ঢাকা, বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৩৭ অপরাহ্ন
সুনামগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের প্রথম সম্মেলন অনুষ্ঠিত
কুলেন্দু শেখর দাস

সুনামগঞ্জে হাওর বাঁচাও আন্দোলনের প্রথম সম্মেলন অনুষ্ঠিত

সুনামগঞ্জে ‘হাওর বাঁচাও আন্দোলন’ সুনামগঞ্জ জেলা শাখার প্রথম সম্মেলন শহরের শহীদ জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী হলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল সাড়ে দশটায় জাতীয় পতাকা ও সংগঠনের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন ঘোষনা করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু সুফিয়ান।

সম্মেলনের প্রথম পর্বে জেলা কমিটির আহ্বায়ক সুখেন্দু সেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন,সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য পীর ফজলুল রহমান মিসবাহ। বিশেষ অতিথি ছিলেন, তাহিরপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল, ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ওলিউর রহমান বকুল, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিজন সেন রায়। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে পীর মিসবাহ এমপি বলেন, হাওরে দুনীতির সাথে নেতা এবং আমাদের মতো নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরা জড়িত থাকেন। তারা পাউবোর সাথে আঁতাত করে সরকারের টাকা লুটপাঠের একটি মহাঙজ্ঞ করে বাঁধ রক্ষার নামে। তিনি পাউবোকে আহ্বান জানান, সরেজমিনে গিয়ে প্রাক্কলন তৈরী করার, কারণ এ বছর হাওরের সকল বাঁধ অক্ষত রয়েছে। অক্ষত বাঁধে মাটি ভরাটের নামে সরকারের টাকা আত্মসাথ করার চেষ্টা করলে সুনামগঞ্জের মানুষ তা মেনে নেবে না।

টাঙ্গুয়ার হাওর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আইইউসিএন নামক একটি এনজিও সংস্থা টাঙ্গুয়ার হাওরের মাদার ফিসারিজ লুট করেছে। তাই এবছর হাওরে মাছ নেই। রক্ষক ভক্ষক সেজে টাঙ্গায়ার হাওর লুট করেছে। এদের কাছ থেকে টাঙ্গুয়ার হাওর বাঁচানো এখন সময়ের দাবি বলে জানান তিনি। তিনি হাওরের মানুষের বৃহত্তর কল্যাণে কাজ করায় হাওর বাঁচাও আন্দোলন নেতাকর্মীদের অভিনন্দন জানান।

পরে একটি বোডের মাধ্যমে আইয়ুব বখত বহলুলকে সভাপতি ও ওবায়দুল হক মিলন কে জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়। এবং আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনের জন্য বলা হয়।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: