ঢাকা, শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:৩৫ পূর্বাহ্ন
ভ্যাকসিন জুজু! ভয়ে নকল হাত লাগালেন ভদ্রলোক, তারপর…
Reporter Name

ভ্যাকসিন জুজু! ভয়ে নকল হাত লাগালেন ভদ্রলোক, তারপর…

করোনা আতঙ্কে যখন গোটা বিশ্ব জবুথবু, তখন একদল মানুষ করোনা ভ্যাকসিন নিতে অস্বীকার করছেন। এমন মানুষের মত, কী হবে ভ্যাকসিন নিয়ে? ভ্যাকসিন নেওয়ার পরও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। মৃত্যুও হচ্ছে। এই যুক্তিতেই ভ্যাকসিনের বিরোধিতায় সরব তাঁরা। এমনই এক মানুষের কীর্তিতে হতবাক বিশ্ববাসী। নেবেন না ভ্যাকসিন, তাই কিনলেন নকল হাত!

শুনতে অবাক লাগলেও এমনই কাণ্ড ঘটেছে ইতালিতে। সম্প্রতি ইতালিতে করোনার ভয়াবহতা রুখতে ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। বলা হয়েছে, যেকোনও সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া অনুষ্ঠানে ভ্যাকসিন ছাড়া প্রবেশ নিষেধ। কিন্তু তারপরও কিছু মানুষ এই নিয়ম মানতে নারাজ।

ভ্যাকসিন বিরোধী শিবিরের এক মধ্য বয়স্ক ব্যক্তির কাণ্ডে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ‘ভ্যাকসিন নেব, কিন্তু শরীরে প্রবেশ করবে না’, এমনই মন্ত্রকে মাথায় রেখে নকল হাত বানিয়ে ভ্যাকসিন সেন্টারে পৌঁছান ওই ব্যক্তি।

হাতে সিলিকন প্রস্থেথিক করে ফেলেন ওই ব্যক্তি। তার জন্য বেশ অনেকটাই গাঁটের কড়ি খরচ করতে হয় তাঁকে। কিন্তু তাতেও পরোয়া করেন না তিনি। তবে এতকিছুর পরেও শেষরক্ষা হল না। ধরা পড়ে গেলেন ভ্যাকসিন কেন্দ্রের নার্স-চিকিৎসকদের কাছে।

ইতালির এক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের নার্সের সন্দেহের শিকার হন তিনি। ভ্যাকসিনের দায়িত্বে থাকা নার্স ফিলিপ্পা বুয়া জানান, যখন তিনি ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য জামার হাতা গোটান তখন লক্ষ করেন যে হাতটা স্বাভাবিক নয়, অনেকটা রবারের মত ও ঠান্ডা। সন্দেহ হওয়ায় সঙ্গে সঙ্গে পুলিশে খবর দেওয়া হয়।

স্থানীয় সংবাদপত্র সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তি একজ চিকিৎসক ছিলেন। ভ্যাকসিন না নেওয়ায় কাজের থেকে তাঁকে অব্যহতি নিতে হয়েছে। কিন্তু তারপরও কোনও প্রতিক্রিয়া হয়নি সেই চিকিৎসকের মনে। তবে যখনই জানতে পারে, ভ্যাকসিন বাধ্যতামূলক, তখনই এই পরিকল্পনা মাথায় আসে তাঁর। আর তারপরই তা বাস্তবায়ন করতে নকল হাত নিয়ে পৌঁছে যান ভ্যাকসিন সেন্টারে। খবর দ্য ওয়ালের /২০২১/এনবিএস/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: