ঢাকা, বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২৬ অপরাহ্ন
বেহাল আফগান অর্থনীতি, আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা বন্ধ, বেতন নেই তালিবান যোদ্ধাদের!
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

বেহাল আফগান অর্থনীতি, আন্তর্জাতিক আর্থিক সহায়তা বন্ধ, বেতন নেই তালিবান যোদ্ধাদের!

তালিবান আফগানিস্তানে ক্ষমতায় ফিরেছে বটে, তবে তীব্র আর্থিক অনটনের মধ্যে আছে তারা। কোষাগারে অর্থ নেই। অধিকাংশ দেশই তালিবান শাসনকে স্বীকৃতি  দিতে নারাজ। আফগানিস্তানের ইসলামি আমিরি শাসনকে মানতে অস্বীকার করে আর্থিক সহায়তা বন্ধ করেছে তারা। আর্থিক সঙ্কটের মধ্যে ব্যাঙ্ক থেকে টাকা তোলার ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দিয়েছে তালিবান। এ তো গেল সাধারণ মানুষের কথা। এবার দি নিউ ইয়র্ক পোস্ট-এর এক প্রতিবেদনে প্রকাশ, গত কয়েক মাস বেতনই পায়নি তালিবান যোদ্ধারা।

তালিবান কাবুলের মসনদে বসার পর থেকে বিদেশি সাহায্য আসা বন্ধ। লোন আটকে দিয়েছে আইএমএফ, বিশ্বব্যাঙ্ক। আফগান সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ককে ৯.৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলার পাঠানোর কথা ছিল। তা বন্ধ রেখেছে আমেরিকা। ফিনান্সিয়াল অ্যাকশন টেকন ফোর্স (এফএটিএফ) তালিবানের সম্পদ ব্লক করে দিতে বলেছে ৩৯টি সদস্য দেশকে।

এমন পরিস্থিতিতে ভেঙে পড়ার মুখে আফগান অর্থনীতি। দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি অবশ্যম্ভাবী। চলতি সপ্তাহেই রাষ্ট্রপুঞ্জ হুঁশিয়ারি দিয়েছে, আফগান জনসংখ্যার ৯৭ শতাংশ গরিবি রেখার নীচে চলে যেতে পারে। তালিবান ক্ষমতায় আসার আগে যা ছিল ৭২ শতাংশ।

মার্কিন সংবাদপত্রটির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রধান শহরগুলির বাইরে অনেক জায়গায় তালিবান যোদ্ধারা দিন কাটাচ্ছে সামান্য খাবার খেয়ে, ঘুমোচ্ছে ট্রাকে বা যখন যেখানে যেমন আশ্রয় মিলছে, সেখানে। স্থানীয় বাসিন্দারা মানবিকতার খাতিরে তালিবান সদস্যদের খাবার দাবার দিচ্ছেন।

যেসব বাসিন্দারা দূরে কোথাও যাবেন, তাঁদের ব্যাঙ্ক থেকে ২০০ মার্কিন ডলার তোলার ঊর্ধ্বসীমা বেঁধে দিয়েছে তালিবান। ব্যাঙ্কের বাইরেও সাপের মতো এঁকেবেঁকে গিয়েছে লাইন। অনেক ব্যাঙ্ক তালিবান জমানায়. বন্ধ হয়ে গিয়েছে। যেগুলি খোলা, সেগুলিও ধুঁকছে।

এদিকে প্রায় ৪০ লাখ আফগান ফুড এমার্জেন্সির সম্মুখীন, এদের বেশিরভাগই থাকেন গ্রামে, জানিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জ। বলেছে, আগামী কয়েক মাসে ওদের শীতের গমের বীজ রোপন, গৃহপালিত পশুর খাবার সঞ্চয়, বিপন্ন পরিবার, বয়স্ক, প্রতিবন্ধীদের নগদ সহায়তা-সব মিলিয়ে ৩৬ মিলিয়ন ডলার প্রয়োজন।

যদিও গত সোমবার জেনেভায় রাষ্ট্রপুঞ্জের এক বৈঠকে আন্তর্জাতিক মহল আফগানিস্তানের জনগণকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার মানবিক সহায়তা বাবদ দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তালিবানের অস্থায়ী বিদেশমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি এজন্য বিশ্ব সম্প্রদায়কে ধন্যবাদ জানিয়ে আমেরিকা সহ দুনিয়ার সব দেশের সঙ্গে তাঁরা সুন্দর দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক চান বলে জানিয়েছেন।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *