ঢাকা, শনিবার ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৪৩ অপরাহ্ন
ঢাবি ছাত্রী হত্যা মামলা: স্বামী ইফতেখার তিন দিনের রিমান্ডে
Reporter Name

ঢাবি ছাত্রী হত্যা মামলা: স্বামী ইফতেখার তিন দিনের রিমান্ডে

বনানী থানা পুলিশ বুধবার আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন করে। ঢাকার মহানগর হাকিম আশেক ইমাম তিন দিনের রিমান্ডে নেয়ার আদেশ দেন।

ইলমার মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় হত্যা মামলা করেন তার বাবা সাইফুল ইসলাম চৌধুরী।

রাজধানীর বনানী থানায় মঙ্গলবার রাতে করা এ মামলায় আসামি করা হয় ইলমার স্বামী ইফতেখার আবেদীন এবং তার শ্বশুর-শাশুড়িকে।

মামলার পর মঙ্গলবার আটক হওয়া ইফতেখারকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়। তার মা-বাবাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ইলমা ঢাবির নৃত্যকলা বিভাগের ২০১৫-১৬ সেশনের ছাত্রী। তিনি সুফিয়া কামাল হলের আবাসিক শিক্ষার্থী ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি ঢাকার ধামরাই পৌর এলাকায়।

ইলমার সহপাঠী নুসরাত জাহান তিথি বলেন, বিয়ের পর থেকেই ক্লাসে অনিয়মিত হয়ে পড়ে ইলমা। শ্বশুরবাড়ির লোকজন তার ওপর নজরদারি চালাত বলে মনে হয়েছে। কয়েক দিন আগে তার স্বামী কানাডা থেকে ফেরার পরই এই ঘটনা ঘটল।

আরেক সহপাঠী আব্দুল্লাহ বলেন, মেঘলার বিয়ে হয়েছে ছয় মাস আগে। কী করে কী হয়েছে জানি না। ইউনাইটেড হাসপাতালে গিয়ে ওর সারা শরীরে আঘাতের চিহ্ন দেখেছি।

সহপাঠী আরিফুল ইসলাম বলেন, বিয়ের পর সে শুধু পরীক্ষা দিতে ক্যাম্পাসে আসত। সে সময় তার শ্বশুরবাড়ির পক্ষ থেকে একজন লোক সঙ্গে থাকত। ইলমার হাজব্যান্ড ভিডিও কলে এসব দেখত।

তিনি আরও বলেন, বিয়ের পর ইলমা সম্পূর্ণ চেঞ্জ হয়ে যায়। বোরকা-হিজাব পরা শুরু করে। আমাদের কারও সঙ্গে কথা বলত না। নীরবে এসে নীরবেই চলে 

ইউটিউবে এনবিএস-এর সব খবর দেখুন। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের চ্যানেলটি: