বল এখন ইউরোপের কোর্টে; তাদেরকেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে হবে’
Reporter Name

বল এখন ইউরোপের কোর্টে; তাদেরকেই প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে হবে’

ইরানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আহমাদ ওয়াহিদি বলেছেন, বল এখন ইউরোপের কোর্টে এবং তাদেরকেই প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে আন্তরিক হতে হবে। তিনি অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় চলমান পরমাণু আলোচনা প্রসঙ্গে সোমবার তেহরানে এক বক্তব্যে ইরানের এ অবস্থান তুলে ধরেন।

ওয়াহিদি বলেন, ভিয়েনা সংলাপ থেকে ভালো ফল পাওয়ার বা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের লক্ষ্যে ইরান প্রতিপক্ষের কাছে একাধিক খসড়া প্রস্তাব হস্তান্তর করেছে। তিনি বলেন, আমেরিকা এর আগের সমঝোতার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি এবং ইউরোপীয়রাও আমেরিকার প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘনের কোনো প্রতিবাদ জানায়নি।

ওয়াহিদি বলেন, আমেরিকা যদি ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় দেয়া প্রতিশ্রুতিতে ফিরে গিয়ে ইরানবিরোধী নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে তাহলে ইরানও তার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করবে।তিনি বলেন, পাশ্চাত্যের যেকোনো প্রতিশ্রুতির ব্যাপারে ইরান সন্দিহান কারণ, এখন পর্যন্ত তারা কোনো প্রতিশ্রুতি রক্ষা করেনি।

গত ২৯ নভেম্বর পাঁচ জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের সপ্তম দফা বৈঠক শুরু হয় যা কয়েকদিন ধরে চলে। বৈঠকে ইরানের প্রতিনিধিদলের প্রধান আলী বাকেরি-কানি চলমান সংকট সমাধানে দু’টি প্রস্তাবের খসড়া প্রতিরক্ষের কাছে হস্তান্তর করেন।

২০১৫ সালে আমেরিকাসহ ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতায় ইরান তার পরমাণু কর্মসূচিতে সীমাবদ্ধতা আনে এবং এর বিপরীতে তেহরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়।সমঝোতা অনুযায়ী ইরান তার পরমাণু কর্মসূচিতে সর্বোচ্চ চার মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করতে সম্মত হয়।

কিন্তু ২০১৮ সালে আমেরিকা একতরফাভাবে এটি থেকে বেরিয়ে গিয়ে ইরানের ওপর সব নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করলে ইরান সমঝোতা থেকে বেরিয়ে না গিয়ে ধীরে ধীরে নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের পরিমাণ কমিয়ে দেয়। বর্তমানে ইরান ৬০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করছে। ভিয়েনা সংলাপ অনুষ্ঠিত হচ্ছে মূলত দু’পক্ষকে আগের জায়গায় ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ।খবর পার্সটৃুডে /এনবিএস/২০২১/একে

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: