ঢাকা, শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৫৫ পূর্বাহ্ন
জম্মু-কাশ্মীরে বিজেপি’র নীতি আমাদের কয়েক দশক পিছিয়ে দিয়েছে’
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

জম্মু-কাশ্মীরে বিজেপি’র নীতি আমাদের কয়েক দশক পিছিয়ে দিয়েছে'


জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও পিডিপি সভানেত্রী মেহবুবা মুফতি কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারকে টার্গেট করে বলেছেন, বিজেপি’র নীতি আমাদের কয়েক দশক পিছিয়ে দিয়েছে। লাল চকে নিরাপত্তা বাহিনীর তল্লাশি প্রসঙ্গে তিনি আজ (বৃহস্পতিবার) এ ধরণের মন্তব্য করেছেন।

নিরাপত্তা বাহিনী লাল চক এবং শ্রীনগরের বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালাচ্ছে। এ সময় নারী ও অপ্রাপ্তবয়স্কদেরও তল্লাশি করা হয়। আজ রাজধানী শ্রীনগরে নিরাপত্তা বাহিনীর এ ধরণের একটি তল্লাশি চালানোর ছবি প্রকাশ্যে আসতেই কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতি ক্ষুব্ধ হয়েছেন মেহেবুবা। 

এ প্রসঙ্গে সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক বার্তায় ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘কাশ্মীরের বর্তমান পরিস্থিতি অনুমান করুন, যেখানে নারী এবং এমনকি শিশুরাও এখন সন্দেহভাজন। জম্মু-কাশ্মীরের এই অবস্থা করেছে বিজেপি। তাদের নীতি আমাদের কয়েক দশক পিছিয়ে দিয়েছে।’ 

জম্মু-কাশ্মীরে সম্প্রতি গেরিলা হামলার ঘটনার মধ্যে গত ১৫ দিনে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে ১৭ জন গেরিলা নিহত হয়েছে। একইসঙ্গে, নিরাপত্তা বাহিনী বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি অভিযানও চালাচ্ছে।

জম্মু-কাশ্মীরে সাম্প্রতিক গেরিলা হামলায় বেশ কিছু বেসামরিক ব্যক্তি নিহত হওয়ায় উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। নিহতদের মধ্যে কয়কজন ‘সংখ্যালঘু হিন্দু পণ্ডিত ও শিখ’ সম্প্রদায়ের হওয়ায় বিষয়টি নিয়ে বিরোধীরা সরকারকে চেপে ধরেছে।  

নিরাপত্তা বাহিনী ও গেরিলাদের মধ্যে সাম্প্রতিক ভিন্ন ভিন্ন সংঘর্ষে কমপক্ষে  ১৭ জন গেরিলা নিহত হয়েছে। একইসঙ্গে দু’জন কর্মকর্তাসহ ১০ সেনা  জওয়ানের মৃত্যু হয়েছে। এসব ঘটনাকে কেন্দ্র করে সেখানকার পরিস্থিতি বেশ উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। নিরপত্তা বাহিনী গেরিলাদের নির্মূল করার জন্য বিভিন্ন জায়গায় চিরুনি তল্লাশি অভিযান চালাচ্ছে।   

এদিকে, আজ জম্মু-কাশ্মীর লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা বলেন, যারা শান্তি ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে আঘাত করছে তারা উপযুক্ত জবাব পাবে। বেসামরিক নাগরিক এবং সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সদস্যদের হত্যার সঙ্গে জড়িতদের চরম মূল্য দিতে হবে। যদি কেউ জম্মু-কাশ্মীরের শান্তি বিঘ্নিত করার চেষ্টা করে, আমরা তার উপযুক্ত জবাব দেবো বলেও লেফটেন্যান্ট গভর্নর মনোজ সিনহা মন্তব্য করেন। 

অন্যদিকে, আজ কাশ্মীর ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সরকারের নীতির সমালোচনা করে কংগ্রেস নেতা গৌরভ বল্লভ বলেন, কেন্দ্রীয় সরকারের বৈঠকে সেখানকার পরিস্থিতির উন্নতি হবে না। আজ উপত্যকায় যে টার্গেট হত্যাকাণ্ড হচ্ছে তা সবই কেন্দ্রের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ফল। কেন্দ্রীয় শাসনের কারণে জম্মু-কাশ্মীরে পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। কেন্দ্রীয় সরকার ভেবেছিল যে সেখানে 'রাজ্যের মর্যাদা' বাতিল করে পরিস্থিতি ভালো হয়ে যাবে, কিন্তু এরকম কিছুই হয়নি।  

কংগ্রেস নেতা গৌরব বল্লভ বলেন, দেশবাসী কেন্দ্রীয় সরকারের সমস্ত পরীক্ষা-নিরীক্ষা দেখেছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আগে জম্মু-কাশ্মীরকে পূর্ণ রাজ্যের মর্যাদা দেওয়া উচিত। খবর পার্সটুডে/২০২১/এনবিএস/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *