ঢাকা, শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন
কুলভূষণকে মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আবেদনে সাহায্য করতে আইসিজের চাপে বিল পাশ পাকিস্তানে
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :


কুলভূষণকে মৃত্যুদণ্ডের বিরুদ্ধে আবেদনে সাহায্য করতে আইসিজের চাপে বিল পাশ পাকিস্তানে

 পাকিস্তান পার্লামেন্টের (pakistan) (parliament) যৌথ অধিবেশনে বিল (bill)পাশ হল যাতে সামরিক আদালতের (military court) মৃত্যুদণ্ডের (death sentence) বিরুদ্ধে ভারতীয় নাগরিক কুলভূষণ যাদবের (kulbhushan  jadhav) আবেদন (petition) জানাতে সুবিধা হয়। কুলভূষণ ২০১৬র মার্চে বালুচিস্তানে গ্রেফতার হন। চরবৃত্তি,  নাশকতার দায়ে পরের বছর তাঁর মৃত্যুদণ্ড হয়। চরবৃত্তির অভিযোগ উড়িয়ে পাল্টা ভারতের দাবি,  ভারতীয় নৌবাহিনীর এই প্রাক্তন অফিসারকে মিথ্যে অভিযোগে ফাঁসানো হয়েছে।  ইরানের চাবাহার বন্দর থেকে তাঁকে অপহরণ করে পাকিস্তানি এজেন্সির লোকজন। সেখানে তাঁর ব্যবসা ছিল। ২০১৮ সালে অবশ্য আন্তর্জাতিক ন্যয়বিচার আদালত (আইসিজে) কুলভূষণের ফাঁসি কার্যকর করায় স্থগিতাদেশ দেয়।

২০২১ এর আন্তর্জাতিক ন্যয়বিচার আদালত (রিভিউ ও পুনর্বিবেচনা) আইন গত বছর পাকিস্তান সরকারের  পাশ করা অর্ডিন্যান্সের মতোই। যাদবকে মৃত্যুদণ্ডের  বিরুদ্ধে আবেদন জানানোর অধিকার দিতেই অর্ডিন্যান্স জারি  করা হয়েছিল।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এহেন আইনের ফলে যাদবের  কোনও বাড়তি সুবিধা হবে না। আইন করা হল যাদব যাতে পাকিস্তানি আদালতে যথাযথ আবেদন করতে পারেন, সেজন্য আইনি নিয়মকানুন পালনের  ব্যাপারে। আইনে কোনও বিদেশি নাগরিককে পাকিস্তানের হাইকোর্টে পিটিশন  পেশ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।  তিনি সামরিক আদালত ঘোষিত শাস্তি পুনর্বিবেচনা ও খতিয়ে  দেখার আবেদন করতে পারবেন।

২০১৯ এ আইসিজে যাদব মামলায় রায় ঘোষণা করে তাঁর মৃত্যুদণ্ড রিভিউ, পুনর্বিবেচনার দাবি করেছিল। সেই রায় কার্যকর করতেই পাকিস্তানের আইনমন্ত্রী ফারোখ নাসিম পার্লামেন্টে বিলটি পেশ করেন। বিলটি চলতি বছরের জুনেই ন্যাশনাল অ্যাসেম্বলি বা নিম্ন কক্ষে পাশ হয়। তবে বাধ্যতামূলক ৯০ দিনের সময়সীমার মধ্যে সেটি সেনেট বা উচ্চকক্ষের ছাড়পত্র পায়নি।

ভারত আইসিজের দ্বারস্থ হওয়ার পর তারা রায়ে বলেছিল, কনস্যুলার সম্পর্ক সংক্রান্ত ভিয়েনা কনভেনশনের আওতায় যাদবের অধিকার ভঙ্গ হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান তাঁকে দোষী সাব্যস্ত করা ও সাজার রায় খতিয়ে দেখতে, পুনর্বিবেচনা করতে বাধ্য। এটা তার দায়। ভারত পাকিস্তানকে গত জুনে আন্তর্জাতিক ন্যয়বিচার আদালত (রিভিউ ও রিকনসিডারেশন) আইনের কিছু খামতিও দূর  করতে বলেছিল। ভারত জানিয়েছিল, আইসিজে যেমনটি বলেছে, সেভাবে যাদবের ব্যাপারে রিভিউ ও পুনর্বিবেচনার যথাযথ মেশিনারির সংস্থান আইনে নেই। খবর দ্য ওয়ালের/২০২১/এনবিএস/একে 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: