ঢাকা, শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন
আফগানিস্তানে অব্যাহত নিরাপত্তাহীনতা: জনগণের আস্থা অর্জনে এখনও ব্যর্থ তালেবান
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

আফগানিস্তানে অব্যাহত নিরাপত্তাহীনতা: জনগণের আস্থা অর্জনে এখনও ব্যর্থ তালেবান

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে একটি বড় পাওয়ার হাউজ বা বিদ্যুৎ-স্থাপনায় বিস্ফোরণের ফলে দেশটির রাজধানীসহ বেশ কয়েকটি জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে গেছে। আফগানিস্তানের বিদ্যুৎ সরবরাহে জড়িত কোম্পানি এই খবর দিয়েছে। 

আফগানিস্তানে এর আগেও বিদ্যুৎ-সরবরাহ ব্যবস্থায় ব্যাঘাত ঘটানো হয়েছিল। তালেবানরা আশরাফ গনি সরকারের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সময় পাওয়ার  হাউজ ও বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যবস্থায় বিস্ফোরণ ঘটাত।

আফগানিস্তানের তালেবান গত ১৫ আগস্ট থেকে দেশটির ক্ষমতা গ্রহণের পর আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে একটি দায়িত্বশীল গোষ্ঠীর মর্যাদা অর্জনের চেষ্টা করছে। তাই এ অবস্থায় দেশটিতে নিরাপত্তাহীনতা অব্যাহত থাকার বিষয়টি দেশটির জনগণ ও আন্তর্জাতিক সমাজের জন্য মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, গত ৪০ বছর ধরে আফগান জনগণ নিরাপত্তাহীনতা দেখতে দেখতে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় তারা নিরাপত্তার জন্য আকুল হয়ে ওঠা সত্ত্বেও দেশটিতে নিরাপত্তাহীনতার ধারা যেন কখনও শেষ হবার নয়। এমনকি তালেবানও দেশটিতে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় সক্ষম হবে কিনা তা নিয়ে ঘোর সন্দেহ রয়েছে আফগান জনগণের মধ্যে।

আফগানিস্তানের সব দল ও গোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্বকারী একটি সরকার ক্ষমতায় না আসা পর্যন্ত দেশটিতে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে না বলেই বিশ্লেষকরা মনে করছেন। 

মূলত পশতুনদের নিয়ে গঠিত তালেবানরা সব দল ও গোত্রের প্রতিনিধিত্ব-ভিত্তিক একটি জাতীয় সরকার গঠনের ওয়াদা দিলেও তা এখনও বাস্তবায়ন করেনি। ফলে তারা অন্য  দল ও গোত্রগুলোর সশস্ত্র বাহিনীর সহিংসতা বন্ধ করতে পারছে না।

তালেবানদের একক আধিপত্যের মোকাবেলায় তাদের বিরুদ্ধে অন্যান্য দল ও গোত্রগুলোর জোটবদ্ধ হওয়ারও সম্ভাবনা জোরালো হয়ে উঠছে।

তাই সব দল, গোষ্ঠী ও জাতির প্রতিনিধিত্ব-ভিত্তিক সরকার গঠন তালেবানের জন্যও যেমন জনপ্রিয়তা লাভের মাধ্যম হিসেবে মঙ্গলজনক হবে তেমনি তা অন্য সবার ও দেশটির নিরাপত্তার জন্যও জরুরি। আফগান জনগণ তাদের রাজনৈতিক, নাগরিক ও সামাজিক অধিকারের বাস্তবায়ন দেখতে চায় এবং তালেবানের উচিত সেই সুযোগ নেয়া।খবর পার্সটুডে/এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *