ঢাকা, শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৮:৩৮ পূর্বাহ্ন
কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন বিদেশ সচিব কলিন পাওয়েল
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন বিদেশ সচিব কলিন পাওয়েল

: সোমবার সকালে মারা গেলেন প্রাক্তন মার্কিন বিদেশ সচিব কলিন পাওয়েল (Colin Powell)। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮৪। তিনি কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাঁর পরিবার জানিয়েছে, তিনি কোভিড ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজই নিয়েছিলেন। ২০০১ সালে রিপাবলিকান পার্টির প্রার্থী জর্জ ডব্লু বুশ প্রেসিডেন্ট হওয়ার পরে বিদেশ সচিব হন পাওয়েল। তিনিই প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন বিদেশ সচিব। ইরাক যুদ্ধে তাঁর সক্রিয় ভূমিকা ছিল। তাঁর পরিবার থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘আমরা এক গ্রেট আমেরিকানকে হারালাম।’ পাওয়েল যে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, সেই ওয়াল্টার রিড মেডিকেল সেন্টারের কর্মীদেরও ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।

মার্কিন সংবাদ মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, পাওয়েল পার্কিনসনস রোগে ভুগছিলেন। কিছুদিন আগে তাঁর রক্তের ক্যানসার ধরা পড়ে। সেজন্যই কোভিডের কাছে পরাজিত হলেন প্রাক্তন বিদেশ সচিব। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, পাওয়েল ছিলেন তাঁর ঘনিষ্ঠ বন্ধু। যোদ্ধা ও কূটনীতিক হিসাবে তিনি ছিলেন শ্রেষ্ঠ গুণাবলীর অধিকারী।

পাওয়েলের মৃত্যুতে যাঁরা প্রথমে শোক প্রকাশ করেছেন, তাঁদের অন্যতম হলেন প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বুশ। পাওয়েলকে তিনি পারিবারিক বন্ধু বলে উল্লেখ করেন। তাঁর কথায়, “পাওয়েল ছিলেন একজন আমেরিকান হিরো।” বুশের আমলের ভাইস প্রেসিডেন্ট ডিক চেনি বলেন, পাওয়েল দেশকে ভালবাসতেন এবং দীর্ঘদিন ধরে দেশের সেবা করেছেন। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বলেন, পাওয়েল বুঝতেন, কী করলে দেশের ভাল হয়। সারা জীবন তিনি দেশের সেবা করে গিয়েছেন।


পাওয়েলের পরে বিদেশ সচিব হয়েছিলেন কন্ডোলিজা রাইস। তিনি বলেন, পাওয়েল ছিলেন প্রকৃতই একজন গ্রেট ম্যান। বর্তমান বিদেশ সচিব অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, এখনও বহু তরুণ পাওয়েলের আদর্শ মেনে চলে।

১৯৯১ সালে ইরাক যুদ্ধে আমেরিকার বিজয়ে পাওয়েলের বিরাট ভূমিকা ছিল বলে মনে করা হয়। অনেকে ভেবেছিলেন, তিনিই হবেন প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মার্কিন প্রেসিডেন্ট। পরে অবশ্য তিনি প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে দাঁড়াতে অস্বীকার করেন। রিপাবলিকান পার্টির সদস্য হওয়া সত্ত্বেও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রার্থী কৃষ্ণাঙ্গ বারাক ওবামাকে সমর্থন করেন তিনি।

পাওয়েলের পূর্বপুরুষরা জামাইকা থেকে আমেরিকায় এসেছিলেন। একসময় পাওয়েল ভিয়েতনাম যুদ্ধে যোগ দেন। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগনের আমলে তিনি ছিলেন জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা। প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট জর্জ এইচ ডব্লু বুশের অধীনে তিনি ছিলেন জয়েন্ট চিফ অব স্টাফ। মোট চারজন প্রেসিডেন্টের অধীনে কাজ করেছেন পাওয়েল। খবর দ্য ওয়ালের/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *