ঢাকা, বুধবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:৪৫ অপরাহ্ন
দীপাবলি না হোলি? জানেন না সিন্ধের মুখ্যমন্ত্রী! ট্যুইট মুছে বিতর্কে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

দীপাবলি না হোলি? জানেন না সিন্ধের মুখ্যমন্ত্রী! ট্যুইট মুছে বিতর্কে


 দীপাবলি(diwali) না হোলি (holi), জানেন না পাকিস্তানের সিন্ধ (pakistan) (sindh) প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী (cm) মুরাদ আলি! চলছে দীপাবলি, তিনি শুভেচ্ছা জানিয়েছেন হোলির। ট্যুইট করে সেটা মুছে দিয়ে সোস্যাল মিডিয়ায় আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে মুরাদ। কী ছিল সেই ট্যুইটে?


দীপাবলি উপলক্ষ্যে ভারতে জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে সবাইকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দেশের নেতা, মন্ত্রীরা। ভারতীয়দের শুভেচ্ছা পাঠিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস, ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট, শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপক্ষে সহ আরও অনেকে।

তবে সীমান্তের ওপারে ছবিটা ভিন্ন। ইমরান খান  সহ পাকিস্তানের শীর্ষ নেতা, মন্ত্রীরা এখনও দীপাবলীর শুভেচ্ছাবার্তা (greetings) দেননি। কিন্তু ইন্টারনেটে শোরগোল ফেলেছে মুরাদের বিতর্কিত ট্যুইট। কেননা তিনি দীপাবলিতে পাকিস্তানের হিন্দুদের হোলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন! ভুলটা ধরা পড়ার  পর ট্যুইটটা মুছে দিয়েছেন। দীপাবলি উপলক্ষ্যে নিজের অফিশিয়াল ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে সম্ভবতঃ নিজের ছবি পোস্ট করে তার ওপর লেখেন, হ্যাপি হোলি। মুরাদ কিছুক্ষণ বাদেই সেটি ডিলিট  করেন। কিন্তু তার আগেই অনেকে তার স্ক্রিনশট তুলে নিয়েছেন!

মুরতাজা  সোলাঙ্গি নামে জনৈক পাকিস্তানি সাংবাদিক মুছে ফেলা সেই ট্যুইট শেয়ার করে লিখেছেন, পাকিস্তানে সবচেয়ে বেশি হিন্দুর বাস সিন্ধ প্রদেশে। সেখানকার অনেক এলাকায়   হিন্দুরা বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠ। মুখ্যমন্ত্রীর দপ্তরের কর্মচারীরা যদি দীপাবলি, হোলির পার্থক্য না জেনে থাকেন, তাহলে সেটা অত্যন্ত বেদনাদায়ক। দুঃখের ব্যাপার।

গোটা ঘটনায় ট্যুইটারে বিস্ময়, ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অনেকে।

কেউ বলেছেন, মূর্খামি, ঔদ্ধত্যের সেরা উদাহরণ। একজন লিখেছেন, হাহাহাহা। কেউ লেখেন, ছেড়ে দিন না, ওটা ভুল করে করে ফেলেছে!। খবর দ্য ওয়ালের /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: