ঢাকা, সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৭ অপরাহ্ন
কোথায় কন্যাশ্রী! দক্ষিণ দিনাজপুরে ১৪ বছরেই ছাদনাতলায় পাত্রী, চলছে বোনের বিয়ের কথাও
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

কোথায় কন্যাশ্রী! দক্ষিণ দিনাজপুরে ১৪ বছরেই ছাদনাতলায় পাত্রী, চলছে বোনের বিয়ের কথাও

 সে এক সময় ছিল, দুধের দাঁত পড়তে না পড়তে বিয়ে হয়ে যেত বাঙালি মেয়েদের। অবিবাহিতা মেয়ের বয়স বেড়ে গেলে বাড়ির লোকের কাছে সে গলগ্রহ ছাড়া আর কিছুই নয়। কিন্তু সময় পাল্টেছে। নাবালিকা বিয়ে (Immature Marriage) বাংলায় এখন বেআইনি। এমনকি মেয়েদের তাড়াতাড়ি বিয়ে ঠেকাতে, আরও পড়াশোনায় উৎসাহ যোগাতে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘কন্যাশ্রী’র (Kanyasree) মতো প্রকল্প চালু করেছেন।

কিন্তু কোথায় কী! দক্ষিণ দিনাজপুরের (South Dinajpur) গ্রামের এক পরিবারে এসবের আঁচ লাগেনি। এখনও সেখানে উনিশ শতক থমকে আছে। আর তাই সেখানে ১৪ বছরের ছোট মেয়ে সাতপাঁকে বাধা পড়েছে ইতিমধ্যেই। এখন সে মাস দুয়েকের অন্তঃসত্ত্বা।


শুধু তাই নয়, মেয়েটির ঠাকুমা তার বোনের বিয়ে দেওয়ারও চেষ্টা চালাচ্ছেন প্রাণপণে। বোনের বয়স ১০। পাড়া প্রতিবেশীদের আশঙ্কা, আর বছর দুই-তিনের মধ্যে বোনটিরও সিঁথিতে সিঁদুর উঠবে।

এই বাংলার এক গ্রামেই কেন ২০২১ সালে দাঁড়িয়ে এই ছবি দেখা যাচ্ছে?

কন্যাদের বিয়ে দেওয়া ঠাকুমা জানিয়েছেন, ওদের বাবা মা নেই। পরিবারের আর্থিক সংস্থানও ভাল নয়। তাই তাড়াতাড়ি পরের ঘরে মেয়েকে পাঠিয়ে দায় সেরেছেন তিনি। যাতে মেয়ে ভাল করে খেয়ে পরে বাঁচতে পারে। ছোটটির জন্যেও তেমন ব্যবস্থা করার কথা ভাবা হচ্ছে।

কিন্তু আইন? সেদিকে তেমন কোনও ভ্রূক্ষেপ নেই ঠাকুমার। আইন পাত্তা দিচ্ছেন না মেয়ের শ্বশুরবাড়ির লোকজনও। তাঁদের বক্তব্য, গরিব ঘরের মেয়ে, বাপ-মা নেই, বিয়ে দিয়ে ঘরে নিয়ে এসে ওকে উদ্ধার করা হয়েছে। শ্রীঘরে যাওয়ার ভয় নেই কোনও পক্ষেরই।

স্থানীয় পুলিশ প্রশাসনের কাছে এমন ঘটনার কোনও খোঁজ নেই। খবর পেয়ে তারা তদন্তের আশ্বাস দিয়েছে।খবর  দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *