ঢাকা, শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৪৯ পূর্বাহ্ন
মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ৩ ব্যতিক্রমী চলচ্চিত্র
Reporter Name

মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ৩ ব্যতিক্রমী চলচ্চিত্র

বাংলাদেশের স্বাধীন ভূমিতে মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রথম যে ছবিটি নির্মিত হয় সেটি হলো প্রয়াত চাষী নজরুল ইসলাম পরিচালিত ‘ওরা ১১ জন’। এই ছবিটিতে তখনকার প্রতিশোধের বা যুদ্ধ জয়ের বহ্নিশিখা প্রজ্জ্বলিত ছিল সকলের মধ্যে। একটা অদম্য আবেগ কাজ করেছে সদ্য পাওয়া স্বাধীনতা নিয়ে। তারই প্রতিফলন ঘটে ‘ওরা ১১ জন’ ছবিতে। এই ছবিটি শিল্পী-কলাকুশলীদের সকলে মনে করলেও রচয়িতার নাম আজ আর কারো স্মৃতিতে নেই। তিনি হলেন পরিচালক আল-মাসুদ। চিত্রনাট্যকার হিসেবে সে সময়ে তার আশপাশে কেউ ছিলেন না। যাহোক, ‘ওরা ১১ জন’ ছিল বাঙ্গালীদের আবেগের ছবি। কিন্তু মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক বাণিজ্য সফল ব্যতিক্রমধর্মী তিনটি ছবির নাম উল্লেখ করতে গেলে সামনে চলে আসে সুভাষ দত্তের ‘অরুণোদয়ের অগ্নিসাক্ষী’, নারায়ণ ঘোষ মিতার ‘আলোর মিছিল’ এবং খান আতাউর রহমানের ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবির নাম। সুভাষ দত্ত ব্যতিক্রমী একটি বিষয় নিয়ে তার ছবিটি নির্মাণ করেছেন।

এ ছবির কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন আনোয়ার হোসেন। একজন মানুষ সারাক্ষণই দ্বিধায় ভুগছেন তিনি মুক্তিযুদ্ধে যাবেন কি যাবেন না। এভাবেই ছবি শেষ হয়ে যায়। এই ছবিটিতে একটি বিদেশি ছবির ছায়া ছিল। সুভাষ দত্ত অবশ্য সেই সময়ে এ বিষয়টি নিয়ে কোনো কথা বলেননি। নারায়ণ ঘোষ মিতার ছবিটি ছবি মুক্তিযুদ্ধোত্তর কালোবাজারি নিয়ে। মুক্তিযুদ্ধের কারণে অনেকের হাতেই অবৈধ অস্ত্র চলে গিয়েছিল। তাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিল স্বাধীনতা বিরোধী চক্র। তাদের সম্মিলিত শক্তি সমাজের ভারসাম্য নষ্ট করছিল। যুদ্ধবিধ্বস্ত একটি দেশে মওজুদদরির মাধ্যমে দ্রব্যমূল্য বাড়িয়ে সমাজে একটা বিশৃংখলা তৈরি করেছিল। তারই প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধারা সক্রিয় হয়ে উঠে। পরিচালক প্রতীক হিসেবে গানের কথায় তুলে ধরেন, ‘এই পৃথিবীর পরে কত ফুল ফোটে আর ঝরে ….’।

খান আতাউর রহমান নির্মিত ‘আবার তোরা মানুষ হ’ ছবিটি ছিল বক্তব্য প্রধান। তিনি অন্তর নিঙড়ে ভালোবাসা ঢেলে দিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য। ছবিটিতে তিনি দেখিয়েছেন, শিক্ষা ক্ষেত্রসহ বিভিন্ন স্তরে অনিয়ম ও বিশৃংখলা তৈরি হওয়া দেখে মুক্তিযোদ্ধারা হতাশায় ভুগতে থাকেন। এই প্রতিপাদ্য বিষয়টি আর কোনো ছবিতে দেখা যায়নি। তিনি হতাশাগ্রস্ত মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে লিখেছেন, ‘এক নদী রক্ত পেরিয়ে বাংলার আকাশে মুক্তির এই বারতা আনলে যারা, তোমাদের এই ঋণ কোনোদিন শোধ হবে না……’।

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: