ঢাকা, শুক্রবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:১১ পূর্বাহ্ন
শিবসেনা, বিজেপির মত সাম্প্রদায়িক দল, ধর্মনিরপেক্ষ নয় : ওয়াইসি
এনবিএস ওয়েবডেস্ক :

শিবসেনা, বিজেপির মত সাম্প্রদায়িক দল, ধর্মনিরপেক্ষ নয় : ওয়াইসি

ভারতের মজলিশ-ই-ইত্তেহাদুল মুসলেমিন (মিম) প্রধান ব্যারিস্টার আসাদউদ্দিন ওয়াইসি এমপি বলেছেন, ‘শিবসেনা ধর্মনিরপেক্ষ দল নয়। শিবসেনা, বিজেপির মতো একটি সাম্প্রদায়িক দল ছিল এবং থাকবে।’

তিনি আজ (মঙ্গলবার) মহারাষ্ট্রের সোলাপুরে এক সভায় বক্তব্য রাখার সময়ে ওই মন্তব্য করেন।   

মহারাষ্ট্রে শিবসেনা-এনসিপি-কংগ্রেসের জোট সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। রাজ্যটিতে আসন্ন পৌর নির্বাচনের মুখে ওয়াইসির ওই মন্তব্য প্রকাশ্যে এল। কংগ্রেস এবং এনসিপি দলের সমালোচনা করে ওয়াইসি বলেন,  ‘আমরা  ধর্মনিরপেক্ষ কী না সে সম্পর্কে ওদের প্রমাণপত্রের প্রয়োজন নেই। মজলিশের (মিম) বা মুসলিমদের, বা দলিতদের প্রমাণপত্রের প্রয়োজন নেই। এরা কারা  যে, এদের সঙ্গে গেলে ধর্মনিরপেক্ষ এবং এদের সঙ্গে না গেলে সাম্প্রদায়িক!  তোমরা কী দোকান চালাচ্ছ, যে স্ট্যাম্প মেরে দিলে সেক্যুলার হয়ে যাবে?’  

এনসিপি নেতা শারদ পাওয়ার ও কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধিকে টার্গেট করে ওয়াইসি বলেন, ‘শিবসেনা কী সেক্যুলার দল? বলুন শারদ পাওয়ার সাহেব?  রাহুল গান্ধি বলুন শিবসেবনা কী সেক্যুলার দল? আপনারা কী ভুলে গেছেন ’৯২ সালে মুম্বাইয়ের সড়কে কী হয়েছিল? আপনারা কী ভুলে গেছেন শ্রীকৃষ্ণ কমিশনের রিপোর্টকে? আপনারা কী ভুলে গেছেন যত বিদ্বেষমূলক বক্তব্যকে? বলব সবকিছু?  সমস্ত বিষয় আমাদের মনে আছে।’         

তিনি বলেন, ‘আমরা জিন্নাহর বার্তা প্রত্যাখ্যান করেছি, আমরা ভারতকে আমাদের মাতৃভূমি বলে মনে করেছি এবং এবং এভাবে মেনে চলতে  থাকব।’  তিনি বলেন, আমরা সংবিধান মানি, গণতন্ত্রকে মেনে চলেছি। কিন্তু এটা কোন গণতন্ত্র যে আপনারা আমাদেরকে গরীব করে রাখছেন।    

২০১২ সালে মহারাষ্ট্রের রাজনীতিতে আলোচনায় আসে ‘মিম’ দল। দলটি নান্দেদ মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন নির্বাচনে ৮১টি আসনের মধ্যে ১১ টিতে জিতেছিল।

২০১৪ সালের অক্টোবরে মহারাষ্ট্র বিধানসভা নির্বাচনে,  তারা বাইকুল্লা এবং আওরঙ্গাবাদে জয়লাভ করেছিল।

২০১৫ সালে,  ‘মিম’ দল আওরঙ্গাবাদের ১১৩ আসনের মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনে ৫৪ জন প্রার্থীকে প্রার্থী করেছিল, যার মধ্যে ২৫ জন জয়ী হন। এই জয়ে এই দলটি সাফল্যের দিক থেকে দ্বিতীয় বৃহত্তম দল হিসেবে উঠে আসে। ‘মিম’ সে সময়ে ২৫টি আসন নিয়ে, শিবসেনার ২৯ টির পরে দ্বিতীয় স্থানে ছিল। যেখানে বিজেপি জিতেছিল ২২টি আসন।   

২০১৭ সালে, বৃহন্মুম্বাই মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন (বিএমসি) নির্বাচনে ২২৭ টি আসনের মধ্যে দু’টিতে জয়লাভ করে ওয়াইসির দল আবারও তাদের সাফল্যে সবাইকে অবাক করে দেয়। অন্যদিকে,  সোলাপুর মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন নির্বাচনে পাঁচটি আসন জিতেছিল ‘মিম। খবর পার্সটুডে/২০২১/এনবিএস/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: