গাজায় যুদ্ধের মানবিক বিরতির শর্ত দিল ইসরায়েল

 অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার চলমান যুদ্ধে মানবিক বিরতিতে ইসরায়েল শর্ত সাপেক্ষে সম্মত হতে পারে। রোববার ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সিনিয়র উপদেষ্টা মার্ক রিজেভ একথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, যুদ্ধে বিরতি সংক্রান্ত যেকোনও চুক্তিতে জিম্মিদের মুক্তির বিষয়টি অবশ্যই অন্তর্ভুক্ত করতে হবে।

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলায় ৬০ জিম্মি নিহত হয়েছেন বলে হামাসের দাবির বিষয়ে মার্ক রিজেভ বলেছেন, ‘আমি এটা নিশ্চিত করতে পারছি না, আমার ধারণা এটা হামাসের মনস্তাত্ত্বিক প্রচারণার অংশ।’

তিনি বলেন,‘তারা চায় আমরা তাদের ওপর হামলা বন্ধ করি। যে কারণে তারা বলছে, আমরা নিজেদের লোকজনকে হত্যা করছি। তারা চায় আমরা এটা বিশ্বাস করি। কিন্তু আসলে এটা সত্য নয়।’’
 ত্রাণবাহী লরির মাধ্যমে গাজায় জ্বালানি প্রবেশ করতে পারে কি না, বিবিসির এমন প্রশ্নের জবাবে মার্ক রিজেভ বলেছেন, ইসরায়েল গাজায় খাদ্য, ওষুধ এবং পানির সীমাহীন প্রবেশের বিষয়ে রাজি হয়েছে। তবে জ্বালানি অনেক বেশি সংবেদনশীল। কারণ জ্বালানি হাসপাতালের জেনারেটর সচল করতে পারে যা একটি ভাল বিষয়। কিন্তু একই সাথে হামাসের সামরিক যানবাহনকেও বিশেষকরে হামাসের রিকেট নিক্ষেপের মেশিনগুলোকে সচল করতে সহায়ক হতে পারে।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা শুরু করা গাজার ক্ষমতাসীন সশস্ত্রগোষ্ঠী হামাসকে নির্মূলের লক্ষ্যে উপত্যকাজুড়ে হামলা চালিয়ে আসছে ইসরায়েলি বাহিনী। ইসরায়েলের হামলায় উপত্যকায় এখন পর্যন্ত প্রায় ৯ হাজার ৮০০ জন  ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন  যাদের মধ্যে চার হাজারেরও বেশি শিশু। আর হামাসের হামলায় ইসরায়েলে নিহত হয়েছেন এক হাজার ৪০০ ইসরায়েলি । সূত্র: ওয়ান ইন্ডিয়া বাংলা

এনবিএস/ওডে/সি

news