ঢাকা, বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০৪ অপরাহ্ন
কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে মিসাইল পরীক্ষা উত্তর, দক্ষিণের, দুই কোরিয়ার সংঘাত চরমে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে মিসাইল পরীক্ষা উত্তর, দক্ষিণের, দুই কোরিয়ার সংঘাত চরমে

পরস্পরকে সামরিক শক্তি প্রদর্শনের লড়াইয়ে নামল দুই কোরিয়া? উত্তর ও দক্ষিণ! (north and south korea) কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের (ballistic missile)পরীক্ষামূলক উতক্ষেপণ করল দুই প্রতিদ্বন্দ্বী। এমনিতেই উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কর্মসূচি বন্ধ করতে কূটনৈতিক  চাপ রয়েছে। তার মধ্যেই এই সংঘাতের পরিস্থিতি। (tension)

বুধবার প্রথমে  উত্তর কোরিয়া দুটি স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক মিসাইল পরীক্ষামূলকভাবে ছোঁড়ে, যা  চিহ্নিত করে দক্ষিণ  কোরিয়ার সামরিক বাহিনী। সোমবারও উত্তর কোরিয়া গত ৬ মাসে প্রথম একটি নতুন তৈরি  করা ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছুঁড়েছে বলে জানায়। বিশেষজ্ঞদের মত, উত্তর কোরিয়া বন্ধ থাকা পরমাণু অস্ত্র সংক্রান্ত আলোচনা ফের চালুর জন্য আমেরিকার ওপর চাপ সৃষ্টির পাশাপাশি নিজের অস্ত্রভাণ্ডার, সামরিক সাজসজ্জা বাড়িয়ে যেতে চাইছে।  পিয়ংইয়ঙের শক্তি দেখানোর কয়েক ঘন্টা পরই সিওল তার প্রথম জলের তলায় ব্যালিস্টিক মিসাইল টেস্ট করেছে বুধবার   দুপুরে। তারা বলেছে, দেশীয় প্রযুক্তিতে নির্মিত ক্ষেপণাস্ত্রের উতক্ষেপণ হয়েছে ৩ হাজার টন শ্রেণির সাবমেরিন থেকে, সেটি পূর্বনির্ধারিত দূরত্বে উড়ে গিয়ে নির্দিষ্ট নিশানায় আঘাত করেছে। সিওলের বিবৃতিতে বলা হয়েছে ক্ষেপণাস্ত্রটি দক্ষিণ  কোরিয়াকে বাইরের দুনিয়ার সম্ভাব্য বিপদ থেকে রক্ষা করবে, আত্মরক্ষার্থে নেওয়া তার অবস্থানকে মজবুত করবে, কোরীয় উপদ্বীপ এলাকায় শান্তি জোরদার করবে।

পর্যবেক্ষকদের মত, দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জা-ইনের সরকার হয়তো উত্তরের প্রতি অতিরিক্ত নরম বলে নানা মহলের সমালোচনার জবাব দিতেই মিসাইল পরীক্ষা করল। ঘটনাচক্রে তারা উত্তরের সঙ্গে বিবাদ মিটিয়ে নিতে সক্রিয় তত্পরতা চালাচ্ছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার সামরিক বাহিনী জানায়, উত্তর কোরিয়ার ছোঁড়া মিসাইল কোরিয় উপদ্বীপ  ও জাপানের মাঝখানে জলে  পড়ে যাওয়ার আগে প্রায় ৮০০  কিমি দূর উড়ে গিয়েছিল।

ইন্দো-প্যাসিফিক কম্যান্ড বলেছে, উত্তর কোরিয়ার মিসাইল উতক্ষেপণ কোনও মার্কিন ব্যক্তি বা ভূখণ্ড বা আমাদের শরিকদের কোনও বিপদ ঘটায়নি এখনও। তবে পিয়ংইয়ঙের  বেআইনি ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচির অস্থিরতা ছড়াবে, উল্লেখ করেছে তারা।

জাপানও উত্তর কোরিয়ার মিসাইল উতক্ষেপণকে অঞ্চলের শান্তি, নিরাপত্তার সামনে বিপদ বলে জানিয়েছে। জাপানের প্রধানমন্ত্রী সুগা বলেছেন, জাপানের শান্তি, নিরাপত্তা বিপন্ন করে তুলেছে এই উতক্ষেপণ, তা সম্পূর্ণ জঘন্য। জাপান সরকার যে কোনও জরুরি পরিস্থিতির জন্য তৈরি থাকতে আমাদের নজরদারি, পাহারা জোরদার করতে দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তাদের কোনও জাহাজ বা যু্দ্ধবিমান ক্ষেপণাস্ত্রের জন্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি বলে জানিয়েছে জাপ উপকূল রক্ষী বাহিনী।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *