ঢাকা, বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
প্রিয়ঙ্কার সাত প্রতিশ্রুতি নিয়ে যোগীরাজ্যে শুরু কংগ্রেসের প্রতিজ্ঞাযাত্রা
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

প্রিয়ঙ্কার সাত প্রতিশ্রুতি নিয়ে যোগীরাজ্যে শুরু কংগ্রেসের প্রতিজ্ঞাযাত্রা

: রাহুল গান্ধী বা সনিয়া গান্ধী নন। উত্তরপ্রদেশের ভোটযুদ্ধের শুরুটা হল প্রয়ঙ্কার হাত ধরেই। গতকালই সাত প্রতিশ্রুতি শুনিয়ে এবারের ভোট লড়ার কথা বলেছিলেন কংগ্রেসের অন্যতম সাধারণ সম্পাদক প্রিয়ঙ্কা। শনিবার যোগী আদিত্যনাথ শাসিত রাজ্যের বারাবাঁকি থেকে প্রতিজ্ঞাযাত্রার সূচনা করলেন সনিয়া-কন্যা।
এবার কংগ্রেসের ইস্তেহারে সাতটি প্রতিশ্রুতি থাকবে বলে জানিয়েছিলেন প্রিয়ঙ্কা। তার মধ্যে মহিলাদের ই-স্কুটি ও মোবাইল ফোন দেওয়া, প্রতিটি গরিব পরিবারকে বছরে ২৫ হাজার টাকা দেওয়া, বিদ্যুতের বিল অর্ধেক করা, ফসলের ন্যূনতম সহায়কমূল্য কুইন্টাল প্রতি ২৫০০ টাকা করার মতো ঘোষণা করেছিলেন প্রিয়ঙ্কা।
আগেই কংগ্রেসনেত্রী বলেছিলেন, এবার ৪০ শতাংশ আসনে মহিলা প্রার্থী দেবেন তাঁরা। তারপর এইসব ঘোষণাতেই স্পষ্ট এবার উত্তরপ্রদেশের ভোটে মহিলাদের সমর্থনকে টার্গেট করেছে ২৪ নম্বর আকবর রোড। তা ছাড়া কৃষকদের ইস্যুগুলিকেও গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে।


এদিন যে প্রতিজ্ঞাযাত্রা শুরু হয়েছে তা ১ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে। ১২ হাজার কিলোমিটার পথ অতিক্রম করবে এই যাত্রা। যা উত্তরপ্রদেশ ভোটে কংগ্রেসের প্রচার শুরু হিসেবেই দেখছে রাজনৈতিক মহল। গোটা রাজ্যকে তিনটে জোনে ভেঙে এই যাত্রা করছে কংগ্রেস। যে যে এলাকা দিয়ে এই যাত্রা যাবে সেই পথে অনুষ্ঠিত হবে অসংখ্য জনসভা। বিভিন্ন মন্দিরের সামনে থামবে প্রতিজ্ঞাযাত্রা। বলাইবাহুল্য যোগীরাজ্যে মন্দিরের সামনে কংগ্রেসের যাত্রা নিয়ে যাওয়া আসলে হিন্দুত্বকে অন্য ভাবে ছোঁয়ার কৌশল।

দীর্ঘদিন ধরেই পূর্ব উত্তরপ্রদেশের সাংগঠনিক দায়িত্বে রয়েছেন প্রিয়ঙ্কা। কিন্তু অনেকে বলেন, গত এক-দেড় মাস ধরে প্রিয়ঙ্কাকে যে ভাবে রাস্তায় নামতে দেখা যাচ্ছে তা গত পাঁচ বছর দেখা যায়নি। উন্নাও, হাথরাসের মতো ঘটনার সময়ে এমন জঙ্গি মেজাজ ছিল না তাঁর। তাঁদের বক্তব্য, গোটা পর্বে যদি প্রিয়ঙ্কা এই মেজাজে ময়দানে অবতীর্ণ থাকতেন তাহলে আজকে উত্তরপ্রদেশের রাজনৈতিক সমীকরণ অন্যরকম হতো। খবর দ্য ওয়ালের/২০২১/এনবিএস/একে 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: