ঢাকা, রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১১:৫৮ অপরাহ্ন
সস্ত্রীক অভিষেক ইডি-র বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে, রাজধানীতে তলব নিয়ে মামলা
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

সস্ত্রীক অভিষেক ইডি-র বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে, রাজধানীতে তলব নিয়ে মামলা

 কলকাতা পুলিশের (kolkata police) নোটিস নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টে (delhi high court) মামলা দায়ের করেছে কেন্দ্রীয় এজেন্সি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটm (enforcement directorate)। সেইসঙ্গে আদালতে ইডি এও বলেছে, কলকাতা পুলিশকে ব্যবহার করে কয়লা কাণ্ডে (coal scam) তদন্তকারীদের উপর চাপ তৈরি করে তদন্ত ভেস্তে দিতে চাইছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (avishek banerjee)। সেই মামলা দিল্লি হাইকোর্ট গ্রহণ করে জানিয়েছে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর তার শুনানি হবে।


এর মধ্যেই শুক্রবার জানা গিয়েছে ইডির বিরুদ্ধে ওই দিল্লি হাইকোর্টেই পাল্টা মামলা দায়ের করেছেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সস্ত্রীক অভিষেক এই মামলা দায়ের করেছেন ।


কয়লা কাণ্ডে অভিষেক ও তাঁর স্ত্রী রুজিরা নারুলাকে দিল্লিতে তলব করেছিল ইডি। রুজিরা চিঠি লিখে ইডিকে জানিয়ে দেন, দুই শিশু সন্তানকে একা কলকাতায় রেখে তাঁর পক্ষে দিল্লি যাওয়া সম্ভব না। ইডি আধিকারিকরা যদি তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চান তাহলে বাড়িতে এসে করতে পারেন।

তবে অভিষেক দিন পনেরো আগে দিল্লি গিয়ে ইডি দফতরে হাজিরা দিয়েছিলেন। ন’ঘণ্টা তাঁকে জেরা করা হয়েছিল সেদিন। কলকাতা থেকে দিল্লি উড়ে যাওয়ার আগেই অভিষেক বলেছিলেন, উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবেই কলকাতার মামলা দিল্লি টেনে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। জেরা শেষে বেরিয়ে ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ এও বলেছিলেন, প্রতিহিংসার কাছে মাথা নত করব না। সেই জেরার পর অভিষেককে আবার ডেকেছে ইডি। ২১ সেপ্টেম্বর হাজিরা দিতে বলা হয়েছে দিল্লিতে।

প্রসঙ্গত, ভবানীপুরের উপনির্বাচন উপলক্ষে চেতলার কর্মিসভা থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন, তাঁকে আঘাত করতে অভিষেককে দাকা হচ্ছে। ইডির উদ্দেশে দিদি এও বলেছিলেন, কলকাতার মামলা দিল্লিতে ডাকছেন কেন? কলকাতায় তো আপনাদের অফিস রয়েছে। ক্ষমতা থাকলে এখানে ডাকুন। এবার কলকাতার মামলায় দিল্লিতে তলব করা নিয়ে সরাসরি দিল্লি হাইকোর্টেই মামলা ঠুকে দিলেন অভিষেক-রুজিরা।খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *