ঢাকা, বুধবার ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন
ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলা কংগ্রেসকে মানায় না, তোপ অমরিন্দর সিং-এর
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলা কংগ্রেসকে মানায় না, তোপ অমরিন্দর সিং-এর

 মঙ্গলবার জানা যায়, কংগ্রেস ছেড়ে নতুন দল গড়তে চলেছেন পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপটেন অমরিন্দর সিং (Amarinder Singh)। পাঞ্জাবে আগামী বিধানসভা ভোটে বিজেপির সঙ্গে সেই দলের আসন সমঝোতা হবে। বৃহস্পতিবার তিনি বলেন, কংগ্রেস মহারাষ্ট্রে শিবসেনার সঙ্গে জোট করেছে। এরপর ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলা তাদের মানায় না। তাছাড়া বিজেপি থেকে অনেকে কংগ্রেস যোগ দিয়েছেন। প্রদেশ কংগ্রেসের বর্তমান সভাপতি নভজ্যোৎ সিং সিধুও তাদের মধ্যে একজন। কংগ্রেস হাইকম্যান্ডের তরফে পাঞ্জাবের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা হরিশ রাওয়াত মন্তব্য করেছিলেন, মনে হচ্ছে অমরিন্দর নিজে তাঁর ধর্মনিরপেক্ষতার আদর্শকে হত্যা করেছেন। এই প্রেক্ষিতেই এদিন কংগ্রেসের সমালোচনা করেন অমরিন্দর।


ক্যাপটেন বলেন, “হরিশ রাওয়াতজি, ধর্মনিরপেক্ষতার কথা বলা বন্ধ করুন। আপনাদের দলের নেতা নানা পাটোলে এবং রেভনাথ রেড্ডি একসময় আরএসএস করতেন। পারগত সিং চারবছর অকালি দলে ছিলেন।” পরে অমরিন্দর প্রশ্ন তোলেন, মহারাষ্ট্রে কংগ্রেস শিবসেনার সঙ্গে জোট করেছে কেন? তাহলে কি ধরে নিতে হবে, নিজের উদ্দেশ্য সফল করার জন্য কংগ্রেস সাম্প্রদায়িক শক্তির সঙ্গে জোট করতে পারে?

পাঞ্জাবের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর অভিযোগ, কংগ্রেসে তাঁকে হেনস্থার মুখে পড়তে হয়েছে। নভজ্যোৎ সিং সিধুর মতো মানুষ নিজের স্বার্থ ছাড়া কিছু বোঝেন না। পাঞ্জাবে কংগ্রেসকে তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। সিধুকে ‘অস্থিরচিত্ত মানুষ’ বলে উল্লেখ করেন ক্যাপটেন।


পাঞ্জাবের কয়েকজন কংগ্রেস নেতার দাবি, তাঁরা আগেই জানতেন, ক্যাপটেনের সঙ্গে বিজেপির যোগাযোগ আছে। পাঞ্জাবের উপমুখ্যমন্ত্রী সুখজিন্দর সিং রণধাওয়া বলেন, অমরিন্দর সিং ‘সুবিধাবাদী’।

গত মঙ্গলবার একগুচ্ছ টুইট করেছেন অমরিন্দর সিংয়ের মিডিয়া উপদেষ্টা রবীন ঠুকরাল। সেখানেই তিনি প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর কথা উদ্ধৃত করে লেখেন, খুব শিগগিরই নতুন দল গঠন করব। সেই দল পাঞ্জাবের মানুষের জন্য কাজ করবে। যে কৃষকরা তাঁদের অধিকার বুঝে নিতে লড়ছে তাঁদের জন্যেও কাজ করবে আমার দল।

এখানেই শেষ নয়, তিনি আরও বলেছেন, চলতি কৃষক আন্দোলন যদি মিটে যায়, যদি কৃষকদের স্বার্থ সুরক্ষিত হয়, তবে আমি আশা করছি বিজেপির সঙ্গে আসন সমঝোতায় যাব। অকালি দলের সঙ্গেও সমঝোতার কথা বলেছেন অমরিন্দর সিং।

এখনও আনুষ্ঠানিকভাবে কংগ্রেস ছাড়েননি অমরিন্দর সিং। তাঁর অবস্থান নিয়ে এখনও সেভাবে মুখ খোলেননি কংগ্রেসের শীর্ষ নেতারাও। অমিত শাহ, অজিত ডোভালদের সঙ্গে তিনি দেখা করেছেন। কিন্তু সংবাদমাধ্যমকে নিজেই জানিয়ে দিয়েছিলেন, “আমি বিজেপিতে যোগ দিচ্ছি না। থাকছি না কংগ্রেসেও। খবর দ্য ওয়ালের /২০২১/এনবিএস/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: