ঢাকা, সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫০ পূর্বাহ্ন
কাশ্মীরে হকারকে গুলি, দু’সপ্তাহে জঙ্গিদের হাতে নিহত ৯ জন নিরীহ মানুষ
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

কাশ্মীরে হকারকে গুলি, দু’সপ্তাহে জঙ্গিদের হাতে নিহত ৯ জন নিরীহ মানুষ

শনিবার কাশ্মীরে এক ফুচকা বিক্রেতা ও এক কাঠের মিস্ত্রিকে গুলি করে মারে জঙ্গিরা (Militants)। ফুচকা বিক্রেতার নাম ছিল অরবিন্দ কুমার শা। তিনি এসেছিলেন বিহার থেকে। শ্রীনগরে তাঁকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করা হয়। নিহত কাঠের মিস্ত্রির নাম ছিল সাগির আহমেদ। তাঁকে হত্যা করা হয়েছে পুলওয়ামায়। কাশ্মীর পুলিশ এদিন প্রথমে টুইট করে বলেছিল, “শ্রীনগরে এবং পুলওয়ামায় দু’জনকে গুলি করেছে। শ্রীনগরে অরবিন্দ কুমার শা মারা গিয়েছেন। পুলওয়ামায় সাগির আহমেদের অবস্থা সংকটজনক।” পরে পুলিশ জানায়, সাগির আহমেদও মারা গিয়েছেন।

জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লা বলেন, “শ্রীনগরে সন্ত্রাসবাদী হামলার তীব্র নিন্দা করছি। অরবিন্দ কুমার জীবিকা অর্জনের জন্য শ্রীনগরে এসেছিলেন।” জম্মু-কাশ্মীর পিপলস কনফারেন্সের নেতা সাজ্জাদ লোন টুইট করে বলেন, “সন্ত্রাসবাদী হামলায় এক বহিরাগত ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। খুবই লজ্জার বিষয়।”

গোয়েন্দা সূত্রে খবর মিলেছে, সম্প্রতি পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মুজফফরাবাদে জঙ্গি সংগঠনের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন পাক গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-এর আধিকারিকেরা। সেখানেই ভারতীয়দের হত্যার ছক কষা হয়েছে বলে আশঙ্কা। জম্মু ও কাশ্মীরে বড়সড় হামলার পরিকল্পনা করা হয়েছে বলেও জানা গেছে। কাশ্মীর পুলিশ, সেনাবাহিনী বা গোয়েন্দাদের সঙ্গে কাজ করে, এমন কর্মীদের চিহ্নিত করে হত্যা করা হতে পারে। পাশাপাশি সেই তালিকায় রয়েছে বহু কাশ্মিরী পণ্ডিতের নামও।


জম্মু ও কাশ্মীরের রাজৌরি-পুঞ্চ এলাকায় প্রবল তল্লাশি চলছে সেনা-পুলিশের যৌথ উদ্যোগে। ১১ তারিখ এই এলাকাতেই সন্ত্রাসবিরোধী অভিযান চালাতে গিয়ে এক জুনিয়র কমিশনড অফিসার (জেসিও)-সহ পাঁচ সেনা কর্মী নিহত হন জঙ্গি হামলায়। এর পরে ফের ১৪ তারিখ সেখানে জঙ্গিদের গুলিতে জখম হন সেনার দুই রাইফেলম্যান, পরে তাঁরা প্রাণ হারান হাসপাতালে।

এর পরেই দ্বিগুণ শক্তিতে এলাকায় ঝাঁপিয়ে পড়েছে সেনা। দেহরা কি গালি এলাকার বনাঞ্চলে রীতিমতো চলছে চিরুনি তল্লাশি।

সেনাবাহিনীর তরফে এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সেই ১০ তারিখ থেকে জঙ্গিদের পিছনে ধাওয়া করছেন জওয়ানরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে আচমকাই পুঞ্চ জেলায় নতুন করে সেনাবাহিনীর সঙ্গে জঙ্গিদের গুলির লড়াই শুরু হয়। তাতে এক জেসিও এবং এক জওয়ান গুরুতর আহত হয়ে পরে মারা যান। এই গোটা পর্বে কোনও জঙ্গি নিহত হয়েছে কিনা, তা জানানো হয়নি এখনও। ওই এলাকায় ঠিক কত জন জঙ্গি লুকিয়ে রয়েছে, তাও এখনও জানায়নি সেনা। খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: