ঢাকা, সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৬ অপরাহ্ন
প্রাণঘাতী ডেঙ্গি ছড়াচ্ছে যোগী রাজ্যে, বাড়ছে শিশুমৃত্যু, আক্রান্ত ১২ হাজারের বেশি
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

প্রাণঘাতী ডেঙ্গি ছড়াচ্ছে যোগী রাজ্যে, বাড়ছে শিশুমৃত্যু, আক্রান্ত ১২ হাজারের বেশি

 একে করোনায় রক্ষে নেই ডেঙ্গি (Dengue) দোসর!


ভয়ঙ্কর ডেঙ্গি ছড়াচ্ছে উত্তরপ্রদেশে। সবচেয়ে খারাপ অবস্থা ফিরোজাবাদ জেলার। গত দু’সপ্তাহে ওই জেলায় ডেঙ্গি আক্রান্ত হয়ে ১১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে, যার মধ্যে ৮৮ জন শিশু। হাসপাতালে রোগ নিয়ে ভর্তি ১২ হাজারের বেশি। হাসপাতালগুলিতে শয্যার আকাল, ব্লাড ব্যাঙ্কগুলিতে রক্ত পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ।

উত্তরপ্রদেশের সরকারি হাসপাতালগুলির অবস্থা রীতিমতো করুণ। জেলায় ডেঙ্গি এতটাই ছড়িয়ে পড়েছে যে হাসপাতালগুলিতে জায়গা হচ্ছে না। রবিবারই ন্যাশনাল সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের টিম পৌঁছেছে ফিরোজাবাদে। বাড়ি বাড়ি ঘুরে ডেঙ্গি আক্রান্তকে চিহ্নিত করা হচ্ছে।

ফিরোজাবাদে প্রাণঘাতী ডেঙ্গি ছড়িয়েছে তা মেনে নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকও। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক দীনেশকুমার প্রেমি বলেছেন, রিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য ৭৫৫টি দল গঠন করা হয়েছে। রবিবার ৬৪টি বিশেষ শিবির করা হয়েছিল। চার হাজারের বেশি মানুষ পরীক্ষা করিয়েছেন। অনেকেরই ডেঙ্গি ধরা পড়েছে। ডেঙ্গি রুখতে মশার লার্ভা নির্মূলের লক্ষ্যে জেলা জুড়ে ২৫ হাজার গাপ্পি মাছ ছাড়ার কথা জানিয়েছে জেলা প্রশাসন। উত্তরপ্রদেশের পশ্চিমাংশে মথুরা ও আগরায়ও ডেঙ্গি ছড়িয়ে পড়ছে বলে সরকারি সূত্রের খবর।

ডেঙ্গু ভাইরাস হল সিঙ্গল, পজিটিভ-স্ট্র্যান্ডেড আরএনএ ভাইরাস।  করোনারই মতো মারাত্মক সংক্রমণ ছড়াতে পারে। এদের পাঁচ রকমের সেরোটাইপ আছে যারা প্রত্যেকেই ভয়ঙ্কর রোগ তৈরি করতে পারে।  স্ত্রী এডিস ইজিপ্টাই  মশা এই ভাইরাসদের বাহক। ডেঙ্গি ভাইরাস শরীরে ঢুকে খুব দ্রুত বংশবৃদ্ধি করতে পারে। সংখ্যায় বাড়তে বাড়তে দেহের রোগ প্রতিরোধের দফারফা করে দেয়। যার প্রভাবেই সারা শরীরে অসহ্য ব্যথা-সহ জ্বর, সঙ্গে বমি বমি ভাব, চোখের পিছনে ব্যথা এবং সারা শরীরে র‌্যাশ। ক্রনিক অসুখ আছে যাদের যেমন ডায়াবেটিস, অ্যাজমা, অ্যানিমিয়া, টিবি আছে তাদের এবং বয়স্কদের ক্ষেত্রে ডেঙ্গি প্রাণঘাতী হতে পারে। খবর ওয়ালের /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *