ঢাকা, সোমবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন
যে ঘরে কখনো শয়তান ঢুকতে পারে না
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

যে ঘরে কখনো শয়তান ঢুকতে পারে না

হজরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, তিনি নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে বলতে শুনেছেন, কোনো ব্যক্তি যখন নিজ ঘরে ঢুকে এবং প্রবেশ করার পর খাওয়ার সময় আল্লাহকে স্মরণ করে, তখন (তার সহযোগীদের) বলতে থাকে, ‘(এই ঘরে) তোমাদের কোনো থাকার জায়গা নেই। আর এই ঘরে তোমাদের রাতের খাবারেরও কোনো ব্যবস্থা নেই। 

আর যদি কোনো ব্যক্তি ঘরে ঢুকে এবং প্রবেশের সময় আল্লাহকে স্মরণ না করে, তখন শয়তান (তার সহযোগীদের) বলে, তোমরা তোমাদের থাকার জায়গা পেয়ে গেছো। আর সে যদি খাওয়ার সময় আল্লাহকে স্মরণ না করে, তখন শয়তান (তার সহযোগীদের) বলে, ‘(এই ঘরে) তোমরা তোমাদের থাকার জায়গা ও রাতের খাবার পেয়ে গেছো।’ (মুসলিম)

সুতরাং মুমিন মুসলমানের উচিত, বাইরে থেকে ঘরে প্রবেশ করার সময় দোয়া পড়া। কোনো দোয়া না পড়লে ন্যূনতম-

بِسْمِ الله

‘বিসমিল্লাহ’

পড়ে ঘরে প্রবেশ করা। তাতে শয়তান আর ঘরে ঢুকতেও পারবে না এবং খাবারেও অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

তাই বাইরে থেকে এসে ঘরে প্রবেশের সময় দোয়া পড়া সুন্নাত। আর তা পড়তে বলেছেন স্বয়ং বিশ্বনবি। হাদিসে এসেছে-

হজরত আবু মালিম আশআরি রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, আল্লাহর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন, কোনো ব্যক্তি যখন তার ঘরে ঢুকে, তখন যেন সে বলে-

اَللَّهُمَّ اِنِّىْ أَسْئَالُكَ خَيْرَالْمَوْلِجِ وَ خَيْرَ الْمَخْرَجِ بِسْمِ اللهِ وَلَجْنَا وَ بِسْمِ اللهِ خَرَجْنَا وَ عَلَى اللهِ رَبِّنَا تَوَكَّلْنَا

উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা খাইরাল মাওলিঝে ওয়া খাইরাল মাখরিজি বিসমিল্লাহি ওলাজনা ওয়া বিসমিল্লাহি খারাজনা, ওয়া আলাল্লাহি রাব্বিনা তাওয়াক্কালনা।’

অর্থ : হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে ঘরে প্রবেশের ও বের হওয়ার কল্যাণ চাই। আল্লাহর নামে (ঘরে) প্রবেশ করি এবং আল্লাহর নামে ঘর থেকে বের হই; আর আমাদের রব আল্লাহর উপর ভরসা রাখি।’ (আবুদাউদ)

তাছাড়া রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম ঘরের কল্যাণের জন্য হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহুকে ঘরে ঢুকতে সালাম দেওয়ার কথা বলেছেন। হাদিসে এসেছে-

হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম আমাকে বলেন, (হে) ছেলে আমার! তোমার ঘরের লোকদের কাছে গেলে, (তাদের) সালাম দেবে; তা হবে তোমার ও তোমার ঘরের লোকদের জন্য কল্যাণজনক।’ (তিরমিজি)

সুতরাং নিজ নিজ ঘরকে শয়তানের আক্রমণ থেকে মুক্ত রাখতে ঘরে প্রবেশের সময় সালাম দিয়ে আল্লাহকে স্মরণ করার মাধ্যমে প্রবেশ করা। তাতে শয়তান ঘরে যেমন থাকতে পারবে না। তেমনি ঘরের লোকদের খাবারেও অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ঘরে প্রবেশের সময় আল্লাহর নাম নিয়ে প্রবেশ করার তাওফিক দান করুন। হাদিসের উপার যথাযথ আমল করার তাওফিক দান করুন। ঘরকে শয়তানের আক্রমণমুক্ত রাখার তাওফিক দান করুন। 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: