ্যই Family Locator অ্যাপটি আপনার মোবাইলে অবশ্যই ইন্সটল করা থাকতে হবে।

Family Locator

Official Download @ Family Locator

৩. A-GPS Tracker

A-GPS Tracker

যদিও এ ধরনের অ্যাপগুলো প্রাথমিকভাবে ব্যবহার হয়ে থাকে আপনার সন্তানকে নজরদারি করার ক্ষেত্রে। তবে এসব অ্যাপ যে কেউ ব্যবহার করতে পারে যারা বিভিন্ন জায়গায় ভ্রমণ করে থাকে অথবা অপরিচিত কোন জায়গায় প্রায়ই গিয়ে থাকে। বিশেষ করে, আমরা যারা দীর্ঘ ভ্রমণে প্রায়ই কোথাও গিয়ে থাকি, যারা হাঁটাহাঁটি করি এবং বিভিন্ন প্রয়োজনে অনেক অপরিচিত জায়গায় যেতে হয়।

অপরিচিত কোন জায়গায় দীর্ঘ ভ্রমণ করার সময় কোন কারণে এটি আপনার জন্য বিপদ ডেকে আনতে পারে। যেমন ধরুন, যদি হঠাৎ করে সে এলাকার আবহাওয়া পরিবর্তন হয়ে যায়, তবে আপনি এক্ষেত্রে সেখানে বিপদে পড়তে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি সেখানে যাবার আগেই আপনার ডিভাইসে A-GPS Tracker অ্যাপটি ইন্সটল করলে, আগে থেকেই আপনি সে বিষয়ে সতর্ক বার্তা পেতে পারেন।

এই অ্যাপটির ডেভেলপারেরা দীর্ঘ ভ্রমণকারীদের কথা মাথায় রেখে অ্যাপ এর ভেতরে মানচিত্র তৈরি করেছেন। এই অ্যাপটি আপনার বর্তমান অবস্থান এর উচ্চতা পরিমাপ, আপনার অবস্থান এর অক্ষাংশ এবং দ্রাঘিমাংশের স্থানাঙ্ক ডিগ্রী, এবং UTM-WSG84 বা Universal Transverse Mercator coordinate system প্রদান করে থাকে। আপনি এই অ্যাপটির মাধ্যমে অন্য ব্যবহারকারীদের নিদিষ্ট রাস্তাও Load করতে পারেন এবং এলার্ম সেট করতে পারেন। এক্ষেত্রে যদি আপনি আপনার সেই গন্তব্য থেকে দূরে চলে যান, যেখানে আপনার থামার কথা, তবে সেটি অতিক্রম করলে এলার্ম বাজবে।

A-GPS Tracker

Official Download @ A-GPS Tracker

৪. Geo Tracker

Geo Tracker

Geo Tracker ও অন্যান্য সব জিপিএস ট্র্যাকিং অ্যাপগুলোর মতো, সেসব অ্যাপ গুলোর মধ্যে থেকে আপনি এই অ্যাপটিকে ও বিবেচনায় রাখতে পারেন। এই অ্যাপটি A-GPS Tracker অ্যাপের মতোই। এটি মূলত এমন লোকদের জন্য বানানো হয়েছে, যারা মরুভূমিতে বা ফাঁকা জায়গায় সময় কাটায়, তবে এটি যেকোনো পরিবেশে ও কাজ করতে পারে।

এই অ্যাপটি মানচিত্রে আপনার অবস্থান সনাক্ত করবে এবং সেই-সঙ্গে আপনার গতি, উচ্চতা, উল্লম্ব দূরত্ব (আরোহণ এবং অবতরণ এর জন্য), ঢালুর বাঁক এর মত অতিরিক্ত তথ্য আপনাকে সরবরাহ করবে। এই অ্যাপের মাধ্যমে সমস্ত ট্র্যাকিং আপনি GPX এবং KML ফরমেটে আপনার মোবাইলে সংরক্ষণ করতে পারবেন এবং পরবর্তীতে আপনি সেগুলোকে Google earth ও Ozi Explorer অ্যাপের মাধ্যমে Open করতে পারবেন।

এই অ্যাপটির মাধ্যমে অন্যতম কাজ হচ্ছে, ভ্রমণের সময় আপনার দূরত্ব পরিমাপ করা। এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি খুবই সূক্ষ্মভাবে আপনার ভ্রমণের হিসাব করতে পারবেন। এই ম্যাপটি চালু করে আপনি যখন কোথাও ভ্রমণ করবেন, তখন ম্যাপে আপনার ভ্রমণের একটি রেখা প্রদর্শিত হবে এবং আপনি কত দূরত্ব অতিক্রম করেছেন, সেটিও দেখতে পারবেন। এর পরবর্তীতে আপনি সেই তথ্যকে আপনার মোবাইলের মেমোরিতে সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন এবং চাইলে যে কারও সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন।

এই অ্যাপের অন্যান্য ফিচার গুলোর মধ্যে রয়েছে, এই অ্যাপটিতে Yandex Maps সমর্থন করে। আপনি যদি এমন কোন দেশে থাকেন, যেখানে গুগল ম্যাপ এর চাইতে Yandex Maps অধিক উন্নত, যেমনঃ রাশিয়া। এক্ষেত্রে Yandex Maps ব্যবহারের ফলে এটি আপনার ভ্রমণে আরো আকর্ষণীয় মাত্রা যোগ করতে পারে।

সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ যে, এই অ্যাপটির মাধ্যমে আপনি আপনার লোকেশন আপনার বন্ধু-বান্ধব এবং আপনার পরিবারের লোকজনের কাছে শেয়ার করতে পারেন।

Geo Tracker

Official Download @ Geo Tracker

৫. Google Maps

Google maps

আপনি কি এখন পর্যন্ত জানেন যে, আপনার বন্ধু এবং আপনার পরিবারের কোনো সদস্যকে ট্র্যাক করতে আপনি গুগল ম্যাপ কে ব্যবহার করতে পারেন? অন্যান্যদের মত আপনিও হয়তোবা শুরু থেকেই গুগল ম্যাপ কে ব্যবহার করেন। কিন্তু আপনি এখনো পর্যন্ত জানেন না যে, আপনি গুগল ম্যাপ কে ব্যবহার করে কোন একজন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করতে পারেন। আপনাদের মধ্যে অনেকেই হয়তোবা গুগল ম্যাপ কে ব্যবহার করে কোন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করার প্রক্রিয়াটি জেনে থাকতে পারেন। তবে এখনো যারা জানেন না তাদের জন্য বলে রাখি যে, আপনি গুগল ম্যাপ কে ব্যবহার করে কোন একজন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করতে পারেন।

গুগল ম্যাপের মাধ্যমে কোন একজন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করার প্রক্রিয়াটি মূলত আপনার লোকেশন শেয়ার করার উপর নির্ভর করে, তাই কিছু পরিস্থিতিতে এটি আপনার জন্য সেরা বিকল্প নাও হতে পারে। তবে আপনার বর্তমান লোকেশন কারও সঙ্গে শেয়ার করতে অথবা অন্য কারো লাইভ লোকেশন দেখার জন্য অবশ্যই গুগল ম্যাপ আপনার জন্য বেস্ট হতে পারে।

গুগল ম্যাপস এর মাধ্যমে কিভাবে আপনি আপনার লোকেশন বন্ধুদের সঙ্গে শেয়ার করবেন, তা জানতে চাইলে নিচের নির্দেশনাবলী অনুসরণ করুন।

১. এজন্য প্রথমে আপনাকে চলে যেতে হবে আপনার মোবাইলের Google Maps অ্যাপ টিতে। এরপর উপরে থেকে আপনার প্রোফাইল আইকনটিতে ক্লিক করতে হবে, যেমনটি আপনি নিচের দ্বিতীয় চিত্রে দেখতে পাচ্ছেন।

Google maps home page

২. এবার আপনি এখানে পেয়ে যাবেন Location sharing নামের একটি অপশন এবং আপনি এখানে ক্লিক করবেন।

Google maps location sharing

৩. তারপর নিচের মত একটি পেজ দেখতে পাবেন এবং যেখান থেকে আপনি Share location লেখাতে ক্লিক করবেন।

Google maps share location

৪. এবার আপনি যার কাছে আপনার লোকেশন টি শেয়ার করবেন, সে কতক্ষণ ধরে আপনার লাইভ লোকেশন টি দেখতে পাবে, সেটি এখান থেকে সেট করে দিবেন। সময় নির্ধারণ করে দেবার জন্য এখানে (+) এবং (-) বাটন পেয়ে যাবেন। এখান থেকে আপনি সর্বনিম্ন সময় হিসেবে ১৫ মিনিট করে দিতে পারবেন। এবার সময় নির্ধারণ করে দেবার পর, আপনি যে মাধ্যমে তাকে লিঙ্কটি শেয়ার করতে চাচ্ছেন, সেটির উপর ক্লিক করে তাকে লিংক শেয়ার করুন।

share location time

৫. এর পরবর্তীতে আবার আপনি নিচের চিত্রের মত দেখতে পাবেন, যেখান থেকে আপনি আবার Share লেখাতে ক্লিক করে পরবর্তী ধাপে গিয়ে সেই ব্যক্তির কাছে শেয়ার করবেন।

share location link

৬. কোন একজন ব্যক্তিকে আপনার লাইভ লোকেশন দেখার লিংক শেয়ার করলে, ম্যাপে চলে আসার পর আপনি নিচের মত দেখতে পাবেন। এখানে আপনি ক্লিক করার পর সেই লিংকটি আরো অন্যান্য জনকে শেয়ার করার অপশন পেয়ে যাবেন এবং সেই লিঙ্ক এর কার্যকারিতা ও এখান থেকে বন্ধ করতে পারবেন। আপনার লোকেশন টি আরো অন্যান্য ব্যক্তির কাছে শেয়ার করার জন্য Copy link ব্যবহার করবেন এবং সেই লিঙ্ক এর কার্যকারিতা বন্ধ করার জন্য Stop লেখাতে ক্লিক করবেন।

share location link stop

এভাবে করে কোন একজন ব্যক্তিকে আপনার লাইভ লোকেশন এর লিংক শেয়ার করে রাখলে, আপনি বর্তমানে যে অবস্থানে রয়েছেন, অপর-প্রান্তের ব্যক্তি তার মোবাইল থেকে আপনার অবস্থান দেখতে পাবে। এক্ষেত্রে লিংক এর কার্যকারিতা থাকা অবস্থায় আপনি যদি সেই অবস্থান থেকে অন্য অবস্থানে যান, তবুও সেই ব্যক্তি আপনার অবস্থান দেখতে পাবে। অর্থাৎ এক কথায় বলতে গেলে, লিংক এর মেয়াদ থাকা অবস্থায় সেই ব্যক্তি আপনার লাইভ লোকেশন দেখতে পাবে। বিশেষ করে, আপনি এই ফিচারটি কাজে লাগাতে পারেন কোন জায়গায় ভ্রমণের সময়। এক্ষেত্রে আপনি আপনার লাইভ লোকেশন এর লিংক আপনার পরিবার এবং বন্ধুবান্ধবের কাছে শেয়ার করে রাখতে পারেন, যাতে তারা আপনার সঙ্গে যোগাযোগ না করে ও আপনার বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে জানতে পারে।

মনে রাখবেন যে, যদি আপনি Google family group এর সদস্য হন, তবে আপনার ইতিমধ্যেই আপনার অংশগ্রহণকারী সকল সন্তানদের GPS Location এর অ্যাক্সেস থাকবে। এবং আপনি Google Assistant-কে ব্যবহার করে কোনো একটি ফোনকে ট্র্যাক করতে পারবেন। গুগল ম্যাপস এর মাধ্যমে ট্র্যাকিং এর ফলে আপনি কোন কোন বিষয়ে সুবিধা নিতে পারেন, সে বিষয়গুলো এই টিউনে বললে টিউনটি অনেক বেশি দীর্ঘ হয়ে যাবে। তাই আমার পরবর্তী কোন টিউনে এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করা যাবে ইনশাআল্লাহ। তখন গুগল ম্যাপস এর লোকেশন শেয়ারিং বা ট্র্যাকিং এর বিষয়টি নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা যাবে।

Google Maps

Official Download @ Google Maps

৬. Life360

Life360

Life360 সার্কেল ব্যবহার করে, আপনি কার সঙ্গে আপনার লোকেশন শেয়ার করতে চাচ্ছেন, এটিকে আপনি পরিচালনা করতে পারেন। এক্ষেত্রে অনেকগুলো ব্যক্তিকে ট্র্যাক করার জন্য আপনি আলাদা আলাদা করে সার্কেল তৈরি করে রাখতে পারবেন এই অ্যাপ এর মাধ্যমে। যেমন ধরুন আপনার বন্ধু, আপনার পরিবার এবং আত্মীয়-স্বজন ইত্যাদি। আপনি যদি আপনার বন্ধু-বান্ধব বা পরিবারের সদস্যদেরকে ট্র্যাক করতে একটি অ্যাপ চান, তবে এই অ্যাপটি আপনার পরীক্ষা করা উচিত।

এই অ্যাপের মাধ্যমে কোন একজন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করার জন্য সেই ব্যক্তির ডিভাইস থেকে একটি কোড নিতে হয়। এরপর সেই কোড নিজেরই ডিভাইসে বসিয়ে সেই ব্যক্তির অবস্থান জানা যায়।

এছাড়া আপনি যখন আপনার লোকেশন শেয়ার করতে চাইবেন, তখন আপনি আপনার তৈরি করা সার্কেল এর মধ্য থেকে যে কোন একটিকে পছন্দ করতে পারেন এবং তাদের মাঝে আপনার লোকেশন শেয়ার করতে পারেন। উদাহরণস্বরূপ, যেমন ধরুন আপনি আপনার লোকেশন টি বন্ধুদের সঙ্গে শুধুমাত্র রাতের বেলা শেয়ার করতে চাইতে পারেন, কিন্তু সপ্তাহের বাকী সময় গুলোতে নয়। এখানে Circle আপনাকে সেই স্তরের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ প্রদান করে। যেখানে আপনি আপনার লাইভ লোকেশন এবং পরিবারের অন্যান্য সদস্যের মাঝে একসঙ্গে একাধিক ব্যক্তির সাথে শেয়ার করতে পারেন। আর এজন্য অবশ্যই আপনাকে প্রথমে আপনার বন্ধু বান্ধবী বা আত্মীয় স্বজনকে নিয়ে অ্যাপ এর ভিতরে একটি করে Circle তৈরি করতে হবে।

প্রতিটি সার্কেলের জন্য একটি Private Map রয়েছে এবং সেইসঙ্গে Private message service এর ও ব্যবস্থা রয়েছে, যা শুধুমাত্র সেই circle-এর সদস্যরাই দেখতে পাবে।

Life360

Official Download @ Life360

৭. Geozilla Family GPS Locator

GeoZilla Family GPS Locator

Geozilla Family GPS Locator আপনার বন্ধু এবং পরিবারের কে ট্র্যাক করার আরো একটি চমৎকার অ্যাপ। অন্যান্য অনেক লোকেশন শেয়ারিং অ্যাপ এর বিপরীতে Geozilla Family GPS Locator অ্যাপটি আপনার ফোনের ব্যাটারি কম ড্রেন করে। অর্থাৎ, এই অ্যাপটি আপনার মোবাইলের ব্যাটারি কে অন্যান্য অ্যাপ এর তুলনায় কম খরচ করে। আর এর কারণ হচ্ছে, এই অ্যাপটি নিশ্চিত করে যে, আপনি যদি কম দূরত্ব হাঁটেন, তবে এই অ্যাপটি নিজে থেকে কাজ করবেনা। এর বদলে, এটি কেবল তখনই রেকর্ডিং শুরু করবে, যখন আপনি যথেষ্ট দূরত্বে সরে যাবেন।

এই অ্যাপটি অন্যান্য ফিচার এর মধ্যে রয়েছে, আপনার পরিবারের কোনো সদস্য যখন নির্দিষ্ট একটি গন্তব্যে পৌঁছাবে তখন আপনাকে সতর্কবার্তা দেওয়া, ম্যাপে এক সপ্তাহের লোকেশন হিস্টরি গুলো দেখা, এবং লোকেশন ভিত্তিক কাজগুলোকে পরিবারের অন্যান্য সদস্যের সঙ্গে শেয়ার করে নিয়ে করার সুযোগ রয়েছে।

Geozilla Family GPS Locator

Official Download @ Geozilla

মানুষের ট্র্যাক করার আরো অন্যান্য উপায়

উপরে আলোচনা করা মোবাইল অ্যাপ একমাত্র উপায় নয় কোন একজন ব্যক্তিকে ট্র্যাক করার, যাকে আপনি নজরদারি করতে চাচ্ছেন। তবে বর্তমানে কোন একজন ব্যক্তিকে বৈধ পন্থায় নজরদারি করতে অবশ্যই এসব অ্যাপগুলোকে ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে উপরে আলোচনা সমস্ত অ্যাপস গুলোকেই কিন্তু অনুমতি নিয়ে ব্যবহার করতে হয়। অর্থাৎ, আপনি যে ব্যক্তিকে ট্র্যাক করতে চাইবেন, এক্ষেত্রে অবশ্যই সেই ব্যক্তির অনুমতি লাগবে। কেননা তার ডিভাইসে সেসব অ্যাপ থেকে অনুমতি দেবার পরেই আপনি আপনার ডিভাইস থেকে তার লাইভ লোকেশন দেখতে পাবেন।

মনে রাখবেন যে, কিছু গোপনীয়তার দৃষ্টিকোণ থেকে এই অ্যাপ গুলো সন্দেহাতীতভাবে আক্রমণাত্মক। কেননা এসব অ্যাপ গুলোর মাধ্যমে আপনার লাইভ লোকেশন অন্য কেউ দেখতে পাচ্ছে। তাই আপনি যদি কাউকে আপনার লাইভ লোকেশন দেখার অনুমতি দিয়ে থাকেন, তবে অবশ্যই আপনি একবার বিবেচনা করে দেখবেন। এক্ষেত্রে সেই ব্যক্তিকে আপনার লাইভ লোকেশন দেখতে দিলে আপনার কোন ক্ষতি হবে কি না, তা বিবেচনায় রাখা উচিত। আর সেই-সঙ্গে আপনারও উচিত, কাউকে ট্র্যাক করার আগে আপনিও নিশ্চিত করুন যে, আপনার কাছেও তাকে ট্র্যাক করার সুস্পষ্ট অনুমতি রয়েছে।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *